BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কালিম্পংয়ে গুরুং ঘনিষ্ঠ নেতার গাড়িতে ভাঙচুর, আক্রান্ত সংবাদমাধ্যম

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 18, 2019 4:45 pm|    Updated: April 18, 2019 4:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভা নির্বাচনের দ্বিতীয় দফার ভোটগ্রহণকে কেন্দ্র করে সকাল থেকেই রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে বিক্ষিপ্ত অশান্তির ছবি প্রকাশ্যে এসেছে। কোথাও বুথকর্মীদের কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। রায়গঞ্জে আক্রান্ত হন খোদ সিপিএম প্রার্থী মহম্মদ সেলিম। এরপর দুপুরের দিকে কালিম্পংয়ে ভাঙচুর করা গুরুংপন্থী এক নেতার গাড়িতে। সেখানেই ভাঙচুর করা হয় সংবাদমাধ্যমের একটি গাড়িতেও।

[আরও পড়ুন: নোটবন্দির পর চাকরিতে কোপ ৫০ লক্ষ পুরুষের, সমীক্ষায় চাঞ্চল্যকর তথ্য]

দ্বিতীয় দফার ভোটের শুরু থেকেই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে রায়গঞ্জ, চোপড়া-সহ একাধিক এলাকা। বেলা বাড়তেই অশান্তির ছবি স্পষ্ট হতে থাকে অন্যান্য কেন্দ্রগুলিতেও। উত্তপ্ত হয়ে ওঠে কালিম্পং-ও। জানা গিয়েছে, এদিন দুপুর ৩টে নাগাদ বিমল গুরুং ঘনিষ্ঠ টপডেন ভুটিয়ার গাড়িতে ভাঙচুর চালানো হয় মাল্লি রোড এলাকায়। বেপরোয়া ভাবে গাড়িতে ভাঙচুর চালায় দুষ্কৃতীরা।  অভিযোগ, সেখানেই ছিল একটি সংবাদ মাধ্যমের গাড়ি। সেই গাড়িতেও ভাঙচুর চালানো হয়। কোনওক্রমে আক্রমণের হাত থেকে রক্ষা পান সাংবাদিক, চিত্রসাংবাদিক ও গাড়ির চালক। ঘটনার পর উত্তপ্ত হয়ে ওঠে এলাকা। বেশ কিছুক্ষণ পর স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি।

[আরও পড়ুন: নির্বিঘ্নেই শুরু বারো রাজ্যের ৯৫ আসনের ভোট, শুরুতেই চিন্তা বাড়াচ্ছে ইভিএম]

এই প্রথম নয়। আজ সকালে ভোটগ্রহণ নিয়ে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। গোয়ালপোখরে আক্রান্ত হন এক সাংবাদিক। অর্থাৎ দ্বিতীয় দফার ভোটে উত্তপ্ত হয় বেশ কয়েকটি জায়গা। তবে অধিকাংশ ক্ষেত্রেই  শান্তিপূর্ণভাবে ভোট দিয়েছেন ভোটাররা। নির্বাচনী পর্যবেক্ষক বিবেক দুবে বলেছেন, কয়েকটি বিচ্ছিন্ন ঘটনা ছাড়া রাজ্যে বড় কোনও অশান্তির ঘটনা ঘটেনি। শান্তিপূর্ণভাবেই ভোট হয়েছে।     

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement