BREAKING NEWS

৩ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ১৭ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘বারমুডা পরতে পারেন, তাহলে পরিষ্কার দেখা যায়’, মমতাকে কুরুচিকর আক্রমণ দিলীপের

Published by: Paramita Paul |    Posted: March 23, 2021 9:03 pm|    Updated: March 23, 2021 9:15 pm

An Images

সুমিত বিশ্বাস, পুরুলিয়া: ভোটের আবহে ফের বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh) মুখে কু’কথা। আবারও মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে কুরুচিকর কথা বলে বিতর্কে জড়ালেন তিনি।  তৃণমূল নেত্রীর ভাঙা পা নিয়ে কটাক্ষ করতে গিয়ে তাঁকে ‘বারমুডা’ পরার পরামর্শ দিয়েছেন দিলীপ।

মঙ্গলবার পুরুলিয়ার বান্দোয়ান বিধানসভার দলীয় প্রার্থী পারসি মুর্মুর প্রচারে বের হন বিজেপির রাজ্য সভাপতি। হাটতলা মোড় থেকে তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) আক্রমণ করে বলেন, “প্লাস্টার কাটা হয়ে গেল। ফের ব্যান্ডেজ বাধা হয়ে গিয়েছে। আর পা তুলে তুলে সবাইকে দেখাচ্ছে। শাড়ি পড়ে এসে একটা পা ঢাকা। একটা খোলা। এমন শাড়ি পড়তে দেখিনি। যদি পা টা বার করে রাখতে পারেন। তাহলে শাড়ি কেন বারমুডা পরতে পারেন। তাহলে পরিষ্কার দেখা যায়। কত নাটক দেখব আর।” এখানেই থেমে থাকেননি তিনি। বাংলার মেয়ে নিয়েও আপত্তিকর কথা বলেন দিলীপ। তাঁর কথায়, “দিদি বলছেন আমি একজন মহিলা। আমাকে ভোট ভিক্ষা দিন। আমি বাংলার মেয়ে। বাবা বাংলার মেয়ে, বাংলার মেয়ে যা দুর্দশা করেছে আর কেউ চাই না তাকে। এবার মেয়ের হাত থেকে মুক্তি চায়।”

[আরও পড়ুন : পুলিশের অনুমতি সত্ত্বেও ঝাড়গ্রামে তৃণমূলের মিছিলে বাধা, পথে বসে বিক্ষোভ তারকা প্রার্থীর]

‘মেয়ের বিয়ে হয়ে গেলে বেশি দিন বাপের বাড়িতে থাকলে লোকে খারাপ কথা বলে’ এমন মন্তব্যও করেন দিলীপ ঘোষ। তাঁর কথায়, “মেয়ের তো সময় হয়ে গিয়েছে দশ বছর। আর তো রাখা ঠিক হবে না। এবার মেয়ের বিদায় চাই। তাই আমরা বিদায় দেব ঠিক করেছি এবারে। মেয়েকে আর রাখতে চাই না।” তৃণমূলের ‘দিদিকে বলো’ কর্মসূচি নিয়েও কটাক্ষ করে বলেন, “আগে বড় বড় হোর্ডিং লাগিয়েছিল দিদিকে বলো। এখন বলছে দিদিকে ঠেলো। দিদিকে ঠেলো। এখন চারজন মিলে দিদিকে ঠেলে ঠেলে নিয়ে যাচ্ছে।” দুয়ারে সরকার নিয়েও আক্রমণ শানান দিলীপ। তাঁর কথায়, “দিদি বললেন, দুয়ারে-দুয়ারে সরকার। আমরা বসে আছি ঝাঁটা নিয়ে। কখন সরকার আসছে। সরকার তো এল না। দুয়ারে সরকার হল না। ঠেলা গাড়ির সরকার হয়ে গেল। হুইল চেয়ারের সরকার হয়ে গেল। দিদি বুঝে গিয়েছেন আর জিততে পারবেন না। তাই নাটক করছেন।” এই সভায় প্রার্থী ছাড়াও ছিলেন বিজেপির জেলা সভাপতি বিদ্যাসাগর চক্রবর্তী।

[আরও পড়ুন : ‘শরীর ভাল নেই’, বিষণ্ণতা মিশ্রিত গলায় কেন একথা বললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়?]

দেখুন ভিডিও:

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement