BREAKING NEWS

১০ আষাঢ়  ১৪২৮  শুক্রবার ২৫ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Coronavirus: কোভিড হাসপাতালের গেটে ঝুলছে রোগীর দেহ, মৃত্যুর কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 9, 2021 9:49 am|    Updated: June 9, 2021 10:09 am

Corona patient's hanging body recovered from the gate of Chandrakona covid hospital ।Sangbad Pratidin

শ্রীকান্ত পাত্র, ঘাটাল: রাজ্যের সরকারি হাসপাতালে করোনা (Coronavirus) জয়ীর রহস্যমৃত্যু। প্রাথমিকভাবে মনে করা হচ্ছে, আত্মঘাতী হয়েছেন ওই করোনা জয়ী। দিনতিনেক আগে করোনা রিপোর্ট নেগেটিভ হয় তাঁর। তবে কিছু শারীরিক অসুস্থতা থাকায় হাসপাতালেই ছিলেন তিনি। মানসিক অবসাদের জেরে আত্মহত্যা বলেই মনে করা হচ্ছে। যদিও পুলিশ বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

চন্দ্রকোণার (Chandrakona) পালংপুরের বাসিন্দা বছর বিয়াল্লিশের শিবরাম ঘোষ সপ্তাহদুয়েক আগে করোনা আক্রান্ত হন। প্রথমে বাড়িতে থেকেই চিকিৎসা চলছিল তাঁর। তবে শ্বাসকষ্টের সমস্যা হওয়ায় সপ্তাহদুয়েক আগে তাঁকে চন্দ্রকোণার কোভিড হাসপাতালে ভরতি করা হয়। বেশ কয়েকদিন কেটে যাওয়ার পর ফের করোনা টেস্ট করানো হয়। তিনদিন আগে রিপোর্ট আসে। জানা যায় শিবরামবাবু করোনা মুক্ত হয়ে গিয়েছেন। তা সত্ত্বেও তাঁর শারীরিক কিছু সমস্যা ছিল। শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যাই মূলত ভোগাচ্ছিল তাঁকে। তাই পরিজনরা স্থির করেন আরও কয়েকদিন হাসপাতালেই ভরতি রাখা হবে শিবরামবাবুকে। সেই মতো ওই হাসপাতালেই ছিলেন তিনি।

[আরও পড়ুন: পুরুলিয়ায় প্রাক্তন তৃণমূল কাউন্সিলরের উপর হামলা, গ্রেপ্তার BJP বিধায়কের ভাই-সহ ২]

বুধবার সকালে হাসপাতালের করোনা ওয়ার্ডে ঢোকার দরজায় ওই ব্যক্তির ঝুলন্ত দেহ দেখতে পাওয়া যায়। হাসপাতাল কর্মীরাই প্রথম তা দেখতে পান। ঊর্ধ্বতন কর্মীকে জানান তাঁর। তড়িঘড়ি খবর দেওয়া হয় পুলিশে। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে খবর, পরিজনেরা বাড়ি না নিয়ে যাওয়ায় মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন ওই করোনা জয়ী। তার জেরে তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন বলেই মনে করা হচ্ছে। মানসিক অবসাদ নাকি অন্য কোনও কারণে এই ঘটনা ঘটল তা যদিও খতিয়ে দেখছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ‘যশে সবচেয়ে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত পূর্ব মেদিনীপুর’, পরিদর্শনের পর মত কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement