BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

আসছেন না অমিত শাহ, পুজোর আগে উত্তরবঙ্গ সফরে জেপি নাড্ডা

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: October 14, 2020 3:30 pm|    Updated: October 14, 2020 3:51 pm

An Images

ফাইল ফটো

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: দুর্গাপুজোর আগে দুদিন সফরে উত্তরবঙ্গ আসার কথা ছিল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের। কিন্তু, তাঁর বদলে বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা (JP Nadda) উত্তরবঙ্গ সফরে আসছেন বলে জানালেন রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু।

এপ্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘পুজোর আগে উত্তরবঙ্গে আসছেন আমাদের দলের সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডাজি। আগামী ১৯ অক্টোবর শিলিগুড়িতে একটি সাংগঠনিক বৈঠকে যোগ দেবেন তিনি। এর পাশাপাশি ওইদিনই আলাদা একটি বৈঠক করবেন গোর্খা ও রাজবংশী সম্প্রদায়ের মানুষদের সঙ্গে। পরের দিন শিলিগুড়ি থেকেই দিল্লি ফিরে যাওয়া কথা রয়েছে তাঁর। আর পুজোর আগে আসতে না পারলেও পুজোর পর দক্ষিণবঙ্গে সফরে আসার কথা রয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর।’

[আরও পড়ুন: বয়সজনিত কারণ নাকি অন্য কিছু? গরুমারায় দাপিয়ে বেড়ানো গন্ডার ডনের মৃত্যুতে প্রশ্ন]

বিজেপি সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রথমে পুজোর আগে অমিত শাহ (Amit Shah) উত্তরবঙ্গ সফরে আসার কথা ছিল। কিন্তু, ওই সময়ে জেপি নাড্ডা উত্তরবঙ্গ সফরে আসবেন বলে দলীয় স্তরে সিদ্ধান্ত হয়েছে। মাত্র একদিনের জন্য শিলিগুড়িতে আসবেন তিনি। দলীয় বৈঠকের পরে শহরের কিছু পুজো মণ্ডপও ঘুরে দেখার কথা রয়েছে তাঁর। তবে কোনওভাবে কলকাতা যাওয়ার এখনও পর্যন্ত কোনও পরিকল্পনা নেই।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, দুদিন আগেই দিল্লি থেকে ফেরার পথে কলকাতা বিমানবন্দরে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে পুজোর আগে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী উত্তরবঙ্গ সফরে আসতে পারেন বলে জানিয়েছিলেন কেন্দ্রীয় নেতা কৈলাস বিজয়বর্গীয়। তবে বিষয়টি যে এখনও চূড়ান্ত হয়নি সেকথাও উল্লেখ করেছিলেন। পাশাপাশি আরও বলেছিলেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ভারচুয়াল ভাষণের মাধ্যমে ষষ্ঠীর দিন বঙ্গবাসীকে দুর্গাপুজোর শুভেচ্ছা জানাবেন। 

আসলে বিধানসভার প্রস্তুতির জন্য এখন বঙ্গ বিজেপি নেতানেত্রীদের দিল্লি যাতায়াত চলছেই। গত মাসেও এ নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকের পর ফের অক্টোবরের প্রথম দিনই দলের সর্বভারতীয় সভাপতির বাড়িতে বৈঠকে বসেন দিলীপ ঘোষ, রাহুল সিনহা-সহ রাজ্যের কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন, কৈলাস বিজয়বর্গীয়রা। একুশের ভোটে গেরুয়া শিবিরে স্ট্র্যাটেজি ঠিক করাই ছিল আলোচনার মূল বিষয়। নয়া কৃষি আইনকে সামনে রেখে প্রচার তো চলবেই, এছাড়া স্থানীয় বিভিন্ন ইস্যুতে জোর দিয়ে দিলীপ ঘোষ, রাহুল সিনহাদের ভোট প্রচারের নির্দেশ দিয়েছেন নাড্ডা।

[আরও পড়ুন: শারদোৎসবে সম্প্রীতির নজির, আজিজুলের তুলির টানে পটচিত্রে ফুটে উঠছেন মা দুর্গা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement