BREAKING NEWS

২ মাঘ  ১৪২৭  শনিবার ১৬ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ভাটার সময়ও মিলবে বোট অ্যাম্বুলেন্স‌ পরিষেবা, প্রশাসনের উদ্যোগে খুশি সাগরদ্বীপের বাসিন্দারা

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: January 1, 2021 10:52 pm|    Updated: January 1, 2021 10:52 pm

An Images

সুরজিৎ দেব, ডায়মন্ডহারবার: আচমকা কোনও রোগী অসুস্থ হয়ে পড়লে নদী পারাপারের জন্য বোট অ্যাম্বুলেন্স (Boat Ambulance) পরিষেবাই ভরসা। কিন্তু ভাঁটার সময় এতদিন সেই পরিষেবা পেতেন না সাগরদ্বীপের মানুষরা। তবে এবার মুশকিল আসান হল। সাগরমেলার আগেই সাগর ব্লক প্রশাসনের উদ্যোগে এবার মুড়িগঙ্গা নদীতে কম জলেও বোট অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা চালু হল। আর প্রশাসনিক এই উদ্যোগে খুশির হাওয়া সাধারণ মানুষের মনে।

জানা গিয়েছে, কচুবেড়িয়া ঘাট থেকে লট নম্বর ৮ ঘাট পর্যন্ত নদীপথে যন্ত্রচালিত নৌকায় দিনরাত চালু থাকবে এই পরিষেবা। শুক্রবার জলপথে নতুন এই অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবার উদ্বোধন করেন সাগরের বিধায়ক বঙ্কিম চন্দ্র হাজরা।

[আরও পড়ুন: ‘রাজ্যের উন্নয়নে বাধা কেন্দ্র’, ‘বিদ্রোহ’ ঘোষণার পর প্রথম দলীয় অনুষ্ঠানে ভোলবদল জিতেন্দ্রর]

উদ্বোধনের পর বিধায়ক জানান, ‘‌‘‌২০২০ সালের জরাজীর্ণতা কাটিয়ে নতুন বছরে সাগরদ্বীপের (Sagardeep) মানুষের কাছে এ এক উপহার। মুড়িগঙ্গা নদীপথে মুমূর্ষু রোগীকে কাকদ্বীপ, ডায়মন্ডহারবার কিংবা কলকাতার সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতালে পৌঁছে দিতে দিনরাত এই পরিষেবা চালু থাকবে। নদীতে খুব কম জল থাকলেও এই অ্যাম্বুল্যান্স চলাচলে কোনও বাধা সৃষ্টি হবে না।’‌’‌

উল্লেখ্য, এর আগে দু’টি লঞ্চে ওয়াটার অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা থাকা সত্ত্বেও, কম জলে লঞ্চ না চলায় সেই পরিষেবা দেওয়া সম্ভব হত না। ফলে মরণাপন্ন রোগীকে নিয়ে রোগীর আত্মীয়স্বজনকে ভোগান্তিতে পড়তে হত। অনেক বেশি টাকা দিয়ে নৌকা ভাড়া করে পারাপার করতে হত নদীতে। বিধায়ক বলেন, কম জলে চলতে পারা যন্ত্রচালিত নৌকায় এবার নতুন এই অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা চালু হয়েছে। এই কারণে সাধারণ মানুষকে আর সমস্যায় পড়তে হবে না। বিধায়ক ছাড়াও এদিন অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবার উদ্বোধনে উপস্থিত ছিলেন সাগর পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি রাজেন্দ্রনাথ খাঁড়া, কর্মাধ্যক্ষ প্রীতিলতা প্রামাণিক, ব্লক উন্নয়ন আধিকারিক সুদীপ্ত মন্ডল ও জেলা পরিষদের দুই সদস্য মহিতোষ দাস এবং সুতনু মাইতি। এদিকে, নতুন বছরের শুরুতেই নয়া এই পরিষেবা চালু হওয়ায় খুশি এলাকার সাধারণ মানু্ষ। প্রশাসনের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানিয়েছেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্ত রাজ্যের আরও ২ লন্ডন ফেরত বাসিন্দা, বাড়ছে ‘বহুরূপী’ ভাইরাসের আতঙ্ক]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement