BREAKING NEWS

২৬ বৈশাখ  ১৪২৯  সোমবার ১৬ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘দিদিকে বলো’র পালটা ‘ঘরের ছেলেকে বলো’, মমতাকে চ্যালেঞ্জ মুকুলপুত্র শুভ্রাংশুর

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: August 24, 2019 8:20 pm|    Updated: August 24, 2019 8:21 pm

Mukul Roy's son Subhrangshu Roy starts Ghorer Chele ke bolo campaign

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘দিদিকে বলো’ শুরু হওয়ার পরে উজ্জীবিত হয়ে উঠেছেন তৃণমূল কর্মীরা। এই কর্মসূচির ফলে লোকসভায় হারানো জমি উদ্ধার হবে বলেই ধারণা তৈরি হয়েছে তাঁদের মনে। এর পিছনে ভোট কৌশলী প্রশান্ত কিশোরের হাত রয়েছে বলেও জল্পনা চলছে রাজ্যের রাজনৈতিক মহলে। বিষয়টি নিয়ে কটাক্ষ করলেও রাজ্য বিজেপি সভাপতি দিলীপ ঘোষ থেকে ব্যারাকপুরের বাহুবলী সাংসদ অর্জুন সিং। সবাই হেঁটেছেন একই পথে! রীতিমতো ঢাকঢোল পিটিয়ে ব্যারাকপুর সুকান্ত সদনে ‘আমাদের অর্জুন’ অ্যাপ চালু করেছেন বাহুবলী থেকে জননেতা হতে চাওয়া সাংসদ। তবে একটু অন্যরকমভাবে ‘চায়ে পে চর্চা’র নামে জনসংযোগের হাতিয়ার খুঁজেছেন রাজ্য সভাপতি দিলীপবাবু। আর এবার ‘ঘরের ছেলেকে বলো’ পোস্টারে ছেয়ে গেল উত্তর ২৪ পরগনার বীজপুর ও কাঁচরাপাড়া এলাকা। ওই পোস্টারে স্থানীয় বিধায়ক ও বিজেপি নেতা শুভ্রাংশু রায়ের মোবাইল নম্বর ও একটি মেল আইডিও দেওয়া হয়েছে। ওই পোস্টারের পাশাপাশি বিলি করা হচ্ছে তাঁর নম্বর(৯০৫১৩৭৭০৬৮) ও মেল আইডি দেওয়া একটি ভিজিটিং কার্ড। গেরুয়া রঙের ওই কার্ডে তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে আসা বিধায়কের ছবি সমেত নম্বর ও মেল আইডি দিয়ে ‘ঘরের ছেলেকে বলো’ লেখা রয়েছে।

[আরও পড়ুন: মেঘলা আকাশে বিরল দৃশ্য, সূর্য ঘিরে জ্যোতির্বলয় দেখে আপ্লুত গঙ্গারামপুরবাসী]

সূত্রের খবর, স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ শোনার জন্য এই কৌশল নিয়েছেন শুভ্রাংশু। পাশাপাশি চেষ্টা করেছেন তৃণমূলকে জবাব দেওয়ারও। তাই বীজপুরের যে এলাকাগুলিতে ‘দিদিকে বলো’র পোস্টার দিয়েছে তৃণমূল। ঠিক তার পাশেই সাঁটানো হয়েছে ‘ঘরের ছেলেকে বলো’র পোস্টার। স্থানীয়রা বলছেন, ক্ষুরধার রাজনৈতিক বুদ্ধিসম্পন্ন মুকুল রায়ের কথাতেই এই পোস্টার তৈরি করা হয়েছে। তাঁদের মতে, এমনিতে স্থানীয় যুব সম্প্রদায়ের মধ্যে বেশ জনপ্রিয় স্বল্পভাষী শুভ্রাংশ। কিন্তু, তা দিয়ে তৃণমূলের সঙ্গে লড়াই করা শক্ত হবে বলেই মনে করছেন রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা। তাই নিজের বিধানসভা এলাকার মানুষের অভিযোগ শুনতে ওই পোস্টার মেরেছেন মুকুলপুত্র।

এপ্রসঙ্গে শুভ্রাংশ রায় বলেন, ‘আমি বছরের ৩৬৫ দিনই এলাকার বাসিন্দাদের পাশে থাকি। তাই ‘ঘরের ছেলেকে বলো’ নতুন কিছু নয়। তবে এলাকার মানুষ যাতে এই পোস্টার দেখে তাঁদের সমস্ত সমস্যার কথা আমাকে বলেন তার চেষ্টা করেছি। আমি চাই ওনারা নিজেদের সুখদু:খের কথা আমাকে বলুন। অভাব ও অভিযোগের কথা জানান। তাহলে আমি আমার সামর্থ্য অনুযায়ী তাদের সাহায্য করার চেষ্টা করব। এর জন্যই এই উদ্যোগ নিয়েছি।’

[আরও পড়ুন: অনুব্রতর গড়ে ফের বিস্ফোরণ, উড়ল তৃণমূল নেতার বাড়ির চাল]

প্রসঙ্গত, লোকসভা ভোটে বিজেপির অভূতপূর্ব সাফল্যের পর সাংবাদিক সম্মেলন করে বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হন পুত্র শুভ্রাংশু রায়। তার জেরেই তৃণমূল থেকে ছ’বছরের জন্য তাঁকে সাসপেন্ড করেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু, সেই সাসপেনশনে পাত্তা না দিয়ে বাবার হাত ধরে দিল্লি গিয়ে গেরুয়া শিবিরে নাম লিখিয়ে ছিলেন হাপুর। এবার ‘ঘরের ছেলেকে বলো’র মাধ্যমে সোজাসুজি তৃণমূল নেত্রীকেই যেন চ্যালেঞ্জ জানালেন মুকুল রায়ের বিধায়ক পুত্র!

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে