১৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শুক্রবার ২৯ মে ২০২০ 

Advertisement

তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত তুফানগঞ্জ, পুলিশের গাড়ি ভাঙচুর দুষ্কৃতীদের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: October 19, 2019 6:42 pm|    Updated: October 19, 2019 6:42 pm

An Images

বিক্রম রায়, তুফানগঞ্জ: তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষের ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠল কোচবিহারের তুফানগঞ্জ। শনিবার সকালে ইট ভাটায় কর্মী নিয়োগকে কেন্দ্র করে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়ে ২ পক্ষ। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। দীর্ঘক্ষণ পর স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি।

শনিবার সকালে তুফানগঞ্জ ১ নম্বর ব্লকের দেওচড়াইমোড়ে একটি ইটভাটায় কর্মী নিয়োগ চলছিল। সেই সময়ই কর্মী নিয়োগকে কেন্দ্র করে অশান্তিতে জড়িয়ে তৃণমূল-বিজেপির কর্মীরা। বচসা ক্রমেই হাতাহাতিতে পৌঁছয়। এরপরই খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে যায় তুফানগঞ্জ থানার পুলিশ। ঘটনাস্থলে পৌঁছনোর পর পুলিশের সামনেই চলে দু’পক্ষের লড়াই। এরপর পরিস্থিতি সামাল দিতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। আহত হয় ৫ বিজেপি কর্মী। মন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষের অভিযোগ, বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরা পরিকল্পনামাফিক ইট ভাটায় অশান্তি করেছে। ভাঙচুর করা হয়েছে পুলিশের গাড়ি। দুষ্কৃতীরা পুলিশের গাড়িতে বোমাবাজি করেছে বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

একইদিন তৃণমূল-বিজেপি সংঘর্ষে উত্তপ্ত হয়ে ওঠে তুফানগঞ্জ ২ নম্বর ব্লকের শালবাড়ি ২ গ্রাম পঞ্চায়েতের তল্লিগুড়ি এলাকা। জানা গিয়েছে, এদিন ওই এলাকায় সভা করার কথা ছিল বিজেপির। সকাল থেকেই প্রস্তুতি চলছিল। অভিযোগ, সেই সময় সেখানে হামলা চালায় তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীরা। আহত হন ১৭ জন বিজেপি কর্মী। গুরুতর আহত অবস্থায় হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ১ জন। যদিও এই অভিযোগ ভিত্তিহীন বলেই দাবি স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের। তাঁদের পালটা অভিযোগ, বিজেপি আশ্রিত দুষ্কৃতীরাই তৃণমূলের কার্যালয়ে ভাঙচুর চালিয়েছে। ঘটনার পর দীর্ঘক্ষণ পেরিয়ে গিয়েছে। তবে এখনও থমথমে এলাকা।

ছবি: দেবাশিস বিশ্বাস

[আরও পড়ুন: সহবাসের পর বিয়েতে ‘না’, প্রেমিকের বাড়িতে ধরনায় অন্তঃসত্ত্বা নাবালিকা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement