৭  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বল ভেবে বোমা নিয়ে খেলতে গিয়ে বিস্ফোরণ, গুরুতর আহত ১ শিশু

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 2, 2018 10:16 am|    Updated: January 2, 2018 10:16 am

Crude bomb explosion in Murshidabad, boy injured

শাহজাদ হোসেন, মুর্শিদাবাদ: রাস্তা থেকে যেটা সে কুড়িয়ে এনেছে, সেটা যে আসলে বোমা, তা বোঝার মতো বয়স এখনও হয়নি। ফলে যা হওয়ার, তাই হল। বাড়ির দেওয়ালে ছুড়ে মারতেই ঘটল বিস্ফোরণ। সকেট বোমা বিস্ফোরণে গুরুতর শিশুটির শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। মুর্শিদাবাদের জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে ভরতি সে। ঘটনায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে সামশেরগঞ্জে। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

[হোটেল কর্মীদের মারধর-ভাঙচুর, তারাপীঠে বিতর্কে বিহারের মন্ত্রী]

মুর্শিদাবাদের সামশেরগঞ্জের প্রতাপগঞ্জে বাড়ি জাইল শেখের। বয়স মাত্র ছয় বছর। পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, মঙ্গলবার সকালে এলাকারই একটি অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্রে পড়তে যাচ্ছিল জাইল। রাস্তায় একটি সকেট বোমা পড়েছিল। বুঝতে পারেনি ছোট্ট শিশুটি। সকেট বোমাটি বল ভেবে বাড়িতে নিয়ে যায় জাইল। আর তাতেই ঘটল বিপর্যয়! প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বাড়িতে ফিরে বল ভেবে বোমাটিকে দেওয়া ছুড়ে মারে জাইল। এরপরই প্রবল বিস্ফোরণে কেঁপে ওঠে এলাকা। বিস্ফোরণে গুরুতর আহত হয় বছর ছয়েকের শিশুটি। তাকে প্রথমে স্থানীয় অনুপনগর ব্লক প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে নিয়ে যান স্থানীয় বাসিন্দারা। পরে জাইলকে স্থানান্তরিত করা হয় জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে। হাসপাতালের তরফে জানানো হয়েছে, তাঁর শারীরিক অবস্থা আশঙ্কাজনক। সাত সকালে এই ঘটনায় আতঙ্কিত স্থানীয় বাসিন্দারা। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছয় সামশেরগঞ্জ থানার পুলিশ। কিন্তু, দিনে দুপুরে রাস্তায় সকেট বোমা থেকে এল? তা এখনও স্পষ্ট নয়। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

[বিলের প্রতিবাদে দেশ জুড়ে চিকিৎসকদের কর্মবিরতি, রোগীদের ভোগান্তি]

জানা গিয়েছে, জাইলের মতো এলাকার অনেক শিশুই ওই অঙ্গনওয়ারি কেন্দ্রে পড়াশোনা করে। যে রাস্তায় সকেট বোমাটি পড়েছিল, সেই রাস্তা দিয়েই নিত্য যাতায়াত করে পড়ুয়ারা। স্থানীয় বাসিন্দাদের প্রশ্ন, এই ঘটনার পর কোনও ভরসায় সন্তানদের পড়াশোনা করতে পাঠাবেন?

[নতুন বছরকে স্বাগত জানাতে ২০১৮ বার ঠান্ডা জলে ডুব যুবকের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে