BREAKING NEWS

১২  আষাঢ়  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৮ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসক নেই, অটোতেই প্রসব মহিলার

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: April 2, 2018 2:34 pm|    Updated: June 27, 2019 7:29 pm

Chhattisgarh: Denied treatment, woman gives birth in auto

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  স্বাস্থ্যকেন্দ্রে চিকিৎসক নেই, নেই প্রসব করানোর পূর্ণ ব্যবস্থা। শেষ পর্যন্ত অটোরিকশাতে সন্তানের জন্ম দিলেন মা। এমনিতেই কেন্দ্র এখন সন্তানসম্ভবা মহিলাদের জন্য বিভিন্ন কল্যাণমূলক প্রকল্প চালুর উদ্যোগ নিয়েছে। ঠিক সেই সময় এহেন ঘটনা ঘটল বিজেপি শাসিত রাজ্য ছত্তিশগড়ে।

ঘটনাস্থল ছত্তিশগড় রাজ্যের কোরিয়া এলাকা। সন্তানসম্ভবা গৃহবধূর প্রসব বেদনা উঠলে তাঁকে নিয়ে এলাকার স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আসে পরিবারের লোকজন। দীর্ঘক্ষণ সেখানে প্রসব যন্ত্রণায় কষ্ট পাচ্ছিলেন ওই গৃহবধূ। অভিযোগ, অনেক সময় কেটে গেলেও স্বাস্থ্যকেন্দ্রে কোনও চিকিৎসকের দেখা মেলেনি। একপ্রকার বাধ্য হয়েই পরিবাররের মহিলারা প্রসবে সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন। যে অটোতে করে তাঁকে স্বাস্থ্যকেন্দ্রে আনা হয়েছিল, সেই অটোতেই তাঁর প্রসবের ব্যবস্থা করা হয়। চিকিৎসক ছাড়াই সন্তানের জন্ম দেন ওই গৃহবধূ।

[পেট্রল-ডিজেলের দামের পর আর্থিক বছরের শুরুতেই বাড়ল টোল ট্যাক্সও]

কেন্দ্রের নয়া স্বাস্থ্যবিধিকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে এই ঘটনা ফের প্রমাণ করল, মেট্রো শহরে যাই থাকুক না কেন স্বাস্থ্য পরিষেবায় এখনও অন্ধকারেই দেশের বহু এলাকা। ছত্তিশগড়ের মতো রাজ্যগুলি সেই তালিকার একেবারে প্রথম দিকে রয়েছে। কোথাও স্বাস্থ্যকেন্দ্র নেই,  কোথাও বা স্বাস্থ্যকেন্দ্র থাকলেও নেই প্রয়োজনীয় চিকিৎসক ও নার্স। কখনও প্রয়োজনীয় ওষুধ ও য্ন্ত্রপাতির অভাব। কোথাও বা সব থেকেও অবহেলায় পড়ে থাকে রোগী। প্রাথমিক চিকিৎসা থেকে শুরু করে চেকআপের কোনও বন্দোবস্তই নেই।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা হু’র রিপোর্ট অনুসারে ভারতে সন্তান জন্ম দিতে গিয়ে প্রতি এক ঘণ্টায় অন্তত পাঁচ জন মহিলার জীবনহানি ঘটে। প্রত্যেক বছরে সন্তানের জন্মের সময় প্রায় ৪৫ হাজার প্রসূতি মৃত্যুর ঘটনা ঘটে। এই সংক্রান্ত সমীক্ষা রিপোর্ট যথেষ্ট ভয়াবহ। বলা বাহুল্য,  প্রয়োজনীয় চিকিৎসা ব্যবস্থার অভাবে দিল্লির এইমসের মতো প্রথম সারির হাসপাতালেও রোগীকে ফিরিয়ে দেওয়া হয়।

[চিন ও মায়ানমার সীমান্তে ব্যাপক নজরদারি বাড়াল ভারতীয় সেনা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে