BREAKING NEWS

৭ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২১ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

আফরাজুলের পরিবারকে চাকরির আশ্বাস মুখ্যমন্ত্রীর, মালদায় যাচ্ছে সংসদীয় দল

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 8, 2017 10:08 am|    Updated: September 20, 2019 4:15 pm

CM announces 3 lakh compensation and Govt job for Afrazul's Family

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজস্থানে নিহত মহম্মদ আফরাজুলের পরিবারের পাশে রাজ্য সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ঘোষণা, নিহতের পরিবারকে তিন লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। পরিবারের একজন চাকরিও পাবেন। শুক্রবার আফরাজুলের পরিবারের  লোকেদের ফোনেও কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী। সূত্রে খবর, মুখ্যমন্ত্রী জানতে চান, কাকে চাকরি দেওয়া হবে। রাতে মালদা রওনা হচ্ছেন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম, শুভেন্দু অধিকারী-সহ তৃণমূল নেতা-মন্ত্রীদের একটি প্রতিনিধি দল। এদিকে শনিবার এই ঘটনার প্রতিবাদে কলকাতায় মিছিল করবে যুব তৃণমূল কংগ্রেস।

[খুনের ঘটনা ক্যামেরাবন্দি করে ১৪ বছরের কিশোর, আফরাজুল হত্যা কাণ্ডে নয়া তথ্য]

হিন্দুদের মেয়ের প্রেমের ফাঁদে ফেলে বিয়ে করছেন মুসলিম যুবকরা। বিয়ের পর তাঁদের ইসলাম ধর্ম গ্রহণের জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ। এরই নাম ‘লাভ জেহাদ’।  এই লাভ জেহাদ ঘিরে এখন উত্তাল গোটা দেশ। মামলা গড়িয়েছে সুপ্রিম কোর্টে। বিজেপিশাসিত রাজস্থানে লাভ জেহাদের অভিযোগ তুলে বাঙালি প্রৌঢ় মহম্মদ আফরাজুল খানকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে  কোপায় এক যুবক। তারপর তাঁকে জ্যান্ত পুড়িয়ে মারা হয়। নৃশংস সেই ঘটনার ভিড়িও ইন্টারনেটে ছড়িয়েও দিয়েছে অভিযুক্ত। নিহত আফরাজুল মালদার বাসিন্দা। রাজস্থানে ঠিকা শ্রমিকের কাজ করতেন। জানা গিয়েছে, আফরাজুলকে তুলে নিয়ে আসে অভিযুক্তরা। ভিডিও-তে দেখা গিয়েছে, আফরাজুল প্রথমে তাড়া এক অভিযুক্ত। তারপর দা দিয়ে কোপানো হয়। বারবার প্রাণভিক্ষা করেও কোনও লাভ হয়নি। একসময়ে নিস্তেজ হয়ে পড়ে আফরাজুল। রক্তাক্ত ওই ঠিকাশ্রমিকের সামনে দাঁড়িয়ে ভিডিও-তে অভিযুক্ত শম্ভুলাল রেগার হুমকি দেয়, লাভ জেহাদের পরিণতি এমনই হবে। কথা না শুনলে এইভাবেই খুন করা হবে। এরপরই আফরাজুলের শরীরে আগুন লাগিয়ে দেওয়া হয়।

[রাজস্থানে আফরাজুলের হত্যার ভিডিও দেখে অজ্ঞান স্ত্রী, ফাঁসির দাবি মেয়ের]

নারকীয় এই ঘটনার ভিডিও প্রকাশ্যে আসতেই কার্যত শিউড়ে ওঠে গোটা দেশ। শুক্রবার টুইটে নিহত আফরাজুলের পরিবারকে সমবেদনা জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর টুইট, ‘রাজস্থানে যা ঘটেছে, তা অত্যন্ত দুঃখজনক। আমাদের রাজ্যের আফরাজুল খানকে নৃশংসভাবে খুন করা হয়েছে। তাঁর পরিবার এখন সহায়-সম্বলহীন। নিহতের পরিবারকে ৩ লক্ষ টাকা ক্ষতিপূরণ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে আমাদের সরকার। পরিবারের একজন চাকরি দেওয়া হবে। পরিবারের সঙ্গে দেখা করার জন্য আমাদের মন্ত্রী ও সাংসদের একটি দলকে পাঠাচ্ছি।’ শুক্রবার সকালে ফোনেও আফরাজুলের পরিবারের সঙ্গে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী নিজে।

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশে শুক্রবার রাতে মালদা রওনা হচ্ছেন, রাজ্যের দুই মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম ও শুভেন্দু অধিকারী। যাচ্ছেন তৃণমূল সাংসদ সৌগত রায়, সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায় ও কাকলি ঘোষদস্তিদারও। শুক্রবার আফরাজুলের পরিবারের সঙ্গে দেখা করেছেন মালদার জেলাশাসকও। এদিকে শনিবার এই ঘটনার প্রতিবাদে কলকাতায় মিছিল করবে যুব তৃণমূল কংগ্রেস।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে