২৭ কার্তিক  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৭ কার্তিক  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৪ নভেম্বর ২০১৯ 

BREAKING NEWS

আকাশনীল ভট্টাচার্য ও সুমিত বিশ্বাস: কংগ্রেস নেতা সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়ের গ্রেপ্তারিকে সামনে রেখে ফের যৌথ প্রতিবাদ কর্মসূচি বাম-কংগ্রেসের। শুক্রবার সকাল থেকে খড়দহ থানা-সহ একাধিক জায়গায় বিক্ষোভে নেমেছেন কংগ্রেস কর্মীরা। তাঁদের সর্বতোভাবে সমর্থন জানিয়ে বিক্ষোভে শামিল বাম কর্মীরাও।

কংগ্রেস নেতা অরুণাভ ঘোষ, উত্তর ২৪ পরগনার জেলা সভাপতি তাপস মজুমদার এবং সিপিএম নেতা দুলাল বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে এদিন প্রায় হাজার জনের একটি দল খড়দহ থানা ঘেরাও করে বিক্ষোভ দেখান। আইসি’র কাছে স্মারকলিপি জমা দেন। তাঁদের দাবি, কী কারণে সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে গ্রেপ্তার করা হল, তাঁকে আপাতত কোথায় রাখা হয়েছে – সমস্ত তথ্য জানাতে হবে। নাহলে বৃহত্তর আন্দোলন হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন কংগ্রেস নেতা অরুণাভ ঘোষ। এই ঘটনার নেপথ্যে রাজ্যের স্বরাষ্ট্র সচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত রয়েছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

[আরও পড়ুন: সুপারি কিলার দিয়ে খুন! নিমতায় ম্যানেজমেন্ট পড়ুয়ার হত্যাকাণ্ডে জেরা বান্ধবীকে]

ঘটনার সূত্রপাত দিন কয়েক আগেই। কংগ্রেস নেতা সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায় সোশ্যাল মিডিয়ায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং প্রশাসনের বিরুদ্ধে সরব হয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় কিছু পোস্ট করেন। সেসব পোস্ট আপত্তিকর – এই অভিযোগ তুলে রাজ্যের একাধিক থানায় তাঁর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের হয়। তার ভিত্তিতেই বৃহস্পতিবার রাতে খড়দহ থানা এলাকার অন্তর্গত ইলিয়াস রোডের বাড়ি থেকে তাঁকে সরসারি তুলে নিয়ে যায় পুরুলিয়া জেলা পুলিশের সাইবার ক্রাইম বিভাগের আধিকারিকরা। রাতেই তাঁকে পুরুলিয়ায় নিয়ে যাওয়া হয়।রাতে খবর ছড়িয়ে পড়তেই সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হয়ে ওঠেন বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের কর্মী, সমর্থকরা।

riju-ghosal-fb

 

কেন এভাবে তাঁকে তুলে নিয়ে যাওয়া হল, তা জানতে চেয়ে রাতেই সন্ময়বাবুর স্ত্রী এবং দাদা খড়দহ থানার দ্বারস্থ হন। কিন্তু অভিযোগ, তাঁদের কোনও কথা শোনা হয়নি এবং এফআইআরও নেওয়া হয়নি। খড়দহ থানার পুলিশ জানিয়েছে, বিষয়টি তাদের এক্তিয়ারের বাইরে। তারা এবিষয়ে কিছু জানেন না। এরই প্রতিবাদে আজ খড়দহ থানায় বিক্ষোভ দেখায় কংগ্রেস ও বামকর্মীরা।

[আরও পড়ুন: বিজেপির সংকল্প যাত্রা ঘিরে ধুন্ধুমার, প্রাণ গেল যুব তৃণমূল নেতার]

অন্যদিকে সূত্রের খবর, গতকাল রাতে সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে পুরুলিয়া নিয়ে যাওয়ার পর তাঁকে একটি অজ্ঞাত স্থানে রাখা হয়। আজ দুপুর পর্যন্তও যার খোঁজ পাননি জেলা কংগ্রেসের নেতারাও। পুরুলিয়া জেলা সভাপতি তথা বিধানসভায় কংগ্রেসের ডেপুটি লিডার নেপাল মাহাত জানিয়েছেন, ‘আমাদের নেতা সন্ময়কে কোথায় রাখা হয়েছে, খোঁজ নেই এখনও। তাঁর পরিবারের লোকজনও এখানে এসেছেন। কিন্তু কেউ তাঁর খোঁজ পেতে ব্যর্থ।’ পুরুলিয়ার পুলিশ সুপার আকাশ মাঘারিয়া জানিয়েছেন, সাইবার অপরাধের অভিযোগে কংগ্রেস নেতা সন্ময় বন্দ্যোপাধ্যায়কে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। পুরুলিয়া জেলা ও দায়রা আদালতে তাঁকে পেশ করা হয়েছে।

sanmoy-to-court

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং