২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৫  শনিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৫  শনিবার ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দীপাবলির আগেই শহরের প্রথম স্কাইওয়াকের উদ্বোধন করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ রানি রাসমণি স্কাইওয়াকের মাধ্যমে এবার থেকে স্টেশন থেকে সরাসরি পৌঁছে যাওয়া যাবে দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে৷ এটিই ভারতের প্রথম স্কাইওয়াক বলেই দাবি পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিমের৷

[আলো আর সুরের মূর্ছনায় অন্য চেহারা নেবে দক্ষিণেশ্বর]

প্রতিদিন রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তের বহু মানুষ দক্ষিণেশ্বর মন্দিরে ভিড় জমান৷ বিদেশিরাও আসেন শ্রীরামকৃষ্ণের স্মৃতিবিজড়িত এই মন্দিরে৷ এই মন্দিরের সামনেই আগে রাস্তার দুপাশে একাধিক দোকান ছিল৷ বিকিকিনির জেরে মন্দির লাগোয়া রাস্তায় লেগেই থাকত যানজট৷ সেই সমস্যা থেকে রেহাই পেতে বছর তিনেক আগেই দক্ষিণেশ্বরের রানি রাসমণি স্কাইওয়াক তৈরির সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তাঁর নির্দেশ মতো পুর ও নগরোন্নয়ন দপ্তর স্কাইওয়াক তৈরির কাজ শুরু করেন৷ মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম নিজে উদ্যোগী হন স্কাইওয়াকের কাজে।৩ বছর ধরে কাজ চলার পর চলতি বছরেই শেষ হয় স্কাইওয়াক তৈরির কাজ৷ দীপাবলির আগে স্কাইওয়াকটির উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ স্কাইওয়াক দিয়ে হেঁটেই এদিন ভবতারিণীর গর্ভগৃহে ঢোকেন তিনি৷ পুজোও দেন দেবীকে৷ মঙ্গলবার থেকে মন্দিরে যাওয়ার জন্য স্কাইওয়াকটি ব্যবহার করতে পারবেন পুণ্যার্থীরা৷ ৬০ কোটি টাকা ব্যয়ে ১০.১৫ মিটার চওড়া এবং ৩৪০মিটার লম্বা এই স্কাইওয়াক তৈরি হয়েছে৷ স্কাইওয়াকে রয়েছে ১৪টি এসক্যালেটর, ৪টি লিফট৷ প্রতিটি লিফটে ২০জন করে ওঠানামা করতে পারবেন৷ এছাড়াও রয়েছে জরুরি পরিস্থিতি মোকাবিলায় ৭টি সিঁড়ি, ওয়াটার স্প্রিংকলার্স সিঁড়ি৷ ওই স্কাইওয়াকে থাকবে ১৩৭টি দোকান৷ স্টেশন থেকে মন্দিরে ঢোকার আগে পুজোর সামগ্রী ওই দোকান থেকেই কিনতে পারবেন পুণ্যার্থীরা৷ উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন,‘‘আগামী সাতদিনের মধ্যেই দোকানগুলি পাবেন হকাররা৷’’  

[ফেসবুকে জেলাশাসকের ভুয়ো ছবি, চাঞ্চল্য জলপাইগুড়িতে]

স্কাইওয়াকের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে বিজেপির সমালোচনা করেন তিনি৷ মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘‘বিজেপির গেরুয়া, নকল গেরুয়া৷ গেরুয়া পরলেই, সাধু হওয়া যায় না৷’’ ধর্মীয় মেরুকরণের রাজনীতির অভিযোগ তুলেও বিরোধীদের তোপ দাগেন তিনি৷  মুখ্যমন্ত্রী আরও বলেন, ‘‘খুব শীঘ্রই দক্ষিণেশ্বরে লাইট অ্যান্ড সাউন্ড সিস্টেমের ব্যবস্থা করা হবে৷’’ নাটমন্দিরকে মূল পর্দা হিসেবে ব্যবহার করে ফুটিয়ে তোলা হবে ১৮৫৫ সালে মন্দির তৈরির ইতিহাস, শ্রীরামকৃষ্ণের কালী দর্শন, সাধনা ও তাঁর সর্বধর্ম সমন্বয়ের ঘটনাবলী। দক্ষিণেশ্বরের মতোই কালীঘাট এবং তারাপীঠকেও সাজিয়ে তোলা হবে বলে আশ্বাস দেন মুখ্যমন্ত্রী৷

ছবি: অরিজিৎ সাহা 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং