BREAKING NEWS

১৭  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

চালকের কেবিনে ঢোকার চেষ্টা ‘পাগল’-এর, অল্পের জন্য রক্ষা পেল ট্রেন

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: June 24, 2018 3:21 pm|    Updated: June 24, 2018 3:28 pm

Down Ranaghat Local hits platform after driver diverted his mind

বিপ্লব দত্ত, কৃষ্ণনগর: রানাঘাট স্টেশনে ঢুকছিল ডাউন বনগাঁ লোকাল৷ কিন্তু হঠাৎ বিপত্তি৷ বাফারে গিয়ে ধাক্কা মারল ট্রেন৷ পড়ে গেলেন কয়েকজন যাত্রী৷ অনেকেই বলছেন চালকের অন্যমনস্কতা জন্যই এমন ঘটনা৷ বড় দুর্ঘটনার হাত থেকে রক্ষা পাওয়া গেল৷ কিন্তু কেন এমন ঘটনা ঘটনা? কেন অমনোযগী হয়ে পড়লেন চালক? কেঁচো খুঁড়তে বেরিয়ে পড়ল কেউটে৷

[‘ক্ষীরের পুতুল’ মেসিকে ঘিরে উচ্ছ্বাস, জন্মদিনের অভিনব সেলিব্রেশনে ফুটবলপ্রেমীরা]

ঘটনার সূত্রপাত সকাল সকাল সাতটা নাগাদ৷ ৭টা ৪ মিনিটে রানাঘাট স্টেশনে ঢোকার কথা থাকলেও ৭টা ৬ মিনিটে স্টেশনের চার নম্বর প্ল্যাটফর্মে ঢোকে ডাউন বনগাঁ লোকাল৷ ট্রেন থামবে থামবে করছে এমন সময় চালকের কেবিনের দরজা থেকে আসতে থাকে প্রবল আওয়াজ৷ কীসের আওয়াজ? চোখ ফিরিয়ে দেখতে যান চালক প্রসাদকান্তি ঘোষ৷ আর তখনই ঘটে যায় বিপত্তি৷ স্টেশনের শেষে বাফারে গিয়ে ধাক্কা মারে ট্রেন৷ স্টেশনে পড়ে যান কয়েকজন যাত্রী৷ গুরুতর আহত না হলেও জখম হন হালিম শেখ ও অনন্ত পাল৷ ট্রেন থামলেই দেখা যায়, চালকের কেবিনের দরজায় ঝুলছে সে৷ হাতে চটি৷ কী ঘটনা? জানা যায়, ডাউন বনগাঁ লোকাল স্টেশনে ঢোকার সময়ই চালকের কেবিনে ঢোকার চেষ্টা করেন ওই ব্যক্তি৷ দরজা বন্ধ থাকায় কেবিনে ঢুকতে পারেননি তিনি৷ ফলে পায়ের চটি দিয়ে মারতে থাকে চালকের দরজায়৷ এমনকি আঘাত করার চেষ্টা করে চালককেও৷ ফলে লক্ষ্যভ্রষ্ট হন চালক৷

[ফিট হতে হবে পুলিশকর্মীদের, প্রতি থানায় মাল্টিজিম চালুর সিদ্ধান্ত মুর্শিদাবাদে]

ট্রেন থামতেই, ওই ব্যক্তিকে মারধর করে অন্যান্য যাত্রীরা৷ কিন্তু তাকে উদ্ধারের পর আটক করে জিআরপি৷ জানা গিয়েছে, মানসিক ভারসাম্যহীন ওই যুবক মুর্শিদাবাদের বাসিন্দা৷ নাম, মহম্মদ হারুন মণ্ডল, বয়স ২৭৷ সকাল সাড়ে ছটার সময় রানাঘাট স্টেশনে যে লালগোলা প্যাসেঞ্জার ট্রেন ঢুকেছিল তাতে করেই দুই আত্মীয়ের সঙ্গে এসেছিল সে৷ কিন্তু ডাউন বনগাঁ লোকালকে স্টেশনে ঢুকতে দেখেই উত্তেজিত হয়ে পড়ে এবং তিন নম্বর প্ল্যাটফর্ম থেকে দৌড়ে চলে আসে চার নম্বর প্ল্যাটফর্মে৷ ঢোকার চেষ্টা করে ট্রেনের চালকের কামরায়৷ তবে কেন হঠাৎ উত্তেজিত হয়ে পড়ল হারুন? তার সঠিক উত্তর দিতে পারেনি ওই দুই আত্মীয়৷ বিষয়টিতে তেমন গুরুত্ব দিতে নারাজ পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক রবি মহাপাত্র৷ জানান, বাফার ভেঙে গিয়েছে এবং ট্রেনের সামনে সামান্য একটু ক্ষতি হয়েছে৷ রেল কর্তৃপক্ষ ছোট ঘটনা বললেও, বিষয়টা অনেক বড় আকার ধারন করতে পারত বলে আশঙ্কা প্রকাশ করছেন স্টেশনে উপস্থিত অনেক যাত্রী৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে