BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ অগ্রাহ্য করে দুর্গাপুজো নিয়ে ভুয়ো পোস্ট, ধৃত রাজ্যের বিজেপি নেতা

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 11, 2020 9:34 pm|    Updated: September 11, 2020 10:52 pm

An Images

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: দুর্গাপুজো নিয়ে বিভ্রান্তিমূলক প্রচারে সরাসরি নাম জড়াল বিজেপির (BJP)। এবার দুর্গাপুজো করতে দেবে না রাজ্য সরকার, সামাজিক মাধ্যমে এমনই ভুয়ো পোস্ট করে গ্রেপ্তার বিজেপির এক স্থানীয় নেতা। পূর্ব বর্ধমানের মেমারি থানার পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে সুনীল মণ্ডল নামে ওই নেতাকে। এমনকী মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ছবি দিয়ে কুরুচিকর পোস্ট করারও অভিযোগ উঠেছে সুনীলের বিরুদ্ধে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে কাজনৈতিক তরজাও শুরু হয়েছে। তৃণমূলের দাবি, বাংলার সংস্কৃতি জানে না বিজেপির লোকেরা। গুজরাটের সংস্কৃতিতে তারা বিশ্বাস করে। তাই এভাবে আইটি সেল অপপ্রচার করছে। যদিও বিজেপির দাবি, শুধুমাত্র বিজেপি করার কারণেই গ্রেপ্তার করা হয়েছে ওই নেতাকে।  

সম্প্রতি সামাজিক মাধ্যমে বিভিন্ন জায়গা থেকে বিভ্রান্তিমূলক পোস্ট করা হচ্ছিল। রাজ্য পুলিশের তরফে এই বিষয়ে সতর্কও করা হয়। কয়েকদিন আগে কলকাতায় দু’জন গ্রেপ্তারও হয়। তার পরেও দুর্গাপুজোকে (Durga Puja) কেন্দ্র করে ভুয়ো পোস্ট ছড়ানো হচ্ছিল সামাজিক মাধ্যমে। সম্প্রতি মেমারির কৃষ্ণবাজার এলাকার সুনীল মণ্ডল বিভ্রান্তিমূলক পোস্ট করে। বিষয়টি পুলিশের নজরে আসার পর তৃণমূলের তরফে অভিযোগ জানানো হয়। তদন্তে নেমে মামলা রুজু করে পুলিশ। বৃহস্পতিবার রাতে গ্রেপ্তার করা হয় সুনীলকে।

[আরও পড়ুন: বৃদ্ধ দম্পতিকে খুনের পর কাটা মুন্ডু নিয়ে চম্পট দিল আততায়ীরা! কারণ নিয়ে ধন্দে পুলিশ]

যদিও সুনীলের দাবি, তিনি ফরওয়ার্ড করা মেসেজ পেয়েছিলেন। শেয়ার করেছিলেন। পুলিশ জানানোর পরই তা মুছেও দেন। কিন্তু তাসত্ত্বেও তাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। শুক্রবার আদালতে পেশ করার আগে সুনীল বলেন, “আমি বিজেপি করি বলেই আমাকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। রাজ্যের সর্বত্রই পুলিশ বিজেপি কর্মী নেতাদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসাচ্ছে।” তৃণমূলের রাজ্যের অন্যতম মুখপাত্র দেবু টুডু বলেন, “বিজেপির সংস্কৃতি বাঙালির সংস্কৃতি নয়। ওরা জানেই না বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুর্গাপুজোর কার্নিভাল করে থাকেন। ওরা শুধু ধর্মীয় বিভাজন করতে জানে। তাই এই ধরনের পোস্ট করে মিথ্যা ছড়িয়ে মানুষের মধ্যে বিভেদ তৈরি করতে চাইছে। নোংরা রাজনীতি করছে।”

[আরও পড়ুন: রাজ্যে পরপর দু’দিনই বাড়ল করোনা সংক্রমণ, মোট মৃতের সংখ্যা প্রায় ৪ হাজার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement