BREAKING NEWS

৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন অর্জুন সিংয়ের ভাই! জল্পনা তুঙ্গে

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: March 15, 2019 3:26 pm|    Updated: March 15, 2019 3:26 pm

CPM Councillor Sanjay Singh may join TMC

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেউ সাংসদ, তো কেউ আবার বিধায়ক। ভোটের মরশুমে এ রাজ্যে শাসকদলের ভাঙন অব্যাহত। বৃহস্পতিবার নয়াদিল্লিতে দলের সদর দপ্তরে গিয়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন ভাটপাড়ার তৃণমূল বিধায়ক অর্জুন সিং। তারই পালটা হিসেবে এবার তাঁর ভাইকে তৃণমূল দলে টানার চেষ্টা করছে বলে খবর। শোনা যাচ্ছে, লোকসভা ভোটের মুখে দলবদল করতে পারেন সিপিএম কাউন্সিলর সঞ্জয় সিং। তৃণমূলে যোগ দিতে পারেন বিজেপির বেশ কয়েকজন নেতাও।

[ বাগনানের বিধায়ককে খুনের ছক! অভিযোগের তির বিজেপির দিকে]

দু’জনেই কাউন্সিলর। কিন্তু রাজনৈতিক প্রভাব-প্রতিপত্তিই বলুন কিংবা দাপট, ভাইকে কয়েক যোজন পিছনে ফেলে দিয়েছেন দাদা। তৃণমূল পরিচালিত ভাটপাড়া পুরসভার চেয়ারম্যান অর্জুন সিং। তিনি আবার ভাটাপাড়ার বিধায়কও বটে। ভাই সঞ্জয় সিং ভাটপাড়া পুরসভার সিপিএম কাউন্সিলর। তৃণমূল অন্দরের খবর, এবার লোকসভা ভোটে বারাকপুর কেন্দ্রে প্রার্থী হতে চেয়েছিলেন অর্জুন। দলের শীর্ষ নেতৃত্বকে নিজের ইচ্ছা জানিয়েছিলেন তিনি। তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বেশ কড়াভাবেই অর্জুন সিং-কে জানিয়ে দেন, দল যা ঠিক করে দেবে, সেটাই চুড়ান্ত। শেষপর্যন্ত বারাকপুর লোকসভা কেন্দ্রে ফের দীনেশ ত্রিবেদীকেই প্রার্থী করে তৃণমূল। দলের সিদ্ধান্তে ঘনিষ্ঠমহলে ক্ষোভ উগরে দেন তৃণমূল বিধায়ক অর্জুন সিং। বারাকপুরে দলের সংগঠনে তাঁর ভূমিকা যে অনস্বীকার্য, তা অনুগামীদের কাছে তুলে ধরেন তিনি। শোনা যাচ্ছে, আগেই থেকে অর্জুন সিংয়ের কাছে বিজেপির প্রস্তাব ছিল। লোকসভা ভোটে টিকিট না পেয়ে বৃহস্পতিবার আনুষ্ঠানিকভাবে গেরুয়া শিবিরে যোগ দিয়েছেন তিনি।

এদিকে লোকসভা ভোটের মুখে বুঝিয়ে-সুঝিয়ে ডাকাবুকো বিধায়ক ও সংগঠক অর্জুন সিং-কে দলে ধরে রাখতে কম চেষ্টা করেনি তৃণমূল নেতৃত্বও। এখন অর্জুন সিংয়ের দলবদলকে অবশ্য তেমন আমল দিতে চাইছেন না শাসকদলের স্থানীয় নেতৃত্ব। তবে তলে তলে বারাকপুরে দলের সংগঠন মজবুত করারও চেষ্টা শুরু হয়ে গিয়েছে বলে খবর। শোনা যাচ্ছে, অর্জুন সিংয়ের ভাই সিপিএম কাউন্সিলর সঞ্জয় সিং তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিতে পারেন। শাসকদলে নাম লেখাতে পারেন বিজেপির বেশ কয়েকজন নেতারা। বস্তত, অর্জুনের সঙ্গে ভাই সঞ্জয়ের ব্যক্তিগত সম্পর্কও ভাল নয়। আর সেই সুযোগটাকেই কাজ লাগাতে চাইছে তৃণমূল।

[ প্রথম দফায় রাজ্যের দুই আসনে থাকবে ১২৫ কোম্পানি কেন্দ্রীয় বাহিনী]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে