১১ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

১১ ফাল্গুন  ১৪২৬  সোমবার ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

ব্রতদীপ ভট্টাচার্য, বারাসত: পুরভোটে তৃণমূল যে ভাষা বুঝবে, সেই ভাষাতেই জবাব দেওয়া হবে। পঞ্চায়েত ভোটের মতো জোর করে ভোট করলে, ২০২১ সালের বিধানসভা নির্বাচনে মানুষ তার জবাব দেবে। শুক্রবার বারাসত আদালত চত্বরে সাংবাদিকদের প্রশ্নের উত্তরে এমনই মন্তব্য করলেন বিজেপি নেতা সায়ন্তন বসু। এদিন তিনি ফের অনুপ্রবেশকারীদের বাংলাদেশে তাড়ানো হবে বলেই হুঙ্কার ছাড়েন।

পুরনো একটি রাজনৈতিক মামলায় এদিন বারাসতের বিশেষ আদালতে হাজিরা দিতে আসেন সায়ন্তন। হাজিরা দিয়ে বেরনোর সময় আসন্ন পুরভোট নিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে সায়ন্তন বলেন, ‘গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে তৃণমূল জোর করে ভোট করেছে। পুলিশ ও দুষ্কৃতীরা একজোট হয়ে ভোট করেছে। তার মধ্যেও লড়াই করে আমরা বহু পঞ্চায়েতে জিতেছি।’ তিনি আরও বলেন, ‘পুরভোটে তৃণমূল যদি এবার জোর করে ভোট করে, মানুষ তার জবাব দেবে। পুলিশ ও দুষ্কৃতীরা এক হয়ে ভোট করলে আমরা থেমে থাকব না। তৃণমূল যে ভাষা বুঝবে, আমরা সেই ভাষাতেই জবাব দেব। ওঁরা গুলি ছুঁড়লে আমরা নিশ্চয়ই রসগোল্লা বা ফুল ছুঁড়ব না।’

[আরও পড়ুন: ‘রাজ্যে NRC হচ্ছে না, কারও নাম বাদ যাবে না’, দাবি বিজেপি নেতা মুকুল রায়ের]

এনপিআর বা এনআরসি নিয়ে প্রশ্নের উত্তরে বিজেপি নেতা বলেন, ‘ফর্ম ফিলআপ করলে কেউ ডি-ভোটার হয়ে যাবেন না। আমাদের সাফ কথা, বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারী মুসলমানদের আমরা থাকতে দেব না। ওদের তাড়িয়ে দেব।’ সম্প্রতি, বিজেপি দলটাকে পাগলের দল বলে খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক কটাক্ষ করেছিলেন। সেই প্রশ্নের জবাবে সায়ন্তন বলেন, ‘জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক নিজেই তো রাঁচি থেকে এসেছেন। ওকে আবার পাগলাগারদে ঢুকিয়ে দেওয়া দরকার।’

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং