BREAKING NEWS

৩০ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৮  সোমবার ১৪ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রাজ্যে একদিনে করোনার বলি ১২৭, বাড়ল সুস্থতার হারও

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 8, 2021 7:54 pm|    Updated: May 8, 2021 8:14 pm

Corona in West Bengal: 19436 new cases in last 24 hours, 127 death | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কোভিডের (COVID-19) দ্বিতীয় পর্যায়ে প্রতিদিনই রেকর্ড ভাঙছে দৈনিক সংক্রমণ। স্বাস্থ্যদপ্তরের সাম্প্রতিকতম পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় বাংলায় নতুন করে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১৯ হাজার ৪৩৬। আর এ নিয়ে রাজ্যে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা ছাড়াল সাড়ে ৯ লক্ষ। এই মুহূর্তে রাজ্যে অ্যাকটিভ করোনা রোগীর সংখ্যা ১ লক্ষ ২৫ হাজার ১৬৪। একদিনে মারণ ভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যাও রেকর্ড – ১২৭। সুস্থতার হার অবশ্য বাড়ল রাজ্যে। গত ২৪ ঘণ্টায় করোনার কবল থেকে সুস্থ হয়ে ফিরেছেন ১৮,২৪৩। এই মুহূর্তে রাজ্যে সুস্থতার হার ৮৫.৮৯ শতাংশ, যা গত কয়েকদিনের তুলনায় ঊর্ধ্বমুখী। গত ২৪ ঘন্টায় ৬৩,৩৭৭ টি নমুনা পরীক্ষা হয়েছে। এর মধ্যে ৮.৯৩ শতাংশ রিপোর্ট পজিটিভ।

করোনা (Coronavirus) সংক্রমণের শৃঙ্খল ভাঙতে নতুন সরকার গঠনের পরই রাজ্যে কার্যত আংশিক লকডাউন শুরু হয়ে গিয়েছে। বন্ধ লোকাল ট্রেন, মেট্রো, বাস, অটোর মতো গণপরিবহণও ৫০ শতাংশ যাত্রী নিয়ে যাতায়াত করছে, বেঁধে দেওয়া হয়েছে বাজার খোলার সময়। চিকিৎসা পরিকাঠামোও আরও উন্নত করা চেষ্টা চলছে প্রতিনিয়ত। তা সত্ত্বেও কিছুতেই যেন সংক্রমণে লাগাম পরানো যাচ্ছে না। বিশেষ করে উত্তর ২৪ পরগনার করোনা পরিস্থিতি সবচেয়ে উদ্বেগজনক। শনিবারও এখানে দৈনিক সংক্রমণ ৩৯৮২, মৃত্যু হয়েছে ৩৯ জনের। এরপরই রয়েছে কলকাতা। দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ৩৯৬১। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে সবচেয়ে এগিয়ে উত্তরের দুই জেলা – কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার।

[আরও পড়ুন: কোভিড মোকাবিলায় তৎপরতা, শপথ নিয়েই কাজে হাত দিলেন তারকা বিধায়ক রাজ]

এসবের মাঝে আবার কোভিডে মৃতদের সৎকারে নয়া নিয়ম জারি করেছে রাজ্য়ের স্বাস্থ্যদপ্তর। বলা হয়েছে, শর্তসাপেক্ষে করোনায় মৃত রোগীর আত্মীয়দের দেখতে দেওয়া হবে। তাঁরা প্রিয়জনের দেহ সৎকারের অনুমোদনও পাবেন। তবে নির্দিষ্ট বিধি মেনেই তা করতে হবে। এই সংক্রান্ত একটি বিজ্ঞপ্তিও জারি করা হয়েছে রাজ্য স্বাস্থ্য দপ্তরের তরফে।

এদিকে, বিভিন্ন হাসপাতালে কোভিড শয্যা বাড়ানোর পাশাপাশি অক্সিজেন সরবরাহ আরও মসৃণ করার চেষ্টা চলছে। সাগর দত্ত মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ১০ শয্যার অক্সিজেন পার্লার খোলা হয়েছে। বিভিন্ন স্টেডিয়ামকে সেফ হোমে পরিণত করা হচ্ছে।  সবমিলিয়ে, আংশিক লকডাউনের পথে হেঁটে করোনা যুদ্ধে কিছুটা অগ্রসর হচ্ছে বাংলা সরকার, তা বলাই যায়।

[আরও পড়ুন: করোনার দাপটে রবিবার থেকে তারকেশ্বর মন্দিরে নিষিদ্ধ ভক্তদের প্রবেশ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement