৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

রাজ্যে এক কোটিতে আক্রান্ত ১২৬ জন, বিরোধীদের পালটা দিতে তথ্য পেশ তৃণমূলের

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 6, 2020 1:38 pm|    Updated: May 6, 2020 1:38 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনায় মৃত্যুর হার দেশের মধ্যে সর্বাধিক বাংলায়। বিজেপি-সহ বিরোধীরা এমনই দাবি করে আসছে বেশ কয়েকদিন ধরে। করোনায় মৃত ও কো-মরবিডিটির পরিসংখ্যান যোগ করলে রাজ্যে মৃতের সংখ্যা এখন ১৪০। যা নিয়ে বিরোধীদের আক্রমণে অস্বস্তি বাড়ছে শাসকদল তৃণমূলের। কিন্তু ঘাসফুল শিবিরও দমতে নারাজ। তথ্য দিয়ে তৃণমূল বুঝিয়ে দিয়েছে, গোটা দেশের নিরিখে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দেশের মধ্যে অনেক কম বাংলায়। প্রতি ১ কোটিতে রাজ্যে ১২৬ জন আক্রান্ত। সেখানে তালিকার সবার উপরে রয়েছে দিল্লি। সেখানে এক কোটিতে আক্রান্ত ২৪৪৯ জন। সেরকমই একটি তালিকা প্রকাশ করেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

তৃণমূল যে তালিকা প্রকাশ করেছে, তাতে মহারাষ্ট্র, গুজরাট, রাজস্থান, মধ্যপ্রদেশের পরে রয়েছে বাংলা। এই তালিকায় বিজেপি শাসিত রাজ্যের সংখ্যাই বেশি। কেন্দ্রের শাসকদল বিজেপিকে তৃণমূলের প্রশ্ন, কোন মুখে তারা প্রশ্ন তুলছে! যেখানে অন্যান্য রাজ্যগুলির তুলনায় পশ্চিমবঙ্গে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা অনেক কম। ৪ মে পর্যন্ত পরিসংখ্যান ঘেঁটে দেখা যাচ্ছে, প্রতি এক কোটিতে করোনা আক্রান্ত সর্বাধিক দিল্লিতে (২৪৪৯)। এরপরই দ্বিতীয় স্থানে মহারাষ্ট্র (১২১২), তৃতীয় গুজরাটে (৮৯৩), চারে তামিলনাড়ু (৪৪৪), পাঁচে রাজস্থান (৩৮৩), ছয়ে মধ্যপ্রদেশ (৩৫৯) এবং সাতে রয়েছএ পশ্চিমবঙ্গ (১২৬ জন)।

[আরও পড়ুন: লাগাতার লকডাউনের জের, একলাফে দেশে বেকারত্বের হার বেড়ে হল ২৭.১১ শতাংশ]

প্রসঙ্গত, করোনা মোকাবিলায় বাংলার সাফল্য গোটা দেশের সামনে তুলে ধরছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সেইসঙ্গে দলের লোকসভা ও রাজ্যসভার সাংসদরাও পিছিয়ে নেই। করোনা মোকাবিলায় বিরোধীরা যে প্রশ্ন তুলছে, তার জবাব দিতে একের পর এক পরিসংখ্যান তুলে ধরা হচ্ছে। উল্লেখ্য, মঙ্গলবার নিজের অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, গত চার সপ্তাহে রাজ্যের প্রত্যন্ত এলাকায় সাড়ে পাঁচ কোটি বাড়ি গিয়ে ৮৭২ SARI রোগী এবং ৯১,৫১৫ ILI রোগীকে চিহ্নিত করা হয়েছে। আর এই বিরাট কর্মযজ্ঞের নেপথ্যে রয়েছেন রাজ্যের ৬০ হাজার প্রশিক্ষিত আশা ও স্বাস্থ্যকর্মী। তাঁদের এই প্রয়াসকে কুর্নিশ জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement