২০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বুধবার ৭ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Mithun Chakraborty: ‘মহাগুরু’র মহাভোজ! পুরুলিয়ায় দলীয় নেতার বাড়িতে পেটপুজো মিঠুনের, কী ছিল মেনুতে?

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 23, 2022 4:35 pm|    Updated: November 23, 2022 4:45 pm

BJP leader Mithun Chakraborty attended meeting in Purulia, had lunch at party leader's house । Sangbad Pratidin

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: দলীয় কর্মিসভায় জনসংযোগের পর জেলা বিজেপি নেতার বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ সারলেন মিঠুন চক্রবর্তী। ‘মহাগুরু’র মধ্যাহ্নভোজ বলে কথা তাই মেনুতে ছিল বাঙালি খাবার। দলীয় নেতার বাড়িতে মধ্যাহ্নভোজ চেটেপুটে উপভোগ করেন তিনি। ‘মহাগুরু’কে খাবার খাইয়ে খুশি বিজেপি নেতার পরিবারের লোকজনও।

পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে বিজেপির তরফে প্রত্যন্ত এলাকায় জনসংযোগে নানা কর্মসূচি রয়েছে মিঠুন চক্রবর্তীর (Mithun Chakraborty)। বুধবার পুরুলিয়ার হুড়ার লধুরকার ঝান্ডা ময়দানে কর্মিসভায় যোগ দেন ‘মহাগুরু’। মঞ্চে দাঁড়িয়ে প্রথমেই তিনি জানান, “আজ আমি ডায়লগ দিতে আসিনি। আপনাদের কথা শুনতে এসেছি। আপনাদের যা জিজ্ঞাসা করার করুন। যার যা দুঃখ, কষ্ট আছে বলুন।” এরপর একে একে কর্মিসভায় উপস্থিত সকলেই মিঠুনকে মনের কথা বলতে শুরু করেন। এরপরই মিঠুন বলেন, “ঘরে ঘরে পোস্টারে বাংলার আবাস যোজনা করে দিয়েছে। কে টাকা পাঠাবে? কাকে পাঠাবে? আমি বলছি, কেন্দ্র বলছে আগে হিসেব দিন। উনি বলছেন আমাদের পয়সা দিচ্ছে না, আমি কী করে দেব?”

[আরও পড়ুন: ‘পিছনে কেন? সামনে আসুন’, রাজ্যপালের শপথ অনুষ্ঠানে বিমান বসুর সঙ্গে সৌজন্য বিনিময় মমতার]

স্থানীয়দের বোঝাতে রীতিমতো উদাহরণ দিয়ে তিনি বলেন, “আপনি ধরুন রামকে টাকা দিয়ে বাজারে পাঠালেন। রাম ফিরে এলে তার থেকে হিসেব চাইবেন না? যা পয়সা দিলেন তার তো হিসেব থাকে। যদি বলেন, ওটা তো শ্যাম দেখে শ্যামকে দিয়ে দিন। আপনি কি শ্যামকে দেবেন? দেবেন না। রামের টাকা রামকেই দেবেন। প্রধানমন্ত্রীর আবাস যোজনার টাকা সেই আবাস যোজনার ব্যাংকেই আসবে। আপনি পোস্টার মারলে কী করে হবে? এখন সবাই স্বীকার করছে সড়ক যোজনা, আবাস যোজনা যা কাজ হচ্ছে কেন্দ্র করছে। সব পাবে। ওখানকার লোক এসেছে। সব হিসেব আছে। সব টাকা পাবেন। প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার টাকা সবাই পাবেন। কিছুদিনের জন্য টাকা আটকে রাখা হয়েছে। কারণ, রাজ্য সরকারকে হিসেব দিতে হবে। এটা জনগণের টাকা। সবাইকে হিসেবে দিতে হবে।”

কর্মিসভার পর পুরুলিয়া জেলা সহ সভাপতি ফাল্গুনী বন্দ্যোপাধ্যায়ের বাড়িতে যান মিঠুন। সেখানে মধ্যাহ্নভোজ সারেন। মেনুতে ছিল ভাত, বাসন্তী পোলাও, বেগুন ভাজা, আলু ভাজা, ডাল, পোস্তর বড়া, আলু পোস্ত, চচ্চড়ি, মাছের কালিয়া, চারাপোনার ঝাল, পনির, চাটনি ও পায়েস। বিজেপি জেলা সহ সভাপতির বোন মৌসুমী বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, বাড়ির মহিলারা মিলেই রান্নাগুলি করেছেন। একে তো ‘মহাগুরু’, তার উপর আবার দলীয় নেতা বলে কথা, তাই মিঠুনকে খাবার খাইয়ে খুশি বিজেপি জেলা সহ সভাপতি। দলীয় নেতার বাড়িতে বাঙালি খাবার খেয়ে আপ্লুত মিঠুন চক্রবর্তীও।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: আটটা বিয়ের পরেও পরকীয়া! প্রেমিকের সঙ্গে ঘনিষ্ঠ অবস্থায় মা’কে দেখে ফেলতেই খুন সৎ ছেলে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে