BREAKING NEWS

১৬ মাঘ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

বরকতি, সিদ্দিকুল্লাহর পথে হেঁটে মন্ত্রী অরূপের গাড়িতেও বহাল লালবাতি

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: May 29, 2017 7:59 am|    Updated: May 29, 2017 7:59 am

Despite ban West Bengal minister Arup Biswas flaunts red beacon

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একা বরকতি নন, কেন্দ্রের নিয়ম অগ্রাহ্য করে গাড়িতে লালবাতি লাগিয়ে ঘোরার অভিযোগ উঠল খোদ এ রাজ্যেরই আরও এক মন্ত্রীর বিরুদ্ধে। মিরিকে তৃণমূলের পুরবোর্ড গঠনের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাওয়ার সময় রাজ্যের পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসের বিরুদ্ধে উঠেছে এই অভিযোগ। সংবাদ সংস্থা এএনআইয়ের প্রকাশিত একাধিক ছবিতে দেখা যাচ্ছে, মন্ত্রীর গাড়ির মাথায় জ্বলজ্বল করছে লালবাতি। অথচ এবছরেরই পয়লা মে থেকে ভিভিআইপি সংস্কৃতিতে ইতি টানতে দেশ জুড়ে সমস্ত গাড়িতে লালবাতির ব্যবহার নিষিদ্ধ করেছে কেন্দ্র। এমনকী, প্রধানমন্ত্রী, রাষ্ট্রপতিরাও এই নিয়মের আওতায় পড়বেন। কয়েকটি জরুরি পরিষেবা যেমন পুলিশ, অ্যাম্বুল্যান্স, দমকলের গাড়িতে লালবাতি লাগানোর অনুমতি দেওয়া হয়েছে।

এ বিষয়ে তাঁর প্রতিক্রিয়া চাইতে হলে মন্ত্রী জোর গলায় বলেন, “আমাদের সরকার এখনও লালবাতি নিষিদ্ধ বলে ঘোষণা করেনি। আর আমরা অন্য কারও নির্দেশ মানতে বাধ্য নই।” অথচ দেশের সমস্ত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী, মুখ্যমন্ত্রী, রাজ্যের ক্যাবিনেট মন্ত্রী, আমলা, হাই কোর্ট ও সুপ্রিম কোর্টের বিচারপতি, এমনকী প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রপতিও তাঁদের গাড়িতে লালবাতি লাগাতে পারবেন না বলে সাংবাদিক বৈঠক করে জানিয়ে দেওয়া হয় কেন্দ্রের তরফে। কেন্দ্রীয় এই আইনের বিরুদ্ধে হেঁটে কলকাতার টিপু সুলতান মসজিদের প্রাক্তন ইমাম মৌলানা নূর-উর রহমান বরকতি ইতিমধ্যেই বিতর্কে জড়িয়েছেন। তিনিও কার্যত অরূপবাবুর মতোই যুক্তি দেন, “আমার লালবাতি নিয়ে সবার এত মাথাব্যথা কেন? আমার গাড়ি থেকে লালবাতি সরানোর হিম্মত নেই কারও৷ এতে বেআইনি কিছুই নেই৷ যদি কিছু বেআইনি হয় তাহলে আরএসএস বেআইনি, মোদি বেআইনি৷” ব্রিটিশ সরকারের আমল থেকে তাঁর গাড়িতে লালবাতি রয়েছে বলে দাবি করেন বরকতি। যদিও পরে রাজ্য সরকারের চাপে পড়ে পিছু হটেন বরকতি, খুলে ফেলেন তাঁর গাড়ির লালবাতি।

সেই বরকতিকে হটাতে রাজ্য আসরে নামায় সংখ্যালঘুদের আরেক প্রতিনিধি ও রাজ্যের মন্ত্রী সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরিকে৷ তিনি প্রেস ক্লাবে এক সাংবাদিক বৈঠক ডেকে বরকতির প্রবল সমালোচনা করেন। বলেন, “বরকতি যেন ভুলে না যান যে উনি ইমাম, আর আমরা সরকারে রয়েছি। চাইলে এক মিনিটে ওঁর গাড়ি থেকে লালবাতি খুলে ফেলতে পারি। ” অথচ সেদিন তিনি যে গাড়িতে করে প্রেস ক্লাবে এসেছিলেন, সেই গাড়ির মাথাতেও লালবাতি লাগানো ছিল বলে ছবি প্রকাশ করে সংবাদ সংস্থা এএনআই। এবার রাজ্যের আর এক মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকেও গাড়িতে লালবাতি লাগিয়ে ঘুরতে দেখা গেল। আর সেই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে মেজাজ হারান অরূপবাবু।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে