১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  রবিবার ২৬ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ দেশের রায় LIVE রাজ্যের ফলাফল LIVE বিধানসভা নির্বাচনের রায় মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

বিক্রম রায়, কোচবিহার: কনেযাত্রীর গাড়ি কোথায় রাখা হবে, তা নিয়ে সামান্য বিবাদ৷ আর সেই বিবাদের জলই গড়াল গুলির লড়াইয়ে৷ শুধু তাই নয়, এই গুলির লড়াইয়ে প্রাণ গেল এক বালকের৷ নিহত বালক কোচবিহারের উত্তর খাগড়াবাড়ির বাসিন্দা৷ এই ঘটনায় এখনও কাউকে গ্রেপ্তার করা যায়নি৷ তবে কে বা কারা গুলি চালাল, তা খতিয়ে দেখতে ইতিমধ্যে পাত্র এবং পাত্রীপক্ষকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছেন তদন্তকারীরা৷

[ভিন রাজ্যের নির্বাচনী নালিশ আসছে বর্ধমানের কল সেন্টারে, নাজেহাল কর্মীরা]

কোচবিহারের ডাউয়াগুড়ির রায়পাড়ার বাসিন্দা এক যুবকের সঙ্গে গত বুধবার বিয়ে হয় উত্তর খাগড়াবাড়ির এক তরুণী৷ শুক্রবার ছিল তাঁদের বউভাত৷ কনের বাড়ির লোকজনেরা একটি গাড়িতে করে ওই অনুষ্ঠানে যোগ দিতে আসেন৷ পাত্রের বাড়ির কাছাকাছি গাড়ি রেখেছিলেন কনেযাত্রীরা৷ অভিযোগ, কেন ওই জায়গায় গাড়ি রাখা হল, তা নিয়ে পাত্রপক্ষের পাড়ার বেশ কয়েকজন যুবক চিৎকার চেঁচামেচি শুরু করেন৷ কনেযাত্রীর গাড়িচালকের সঙ্গে পাত্রপক্ষের পাড়ার যুবকদের বচসা মুহূর্তের মধ্যেই হাতাহাতিতে গড়ায়৷ শুধু তাই নয় আচমকাই ওই যুবকের গুলি চালাতে শুরু করে বলেও অভিযোগ৷ বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি চালায় তারা৷ একটি গুলি ছিটকে এসে কনেযাত্রীর দলে থাকা এক বালকের গায়ে লাগে৷ তড়িঘড়ি ওই কিশোরকে উদ্ধার করে কোচবিহার গর্ভনমেন্ট মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়৷ বেশ কিছুক্ষণ চিকিৎসা চলার পরই মারা যায় সে৷ কোতয়ালি থানার পুলিশ বালকের মৃতদেহ ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে৷

[অতীতে একসঙ্গে অনুষ্ঠান মুনমুন-বাবুলের, রাজনীতির মঞ্চে এখন প্রতিপক্ষ]

জানা গিয়েছে নিহত ওই বালকের নাম ঋত্বিক বিশ্বাস৷ বছর দশেকের ওই বালক উত্তর খাগড়াবাড়ির বাসিন্দা৷ কনে সম্পর্কে তার দিদি হয়৷ দিদির বউভাতে এসে যে ছোট্ট ঋত্বিককে প্রাণ হারাতে হবে, তা ভাবতে পারেননি পরিবারের কেউই৷ গোটা ঘটনায় রীতিমতো শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়৷ এই ঘটনার পর থেকেই রায়পাড়া এবং উত্তর খাগড়াবাড়ি থমথমে হয়ে গিয়েছে৷ রাতেই রায়পাড়া এলাকায় পৌঁছায় কোতয়ালি থানার বিশাল পুলিশবাহিনী৷ ঘটনার তদন্তে নেমে প্রথমেই পাত্রপক্ষের লোকজনদের সঙ্গে কথা বলেন তদন্তকারীরা৷ কে বা কারা মামুলি বিবাদে গুলি চালাল, সেই প্রশ্নই এখন ভাবাচ্ছে আধিকারিকদের৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং