১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ভোটের আগেই দুঃসংবাদ, করোনায় মৃত্যু বৈষ্ণবনগরের নির্দল প্রার্থী সমীর ঘোষের

Published by: Paramita Paul |    Posted: April 26, 2021 6:43 am|    Updated: April 27, 2021 11:20 am

Bengal Polls Phase 7: Independent candidate of Baishnabnanagar, Maldah dies of coronavirus before polling | Sangbad Pratidin

প্রতীকী ছবি।

রাজ্যে সপ্তম দফার ভোটগ্রহণ পর্ব সম্পূর্ণ। দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদহ, মুর্শিদাবাদ, কলকাতা ও পশ্চিম বর্ধমানের মোট ৩৪ আসনে হয়ে গেল  নির্বাচন। আঁটসাঁট নিরাপত্তা ব্যবস্থা, কোভিডবিধি তে নির্বাচন তুলনায় শান্তিপূর্ণ। দিনভর ভোটের খুঁটিনাটি।

রাত ১০.১৫: ভোটের আগেই  দুঃসংবাদ। করোনার সঙ্গে লড়াইয়ে হার। রাতে মৃত্য়ু হল মালদহের বৈষ্ণবনগরে  নির্দল প্রার্থী সমীর ঘোষের। আগামী ২৯ তারিখ ভোট হওয়ার কথা ছিল এই কেন্দ্রে।

রাত ৮: শীতলকুচির ১২৬ নং বুথে পুনর্নির্বাচনের দিনক্ষণ জানাল নির্বাচন কমিশন। ২৯ তারিখ নির্ধারিত সময়ে ফের ভোটগ্রহণ হবে। জানাল নির্বাচন কমিশন।  

সন্ধে ৭.০৪: ভোট শেষে বার্নপুরের রহমতনগর এলাকায় লাঠিচার্জ কেন্দ্রীয় বাহিনী। সংখ্যালঘু এলাকায় গিয়ে ঘেরাও হয়ে পড়েন বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পল। তাঁকে উদ্ধার করতে গিয়ে ধুন্ধুমার কাণ্ড ঘটে এলাকায়। প্রার্থীর অভিযোগ, তাঁর গাড়ি ঢুকতেই ইট-পাটকেল ছোঁড়া হয়। নয়াবসতির বাসিন্দাদের অভিযোগ, কেন্দ্রীয় বাহিনী তাঁদের ভোট দিতে দেয়নি। বিজেপি প্রার্থী এখন কেন এসেছেন? কেনই বা মিডিয়া নিয়ে এসেছে? এলাকাবাসীর বিক্ষোভ ছত্রভঙ্গ করতে গিয়ে কেন্দ্রীয় বাহিনী লাঠিচার্জ করে। এলাকায় RAF ও পুলিশ নামে এলাকায়।

সন্ধে ৬.৪৫: ভোটের উত্তাপের মাঝে দিনভর বালুরঘাটের জেলা কার্যালয়ে বসেই কাটালেন আরএসপির রাজ্য সম্পাদক বিশ্বনাথ চৌধুরী। ১৯৭৭ সালের পর এই প্রথমবার প্রার্থী হননি বিশ্বনাথবাবু। তবে নিরুত্তাপ থেকেই ভোটপর্বে নজরদারি করলেন তিনি।

সন্ধে ৬.৩০: মুর্শিদাবাদের রানিনগরে আক্রান্ত ২ তৃণমূল নেতা। বাড়ি ভাঙচুরের অভিযোগ। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গেলে বিক্ষোভের মুখে পড়েন জেলা তৃণমূল সভাপতি আবু তাহের।

বিকেল ৫.৪৮: মুর্শিদাবাদে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে গড়ে ৭৫.০৬ শতাংশ। সবচেয়ে বেশি হার রানিনগরে – ৮৪ শতাংশ। দক্ষিণ দিনাজপুরে ৮০.২১ শতাংশ, মালদহে ৭৮.৭৬ শতাংশ, দক্ষিণ কলকাতায় ৫৯.৯১ শতাংশ ও পশ্চিম বর্ধমানে ৭০.৩৪ শতাংশ ভোট পড়ল।

বিকেল ৫.২২: কলকাতা বন্দর কেন্দ্রের গার্ডেনরিচে ভোট ঘিরে উত্তেজনা। একটি স্কুলের সামনে কংগ্রেস-তৃণমূল কর্মীদের মধ্যে সংঘর্ষ। ঘটনাস্থলে প্রচুর পুলিশ। খবর পেয়ে পৌঁছন তৃণমূল প্রার্থী ফিরহাদ হাকিম।

বিকেল ৪.৫২: ভোটের শেষবেলায় মালদহে অশান্তি। হবিবপুরের ২২০ নং বুথে আক্রান্ত বিজেপি কর্মী, অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। মালতীপুরে তৃণমূলের এজেন্টের উপর হামলার অভিযোগ। 

বিকেল ৪.২১: তৃণমূলের ক্যাম্প অফিসে মাংস-ভাতের আয়োজন। ভরপেট মাংস-ভাত খাইয়ে তৃণমূলের বিরুদ্ধে ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ আসানসোল দক্ষিণের বিজেপি প্রার্থী অগ্নিমিত্রা পলের।

বিকেল ৪: সাউথ সিটি ইন্টারন্যাশনাল স্কুলে ভোট দিলেন অভিনেতা-তৃণমূল সাংসদ দেব। বললেন, ”সব শেষ হয়ে দ্রুত নতুন সরকার আসুক। কাজ হোক আরও।” দেখালেন V চিহ্নও। 

দুপুর ৩.৫০: বিকেল পড়তেই হুইলচেয়ারে চড়ে ভোটকেন্দ্রে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ভবানীপুর কেন্দ্রের মিত্র ইনস্টিটিউশনে ভোট দিলেন তিনি। হুইলচেয়ারের কথা মাথায় রেখে বিশেষভাবে মসৃণ জায়গা তৈরি হয়েছে। ভোটদানের পর বেরিয়ে ‘V’ দেখালেন তৃণমূল সুপ্রিমো। 

দুপুর ৩.৩০: বিকেল ৩টে মালদহে ৭০ শতাংশ, মুর্শিদাবাদে ৭৩,  পশ্চিম বর্ধমানে ৬৫ এবং দক্ষিণ কলকাতায় ৫৩ শতাংশ ভোট পড়েছে।

দুপুর ২.২৩: পাণ্ডবেশ্বরে জিতেন্দ্র তিওয়ারিকে ঘিরে বিক্ষোভ তৃণমূল কর্মীদের। 

দুপুর ২.২১: নবগ্রাম বিধানসভার সংযুক্ত মোর্চা প্রার্থী কৃপালিনী ঘোষের অভিযোগ মেহেদিপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১৫৫ নম্বর বুথে এজেন্ট বসতে দেওয়া হয়নি। অভিযোগের তির তৃণমূলের দিকে। 

দুপুর ২.১১: পরিবারের সদস্যরা ভোট দিলেও ভোট দিলেন না রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য।

দুপুর ১.৫১: সপরিবারে ভোট দিলেন রাজ্যের মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম।

দুপুর ১.৪৯: কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানদের ঠান্ডা পানীয় দিয়ে ছাপ্পা দিচ্ছে বিজেপি। এই অভিযোগে বুথের সামনে বিক্ষোভ দেখাল তৃণমূল। দুর্গাপুর পূর্ব বিধানসভার অন্তর্গত ৬৯ নম্বর বুথে বিদ্যাসাগর স্কুলে বিজেপির বিরুদ্ধে ছাপ্পা ভোটের দাবি তুলল তৃণমূলের মহিলা কর্মীরা।কেন্দ্রীয় বাহিনীর পাশাপাশি রাজ্য পুলিশ এসে হঠিয়ে দেয় বিক্ষোভকারীদের।কলকাতার হাসপাতালে ভরতি ভোটারের ভোট দিয়ে দেওয়ার অভিযোগ করা হয়েছে। সুমিতা ভৌমিক নামে এক ভোটারের অভিযোগ, তাঁর ভোট অন্য কেউ দিয়ে গিয়েছে। অবশ্য ওই বুথের বিজেপি এজেন্ট মানস দাস অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। 

দুপুর ১.৩৯: দুপুর দেড়টা পর্যন্ত রাজ্যে ভোট পড়ল ৫৫.১২ শতাংশ।

 

দুপুর ১.৩৮: শ্যামপুকুর বিধানসভার মিনার্ভা থিয়েটারে একুশের বিধানসভার শেষপ্রচারে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দুপুর ১.২৯: তারাতলার কাছে ফিরহাদ হাকিমকে ঘিরে ‘জয় শ্রীরাম’ স্লোগান দিলেন বিজেপি সমর্থকরা। 

দুপুর ১.২১: তাল কাটল মিঠুন চক্রবর্তীর শেষ ভোটপ্রচারে। বোলপুরে সভা ছিল তাঁর। কিন্তু সেই সভায় কোভিডবিধি না মানায় মঞ্চে উঠলেন না মিঠুন। বসে রইলেন হেলিকপ্টারে। 

দুপুর ১.০৭: তৃণমূল কর্মীকে মারধরের অভিযোগ কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে।  বুথের বাইরে এক তৃণমূল কর্মীকে বেধড়ক মারধরের অভিযোগ উঠেছে। সোমবার ভোট চলাকালীন বেলা ১১টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে লাউদোহা ব্লকের প্রতাপপুর পঞ্চায়েতের ২১৭ নম্বর বুথে।আক্রান্ত তৃণমূল কর্মীর নাম কৃষ্ণেন্দু চট্টোপাধ্যায়। তৃণমূলের অভিযোগ, ওই বুথের দলের এজেন্ট বিশ্রামের জন্য বাইরে বেরিয়ে এলে অপর একজন এজেন্ট (রিলিভার) বুথে ঢুকে যায়। বাহিনীর জওয়ানরা তাঁকে বুথে ঢুকতে বাধা দেয়। পরে কৃষ্ণেন্দুবাবু ওই এজেন্টকে নিয়ে ফের বুথে বসাতে গেলে জওয়ানরা তাঁকে বেধড়ক মারধর করে বলে কৃষ্ণেন্দুবাবুর অভিযোগ। তিনি মারাত্মক জখম হন। দলের সহকর্মীরা তাঁকে উদ্ধার করে স্থানীয় এক চিকিৎসকের কাছে নিয়ে যান। ইচ্ছাকৃতভাবে তৃণমূল কর্মীকে মারধর করায় সরব হন পান্ডবেশ্বরের তৃণমূল প্রার্থী নরেন্দ্রনাথ চক্রবর্তী। নির্বাচন কমিশনের কাছেও অভিযোগ জানানো হয়েছে বলে তৃণমূল দাবি করেছে।

দুপুর ১২.৩৫: জামুড়িয়া বিধানসভার অন্তর্গত খোট্টাডিহিতে অশান্তি। অভিযোগ, এদিন খোট্টাডিহির মাঝিপাড়ায় তৃণমূলের একদল কর্মী হামলা চালায়। পাড়ায় গিয়ে বেশ কয়েকজনকে মারধর করে বলেও অভিযোগ। ভোটারদের ভোট দিতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ পেয়ে জামুড়িয়ার সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী ঐশী ঘোষ ঘটনাস্থলে যান। সঙ্গে যায় বিশাল পুলিশবাহিনী। ঐশী ভোটারদের আশ্বাস দেন। সাহস জুগিয়ে ভোট কেন্দ্রে নিয়ে যান।

দুপুর ১২.১৭: হবিবপুর বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী প্রদীপ বাস্কের বিরুদ্ধে দলীয় উত্তরীয় পরে ভোটকেন্দ্রে ঢোকার অভিযোগ। হবিবপুর বিধানসভার কানতুর্কা নিম্ন বুনিয়াদী বিদ্যালয়ের ১৯৩ নম্বর বুথে ভোট চলাকালীন পরিদর্শনে যান তৃণমূল প্রার্থী প্রদীপ বাস্কে। এই ঘটনায়, দলীয় উত্তরীয় পরে ভোটারদের প্রভাবিত করার চেষ্টা চালান বলে অভিযোগ বিরোধীদের। যদিও এ বিষয়ে এখন পর্যন্ত কোনও অভিযোগ জানানো হয়নি। এই ঘটনায় নজর নেই কেন্দ্রীয় বাহিনীর। প্রার্থীর ভোটকেন্দ্রে ঢোকার সময় তাঁর আই কর্ড দেখে প্রবেশ করতে দিলেও গলায় যে দলীয় উত্তরীয় রয়েছে সে বিষয়ে নজর দেয়নি কেন্দ্রীয় বাহিনী।

দুপুর ১২.১২: গুধিয়ার ভোটের লাইনে কংগ্রেস প্রার্থীর টাকা বিলির অভিযোগ নিয়ে রিপোর্ট চাইল কমিশন। 

দুপুর ১২.০৫: মর্ডান হাই স্কুলে ভোট দিলেন তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান।

দুপুর ১২.০২: তপন বিধানসভার হরিহরপুরের বোল্লা পঞ্চায়েতের ৪০/৯০ বুথের ভোটার লিস্টে নাম না থাকা সত্ত্বেও কিছু লোককে তৃণমূল ভোট দিতে নিয়ে যাচ্ছে বলে অভিযোগ। তৃণমূল-বিজেপির মধ্যে ঝামেলা শুরু হয়। 

দুপুর ১২.০১: ভোটকেন্দ্রের বাইরে ১৪৪ ধারা অমান্য করার অপরাধে হরিশ্চন্দ্রপুর বিধানসভা কেন্দ্রের বিভিন্ন এলাকা থেকে গ্রেপ্তার প্রায় ১৫ জন।

সকাল ১১.৪৯: সকাল সাড়ে ১১টা পর্যন্ত রাজ্যে ভোট পড়ল ৩৭.৭২ শতাংশ। দক্ষিণ দিনাজপুর, মালদহে ভোট পড়েছে ৪০ শতাংশ। মুর্শিদাবাদে ভোটের শতকরা হার সবচেয়ে বেশি, ৪২ শতাংশ। পশ্চিম বর্ধমানে ভোট পড়ল ৩৪ শতাংশ। সবচেয়ে কম ভোট পড়েছে দক্ষিণ কলকাতায়, ২৮ শতাংশ। 

 

সকাল ১১.২৯: দুর্গাপুর পূর্ব বিধানসভার অন্তর্গত মলানদিঘিতে ২১৫ নম্বর বুথ কেন্দ্র থেকে প্রায় এক কিলোমিটার দূরে রয়েছে তৃণমূলের কার্যালয়। তৃণমূল কর্মীরা তাঁদের দলীয় কর্মীদের জন্য খাবারের ব্যবস্থা করছিলেন।সেই সময় কেন্দ্রীয় বাহিনী এবং রাজ্য পুলিশের কর্মীরা আচমকাই তাঁদের উপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ। চেয়ার ভেঙে দেওয়ার পাশাপাশি তিনজন দলীয় কর্মীকে মারধর করা হয়েছে বলে অভিযোগ। তৃণমূল কর্মীরা অভিযোগ করছে, বিজেপি কর্মীদের কথা মতো চলছে কেন্দ্রীয় বাহিনী। কাঁকসা থানার পুলিশকে বিষয়টি জানানো হয়েছে। তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়ে তালা লাগিয়ে দেওয়ার অভিযোগ কেন্দ্র বাহিনীর বিরুদ্ধে। পরে সেই তালা খুলে দেওয়া হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে রীতিমতো চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে।

সকাল ১১.১৮: রাসবিহারী কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থীর এজেন্ট মোহন রাওকে বুথের ভিতর শ্লীলতাহানির অভিযোগে আটক করল নিউ আলিপুর থানার পুলিশ।

সকাল ১১.১৪: লালবাগের ১১৬ নম্বর বুথে ইভিএম খারাপ।

সকাল ১১.০৬: পুলিশের সঙ্গে বচসায় জড়ালেন তৃণমূল প্রার্থী সায়নী ঘোষ। অভিযোগ, প্রচুর লোক নিয়ে ঘুরছিলেন তিনি। পুলিশ বাধা দিলে কথা কাটাকাটি হয়। 

সকাল ১০.৩৭: বুথের বাইরে ভোটারদের ভয় দেখানোর অপরাধে তৃণমূলের রানিনগর ২ ব্লকের সভাপতি মীজান হাসানের বাড়ি ভাঙচুর করার অভিযোগ উঠেছে। মীজান জানান, কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা কোমনগর ২১৬ নম্বর বুথ থেকে তৃণমূলের এজেন্টকে বের করে দিয়েছে।

সকাল ১০.২৯: আসানসোল দক্ষিণের ভক্তনগর ২৮৭ নম্বর বুথের ভিতর দলীয় লোগো লাগানো টুপি পরে বসেছিলেন তৃণমুলের বুথ এজেন্ট। টুপি খুলে নিয়ে আসেন অগ্নিমিত্রা পাল।

সকাল ১০.২৫: বালিগঞ্জের পেয়ারাবাগানে উত্তেজনা। বিজেপিকে ক্যাম্প করতে না দেওয়ার অভিযোগ পুলিশের বিরুদ্ধে। এমনকী, বিজেপি প্রার্থী সুব্রত সাহার এজেন্টকে মারধরেরও অভিযোগ উঠেছে। 

সকাল ১০.১৫: পুনর্বাসনের দাবিতে ভোট বয়কট রানিগঞ্জ বিধানসভার হরিশপুর গ্রামে।

সকাল ১০.১১: চাপুই খাস কোলিয়ারি ১৪০, ১৪১ নম্বর বুথ এলাকায় ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ তুলে সেন্ট্রাল পুলিশের দল ও কুইক রেসকিউ টিম রাস্তার মাঝখান থেকে সরিয়ে দিল এলাকার পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি তৃণমূল নেতা বিনোদ নুনিয়াকে। তিনি এদিন কেন্দ্রীয় বাহিনীর আধিকারিকদের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন। 

সকাল ১০.০৭: সুতির ৩২/৩৩/৩৪ নম্বর বুথ। মাস্ক নেই। নেই সামাজিক দূরত্ব। ভোট চলছে অবাধে।

সকাল ১০.০০: আসানসোল দক্ষিণ বিধানসভার রানিগঞ্জের ২৩৮ নম্বর বুথে তৃণমূলের বুথ অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ কেন্দ্রীয় বাহিনীর বিরুদ্ধে। বুথে জমায়েতের অভিযোগ। সেখান থেকে তাঁদের সরাতে গেলে বচসা হয়। সেইসময় বুথ অফিস ভাঙচুরের অভিযোগ উঠেছে।

সকাল ৯.৫৯: ভোট দিলেন বালুরঘাটের সাংসদ সুকান্ত মজুমদার।

সকাল ৯.৫৮: সুতির ২২/২৩ নম্বর বুথে নির্দল প্রার্থীর এজেন্টকে মারধরের অভিযোগ।বন্দুকের বাঁট দিয়ে মারার অভিযোগ উঠেছে। বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয় বলে খবর। 

সকাল ৯.৫৬: বুথে ঢুকতে ফের বাধা পেলেন রাসবিহারীর তৃণমূল প্রার্থী দেবাশিস কুমার। স্থানীয় পুলিশ কর্মীরাই তাঁদের বাধা দিয়েছে বলে অভিযোগ।  

সকাল ৯.৫৫: জামুড়িয়ার বুথে ঢুকতে বাধা সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী ঐশী ঘোষকে। প্রার্থীর অভিযোগের নিশানায় কেন্দ্রীয় বাহিনী। তাঁরা নিয়ম জানেন না বলে অভিযোগ করলেন ঐশী।

সকাল ৯.৫০: সকাল ৯.৩২ মিনিট পর্যন্ত বাংলায় ভোট পড়েছে ১৭.৪৭ শতাংশ। এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক ভোট পড়েছে মুর্শিদাবাদে ২০ শতাংশ। মালদহ ও দক্ষিণ দিনাজপুরে ভোট পড়েছে ১৯ শতাংশ। পশ্চিম বর্ধমানে ১৭ শতাংশ ভোট পড়েছে। সবচেয়ে কম হারে ভোট পড়েছে দক্ষিণ কলকাতায়, ১৩ শতাংশ।

 

সকাল ৯.৪৬: মালতিপুর বিধানসভার ১৮৮ নম্বর বুথের পাশে তৃণমূল কর্মী সমর্থকদের উপর কেন্দ্রীয় বাহিনীর লাঠিচার্জের অভিযোগ উঠল।চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মালতিপুর বিধানসভার যদুপুর এলাকায়। ভোটাররা সাময়িক ভাবে ভোটের লাইনে যাওয়া বন্ধ করে দেন। স্থা্নীয় তৃণমূল নেতৃত্ব নির্বাচন কমিশনে অভিযোগ জানানোর আশ্বাস দিলে ফের ভোটের লাইনে যাওয়া শুরু হয়। তৃণমুল সমর্থকদের দাবি, শান্তিপূর্ণ ভোটদানের ব্যবস্থা করতে হবে।

সকাল ৯.৪০: পুলিশের সঙ্গে বচসা বাধে বালিগঞ্জের বিজেপি প্রার্থী লোকনাথ চট্টোপাধ্যায়ের। বিজেপি নেতাকে গ্রেপ্তারের প্রতিবাদ জানাতে থানায় আসেন তিনি। তাঁর অভিযোগ, বিজেপির পোলিং এজেন্টকে ভয় দেখানো হচ্ছে।

সকাল ৯.৩৮: সোমবার সকালে ভোটের দিনেই প্রয়াত হলেন তৃণমূলের বর্ষীয়ান নেতা তথা জেলা তৃণমূলের সহ সভাপতি সাগির হোসেন। এবার দলের টিকিট না পেয়ে অভিমানে নিজেকে গৃহবন্দি করে রেখেছিলেন তিনি।

সকাল ৯.৩২: শরীর ভাল নেই। কোভিড পরিস্থিতিতে ভোট দিতে যাওয়ার অনুমতি মেলেনি চিকিৎসকদের তরফে। পোস্টাল ব্যালটে ভোট দেওয়ার সময়ও পেরিয়ে গিয়েছে।তাই এই প্রথমবার বিধানসভা নির্বাচনে ভোট দেবেন না রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী বুদ্ধদেব ভট্টাচার্য। উল্লেখ্য, তিনি বালিগঞ্জ কেন্দ্রের ভোটার। 

সকাল ৯.২৭: ভগবানগোলা বিধানসভা কেন্দ্রের পলাশ বাটির ৮৭ নম্বর বুথে কেন্দ্রীয় বাহিনীর লাঠিচার্জের অভিযোগ।

সকাল ৯.২২: মালদহ জেলার ছ’টি বিধানসভা কেন্দ্রের মোট ৫৭টি বুথে ইভিএম ‘অকেজো’। এই অভিযোগ তৃণমূলের।

সকাল ৯.০৮: মুর্শিদাবাদ কেন্দ্রের কংগ্রেস প্রার্থী মিয়াজুদ্দিন খানের বিরুদ্ধে ভোটার লাইনে মাস্ক বিলির অভিযোগ ওঠে। তৃণমূলের অভিযোগ, গুধিয়ায় ভোটারদের প্রভাবিত করে ভোট চাইছিলেন তিনি। যদিও অভিযোগ উড়িয়ে কংগ্রেস প্রার্থী দাবি করেছেন, তিনি ভোটারদের প্রভাবিত করছিলেন না। বরং করোনা পরিস্থিতিতে ভোটারদের সুরক্ষার কথা ভেবে মাস্ক বিলি করেছেন। অভিযোগ, মাস্কের মধ্যে টাকাও বিলি করছিলেন তিনি। 

সকাল ৯.০৫: মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরে ১৬৩ ১৬৪ কমলাবাড়ি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোটকেন্দ্রে আসতে বাধা দেওয়ার অভিযোগ। বিজেপি সমর্থকদের বিরুদ্ধে অভিযোগ তৃণমূলের।

সকাল ৮.৫৩: সোমবার সকাল সকাল বিভিন্ন বুথে ভোট প্রক্রিয়া তদারকি করলেন পাণ্ডবেশ্বর বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী জিতেন্দ্র তিওয়ারি। বৈদ্যনাথপুর হাইস্কুল বুথ থেকে বেরিয়ে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে জিতেন্দ্রবাবু জানান, “শান্তি ও নির্বিঘ্নে ভোট চলছে।সব বুথে বিভিন্ন দলের পোলিং এজেন্ট রয়েছে।” ভোট প্রক্রিয়া নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও অভিযোগ নেই বলে জানান তিনি।পাশাপাশি তিনি প্রশংসা করেন কমিশনের। নির্বিঘ্নে যাতে ভোট হয় তার জন্য কমিশন যে সব পদক্ষেপ নিয়েছে, তাতে তিনি খুশি বলে জানান।

সকাল ৮.৪৮: ভোটকেন্দ্রে তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া টি শার্ট পরে ভোট দিতে গিয়েছিলেন ভোটার।ঘটনাস্থল হরিশ্চন্দ্রপুর বিধানসভার বাংরুয়া প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১৮৭ নম্বর বুথ। বিষয়টি নজরে আসে কেন্দ্রীয় বাহিনীর কর্তাদের।তৎপরতার সঙ্গে ওই ভোটারকে গেঞ্জি বদল করে ভোট দিতে আসার নির্দেশ দেয় বাহিনী। 

সকাল ৮.৪৭: গাড়িতে হামলা হয়েছে বলে দাবি করেছিলেন রানিনগরের বিজেপি প্রার্থী মসুহারা খাতুন। তাঁর দাবি নাকচ করল কমিশন। 

সকাল ৮.৪২: সকাল সকাল লাইনে দাঁড়িয়ে কুলটি বিধানসভার চলবলপুর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ১৩ নম্বর বুথে পরিবারের সকলকে নিয়ে ভোট দিলেন নন্দীগ্রামের সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থী মীনাক্ষী মুখোপাধ্যায়। এদিন ভোট দেওয়ার পর তিনি জানান, নির্বাচন কমিশন দায়িত্ব পালন করতে না পারায় মানুষের মনে আতঙ্ক, ক্ষোভ ও অসন্তোষ রয়েছে। তিনি দাবি করেন সংযুক্ত মোর্চা এবার সরকার গড়বে। বিজেপি এবং তৃণমূল ছয় দফায় দাবি করেছেন তারা সরকার করছেন। এই দাবিকে উড়িয়ে দিয়ে তিনি বলেন, তাহলে ভোট বন্ধ করে দিলে সরকারের টাকা বাঁচবে।

সকাল ৮.৪০: মুর্শিদাবাদ বিধানসভার তেঁতুলিয়ায় বর্ডারপাড়া এলাকায় ২৪৮ \ ৬৪ নম্বর বুথের কাছে বোমাবাজির অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে।অভিযোগ, বিজেপির কার্যালয় ভাঙচুর করা হয়। ছিঁড়ে ফেলা হয় বিজেপির ফেস্টুন ব্যানার। এলাকায় পুলিশ ও কেন্দ্রীয় বাহিনীর টহল শুরু হয়েছে।

সকাল ৮.৩৩: বুথের কয়েক মিটারের মধ্যে বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের দেওয়াললিখন নিয়েই হবিবপুর বিধানসভা কেন্দ্রের কেন্দুয়া ২৩০ নম্বর বুথ এলাকায় শুরু বিতর্ক। করোনা বিধি সঠিকভাবে না মানায় এখনও ভোটগ্রহণ শুরু হয়নি। বুথের এতো কাছে কী করে বিজেপি ও বামফ্রন্টের রাজনৈতিক দলের প্রার্থীর প্রচারে দেওয়াল লিখন থাকতে পারে, সে নিয়ে প্রশ্ন তুলছে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব।

সকাল ৮.১৬: সকাল থেকেই বুথে বুথে ঘুরছেন বিজেপি প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষ।প্রিসাইডিং অফিসার, পুলিশ আধিকারিকদের বিরুদ্ধে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ আনলেন ভবানীপুরের বিজেপি প্রার্থী রুদ্রনীল ঘোষ।

সকাল ৮.১৫: রতুয়া বিধানসভার ১৪৯ নম্বর পিন্ডোলতোলা বুথে সংযুক্ত মোর্চার পোলিং এজেন্টকে বসতে না দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

সকাল ৮.১৪: গাজোল বিধানসভার পান্ডুয়া হাইস্কুলে ২০২, ২০৩ নং বুথে বাইকে তৃণমূলের স্টিকার লাগান নিয়ে বিতর্ক। কেন্দ্রীয় বাহিনীর তৎপরতায় সরিয়ে দেওয়া হল বাইকটিকে।

সকাল ৮.১১: রাসবিহারীর তৃণমূল প্রার্থী দেবাশিস কুমারকে বুথে বাধা দেওয়ার অভিযোগ।কাঠগড়ায় কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা। বুথে ঢুকতে বাধা দেওয়া হয়েছে কংগ্রেস প্রার্তী আশুতোষ মুখোপাধ্যায়কে। 

সকাল ৮.০৭: দুর্গাপুর পূর্ব বিধানসভা কেন্দ্রের ২৭৬/১৩৬নম্বর এম. এ. এম. সি মডার্ন স্কুলে বুথে সংযুক্ত মোর্চার প্রার্থীর সিপিআইএমের বুথ এজেন্ট মাস্ক ও স্যানিটাইজার দিচ্ছিলেন ভোটারদের। এই ছবি ক্যামেরা বন্দি হতেই বিড়ম্বনায় পড়েন প্রিসাইডিং অফিসার, বললেন জানতেন না তিনি। প্রায় এক ঘন্টা আগে ভোট শুরু হয়ে গেলেও আশাকর্মীরা ছিল না। পরে তাকে সরিয়ে দেওয়া হয়। মাস্ক, স্যানিটাইজার দিতে শুরু করে পুলিশ কর্মীরা।

সকাল ৮.০১: বন্দর এলাকায় ফিরহাদ হাকিমের সামনেই উত্তেজনা।পাহাড়পুর এলাকায় উত্তেজনা তৈরি হয়।পুলিশের সঙ্গে তর্কাতর্কি বাধে।হরিমোহন কলেজ-সহ নির্বাচন অঞ্চল ঘুরে দেখছেন তৃণমূল প্রার্থী।

সকাল ৭.৫১: সাতসকালে ভবানীপুরের মিত্র ইন্সটিটিউশনে ভোট দিতে গেলেন ডায়মন্ড হারবারের সাংসদ তথা যুব তৃণমূলের সভাপতি। জয়ের বিষয়ে আত্মবিশ্বাসী তিনি। অভিষেকের দাবি, “সংখ্যাগরিষ্ঠতা তৃণমূল পেয়ে গিয়েছে। এখন আসন বাড়ানোর পালা। দুই-তৃতীয়াংশ আসন নিয়ে তৃতীয়বার সরকারে আসবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার।”

সকাল ৭.৫০: কলকাতার ওয়াটগঞ্জে বিজেপি এজেন্টকে বাধা। 

সকাল ৭.৪৭: সাগরদিঘির ৯০ নম্বর বুথের ইভিএম বিকল। 

সকাল ৭.৪২:  দুর্গাপুর পশ্চিম বিধানসভার ২৩১ নং বুথে সকাল থেকে ইভিএম খারাপ। লম্বা লাইন ভোটারদের।

সকাল ৭.৩৯: কলকাতা বন্দরের একটি বুথে ইভিএম খারাপ।

সকাল ৭.৩৮: মালদার চাঁচোল ৪৫ নম্বর বিধানসভার ২৩৩ নম্বর বুথে ইভিএম মেশিন খারাপ।সকাল ৭ টায় ভোট শুরু হওয়ার কথা থাকলেও এখনও পর্যন্ত ভোট প্রক্রিয়া শুরু হয়নি।

সকাল ৭.৩৩: বন্দর থানা এলাকা থেকে উদ্ধার তাজা বোমা।পশ্চিম বন্দর থানা এলাকার হুগলি পাটকলের কাছ থেকে ১৯টি বোমা মিলেছে। কড়েয়া এলাকা থেকে ১৫টি বোমা মিলেছে বলে খবর। 

সকাল ৭.২৫: তেঁতুলিয়া গ্রামে বিজেপির দলীয় কার্যালয় ভাঙচুরের খবর সামনে এসেছে। বিজেপির সংখ্যালঘু মোর্চার সভাপতিকে মারধরের অভিযোগ। কাঠগড়ায় তৃণমূল। 

সকাল ৭.১৬: রানিনগরে বিজেপি প্রার্থী মসুহারা খাতুনকে বাধা দেওয়ার অভিযোগ। তাঁর গাড়ি ঘিরে বিক্ষোভ দেখানোর অভিযোগ উঠেছে। গাড়িতে এজেন্টকে নিয়ে যাওয়া হচ্ছিল বলে খবর। পরে অবশ্য পুলিশ গিয়ে পরিস্থিতি সামাল দেয়। এদিকে অভিযোগ রবিবার রাত থেকেই বিভিন্ন জায়গায় বোমাবাজি করে আতঙ্ক সৃষ্টি করেছে তৃণমূলের লোকজন। ওই সময় বোমাবাজির জেরে রানিনগরের পানিপিয়ায় আরেজান বেওয়া নামের এক বৃদ্ধা জখম হয়েছেন। তাঁর চিকিৎসা চলছে মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে।

সকাল ৭.০৯: ছেলের সঙ্গে ভোট দিতে গেলেন ভবানীপুরের তৃণমূল প্রার্থী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায়।

 

সকাল ৭.০৫: সুতিতে কাঠগড়ায় কেন্দ্রীয় বাহিনী। ১৬৮ নম্বর বুথের ভোটারদের প্রভাবিত করার অভিযোগ। গ্রামবাসীদের অভিযোগ, কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানরা বাড়িতে ঢুকে বিজেপিকে ভোট দেওয়ার জন্য প্রভাবিত করার অভিযোগ উঠেছে। গেরুয়া শিবিরের ভোট না দিলে লাঠিপেটার নিদান দেওয়া হয়েছে বলে অভিযোগ।

সকাল ৭.০৪: সপ্তম দফা ভোটগ্রহণ শুরু বাংলার ৩৪টি বিধানসভা আসনে। কোভিডবিধি মেনে চলছে ভোটগ্রহণ।

 

সকাল ৭.০১: কোভিডবিধি মেনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করুন। সপ্তম দফা নির্বাচনে ভোটগ্রহণ শুরুর আগে টুইটারে আরজি প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির। 

সকাল ৬.৫৪: ভোট শুরুর আগেই মুর্শিদাবাদের বিভিন্ন এলাকা থেকে একাধিক অভিযোগ সামনে আসছে। অভিযোগ, রানিনগর বিধানসভার মালিবাড়ি ১৭৫, ১৭৬ নম্বর বুথে কংগ্রেসের এজেন্টদের ঢুকতে দেওয়া হয়নি। ৩১ নম্বর লোচনপুর বুথে কংগ্রেসের এজেন্টের ফর্ম কেড়ে নেওয়া হয়েছে। পমাইপুর ,রোমিপুর , ধূলাউড়ির নুলিয়াপাড়ায় রাত থেকেই বোমাবাজি করে ভোটারদের ভয় দেখানোর অভিযোগ উঠেছে।
সেক্টর অফিসে জানিয়েও কোনও কাজ হচ্ছে না বলে অভিযোগ করছেন মোর্চার কংগ্রেস প্রার্থী ফিরোজা বেগম।

সকাল ৬.৫০: দুর্গাপুরের একাধিক বুথে ইভিএমে গন্ডগোল। দুর্গাপুর পূর্বের ১৯৬, ১০৮, ৭৪, ৮৭ বুথে ব্যালট ইউনিট খারাপ হয়ে গিয়েছে। 

সকাল ৬.৪৯: মুর্শিদাবাদের রানিনগরের বুথে উত্তেজনা। দুষ্কৃতীদের বিরুদ্ধে মহিলা ভোটারদের ভয় দেখানোর অভিযোগ। 

সকাল ৬.৪৪: মুর্শিদাবাদ বিধানসভার তেঁতুলিয়া গ্রামে রাতভর বোমাবাজি করে দুষ্কৃতীরা। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, ওই দুষ্কৃতীরা এলাকায় তৃণমূল ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত। 

সকাল ৬.৩৭: মালদহের চাঁচলে উত্তেজনা। এক বিজেপি নেতাকে মারধরের অভিযোগ। 

সকাল ৬.৩৫: ভোটের আগের রাতে মালদহের রতুয়া থেকে একাধিক নির্দল সমর্থককে আটক করা হয়েছে। নির্দল প্রার্থী পায়েল খাতুনের ১০ পোলিং এজেন্টকেও আটক করা হয়েছে বলে খবর। প্রতিবাদে থানার সামনে ধরনায় বসেছেন প্রার্থী।

সকাল ৬.৩০: ভোটের আগে মুর্শিদাবাদে পুলিশকর্মী বদল। মুর্শিদাবাদ থানার আইসির পরিবর্তে আনা হল নীহাররঞ্জন রায়কে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement