BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ১ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

পঞ্চায়েত ভোটে দলের প্রার্থী খুঁজতে জেলা সফরে গেরুয়া শিবিরের কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব, তোপ তৃণমূলের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: November 6, 2022 2:01 pm|    Updated: November 6, 2022 2:05 pm

BJP top leadership tries to find candidates by visiting district levels, TMC teases initiative | Sangbad Pratidin

স্টাফ রিপোর্টার: অধিকাংশ বুথে এখনও কমিটি হয়নি। পঞ্চায়েতে সেখানে প্রার্থী খুঁজে পেতেও কার্যত হিমশিম খাচ্ছে বঙ্গ বিজেপি (BJP)। বহু আসনে প্রার্থী পাওয়া নিয়ে সংশয়ে রাজ‌্য নেতারা। তাই এবার বুথ সংগঠনের হাল দেখতে ও পঞ্চায়েতে দলের প্রার্থী খুঁজতে আজ থেকেই জেলা সফর শুরু করছেন রাজ্যের দায়িত্বপ্রাপ্ত কেন্দ্রীয় নেতারা। বুথস্তরে সংগঠনের অস্তিত্ব কতটা আছে, সংগঠনের অবস্থা কীরকম, তা দেখতে জেলায় জেলায় যাচ্ছেন রাজ‌্য বিজেপির পর্যবেক্ষক সুনীল বনসল (Sunil Banshal), মঙ্গল পাণ্ডেরা। একইসঙ্গে প্রার্থীর বিষয়টিও দেখবেন তাঁরা।

আজ, রবিবার উত্তরবঙ্গ (North Bengal) থেকে সাংগঠনিক বৈঠক শুরু করছেন রাজ‌্য বিজেপির পর্যবেক্ষক সুনীল বনসল। উত্তরবঙ্গের ৬টি সাংগঠনিক জেলার নেতাদের সঙ্গে তিনি বৈঠকে বসতে চলেছেন। কোচবিহার ও আলিপুরদুয়ারকে আপাতত বাইরে রাখা হয়েছে। ২০১৯-এ উত্তরবঙ্গে বিজেপি ভাল ফল করলেও, ২০২১-এর বিধানসভা ভোটে এবং তারপর একাধিক নির্বাচনে উত্তরবঙ্গেও জমি শক্ত করছে তৃণমূল। উত্তরবঙ্গে জমি আলগা হচ্ছে বিজেপির। তাই প্রথমেই উত্তরবঙ্গ দিয়ে জেলা সফর শুরু করছেন সুনীল বনসল। আগামী তিনদিন অর্থাৎ মঙ্গলবার পর্যন্ত উত্তরবঙ্গে বৈঠক করবেন বনশল।

[আরও পড়ুন: দুরন্ত এক্সপ্রেসের কামরায় এসি চলেনি, যাত্রীকে ৫০ হাজার টাকা ক্ষতিপূরণের দিতে হবে রেলকে]

এদিকে, পঞ্চায়েত ভোটে নয়া কৌশল নিয়েছে গেরুয়া শিবির। মনোনয়নের সময় প্রার্থীদের সঙ্গে থাকবেন দলের সাংসদ ও বিধায়করা। ওই সময়ে নিজেদের এলাকায় সাংসদ ও বিধায়কদের থাকতে বলা হয়েছে। বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ, পঞ্চায়েত নির্বাচনে সন্ত্রাস করবে শাসকদল। বিজেপির এই অভিযোগ নিয়ে পালটা তোপ দেগেছে তৃণমূল (TMC)।

[আরও পড়ুন: রণলিয়ার জীবনে নতুন অতিথি, ফুটফুটে সন্তানের জন্ম দিলেন আলিয়া]

দলের রাজ‌্য সাধারণ সম্পাদক কুণাল ঘোষের (Kunal Ghosh) বক্তব‌্য, ‘‘বিজেপি আগে তাদের বুথ সভাপতিদের নামের একটা তালিকা দিক। যাদের বুথ কমিটি নেই। যাদের অর্ধেক জায়গায় মণ্ডল কমিটি নেই। যারা পঞ্চায়েতে প্রার্থী পায় না। এই প্রার্থী দিতে না পারার জন‌্য তারা যদি অন‌্য অভিযোগ করছে।’’ কুণালের প্রশ্ন, ‘‘ত্রিপুরায় কীভাবে ৯০ শতাংশ আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতল বিজেপি। সেখানে তৃণমূল, বামপন্থীরা, কংগ্রেস কি ছিল না? ত্রিপুরায় তো সন্ত্রাস করে মনোনয়ন জমা দিতে দেয়নি বিজেপি। ত্রিপুরায় ৯০ শতাংশ আসনে বিনাপ্রতিদ্বন্দিতায় জিতলে সেটা গণতন্ত্র। আর এখানে প্রার্থী খুঁজে না পেলে নাকে কান্না! দু’টো একসঙ্গে হয় না।’’

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে