BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

এবার আইআইটি খড়গপুরে হানা দিল মারণ ‘ব্লু হোয়েল’!

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: August 23, 2017 3:48 am|    Updated: October 4, 2019 1:58 pm

Blue Whale scare in IIT Kharagpur, 3 students suspended

নিজস্ব সংবাদদাতা: তিন ছাত্রীর হাতে কাটা দাগকে কেন্দ্র করে ব্লু হোয়েলের আতঙ্ক ছড়াল খড়গপুর আইআইটি চত্বরে অবস্থিত একটি ইংরাজি মাধ্যম বিদ্যালয়ে। তড়িঘড়ি ওই তিন ছাত্রীকে তিনদিনের জন্য স্কুল থেকে সাসপেন্ড করা হয়। দয়ানন্দ আর্য বিদ্যাপীঠ নামে এই বিদ্যালয়ের সপ্তম শ্রেণির তিন ছাত্রীর বাঁ হাতে কাটা চিহ্ন নজরে আসার পরই মঙ্গলবার ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয় স্কুলে৷ যদিও বিষয়টিকে ব্লু হোয়েল বলে মানতে নারাজ বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷

[ব্লু হোয়েলের নেশা কাটাতে এবার রাজ্যে শুরু কাউন্সেলিং]

বিষয়টি নজরে আসার পরে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ তিন ছাত্রীর অভিভভাবদের ডেকে পাঠায়৷ তার মধ্যে দুই ছাত্রীর অভিভাবক বিদ্যালয়ে আসেন৷ বিষয়টি নিয়ে স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেন তাঁরা। অভিভাবকদের সঙ্গে কথা বলার পরে এই বিদ্যালয়ের কর্তৃপক্ষ একপ্রকার নিশ্চিত হন যে, কাটা দাগগুলি কোনও ব্লু হোয়েল কিংবা এই জাতীয় কিছু নয়৷ তবে বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নিয়েছে, সেপ্টেম্বর মাসের ১ তারিখ থেকে ১০ তারিখ পর্যন্ত ব্লু হোয়েল গেমের বিষয় নিয়ে লাগাতার কর্মশালা করা হবে৷ যাতে বিদ্যালয়ের পড়ুয়ারা এই ভয়ঙ্কর খেলা সম্পর্কে সচেতন হয়৷

[OMG! বাস্তবে ব্লু হোয়েল গেম বলে কিছুই নেই?]

বিদ্যালয়ের অধ্যক্ষ এন কে গৌতম বলেন, “তিন ছাত্রীর হাতের কাটা দাগের সঙ্গে ব্লু হোয়েলের কোনও সম্পর্ক নেই। অভিভাবকেরা জানিয়েছেন, বাড়িতে কেটে গিয়েছে৷ আর ছাত্রীরা ইন্টারনেট কিংবা এই জাতীয় কোনও গেম খেলে না।” কিন্তু প্রশ্ন উঠছে, যদি ব্লু হোয়েলের সঙ্গে তিন ছাত্রীর হাত কাটার কোনও সম্পর্ক নেই, তাহলে তাদেরকে সাসপেন্ড করা হল কেন? স্কুল কর্তৃপক্ষের বক্তব্য, কোনও ছাত্রী যাতে ব্লু হোয়েলের মরণখেলার ফাঁদে না পড়ে, সেই জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়ে একটি বার্তা দেওয়া হল। ব্লু হোয়েলের বিষয়ে পড়ুয়াদের সচেতন করার জন্য সেপ্টেম্বর মাসের প্রথম দশদিন এই বিষয়ে একটি  কর্মশালা করা হবে৷ এতে খড়গপুর আইআইটির বিশেষজ্ঞ মনোবিদদের আনা হবে।

[ব্লু হোয়েল গেমের মরণকামড় থেকে দেশকে বাঁচাতে কড়া পদক্ষেপ কেন্দ্রের]

উল্লেখ্য, সম্প্রতি এদেশেও অনলাইনে ব্লু হোয়েল নামক এক মারণখেলা এদেশে ঢুকে পড়েছে। এই খেলার বিভিন্ন ধাপ রয়েছে। মূলত টিন এজাররাই এই খেলার ফাঁদে পড়ছে। মুম্বইতে এই খেলা খেলতে গিয়ে এক কিশোরের মৃত্যুও হয়েছে। মেদিনীপুরের আনন্দপুরে এক কিশোরের  অস্বাভাবিক মৃত্যুর পিছনেও ব্লু হোয়েল খেলা ছিল বলে সন্দেহ করা হচ্ছে। এই খেলার প্রথম ধাপই হল নিজের হাত কাটা। দয়ানন্দ আর্য স্কুলে তিন কিশোরীর হাতে কাটা চিহ্ন দেখে ব্লু হোয়েলের আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে। যদিও প্রকাশ্যে কেউ তা স্বীকার করেননি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে