১ কার্তিক  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৯ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

নববর্ষের শুভেচ্ছা ব্যানারে CAA বিরোধিতা, দুর্গাপুর নগর নিগমের কাজে বিতর্ক

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: December 27, 2019 5:21 pm|    Updated: December 27, 2019 5:21 pm

Durgapur municipal corporation violates HC ruling on CAA ad

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়,দুর্গাপুর:  ব্যানারে জাতীয় নাগরিকপঞ্জি ও নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের বিরোধিতা ঘিরে দানা বাঁধল বিতর্ক। সরকারি সংস্থা আইনের বিরোধিতা করায় বিজেপির পক্ষ থেকে অভিযোগ দায়ের হয়েছে মহকুমা শাসকের কাছে। ব্যানারগুলি খুলে নেওয়ার দাবি তুলেছে বিজেপি। এসব ব্যানার তৈরির দায় অস্বীকার করেছে দুর্গাপুর নগর নিগম।

ঘটনা ঠিক কী? দুর্গাপুর নগর নিগমের ৪ নম্বর বোরো কমিটির চেয়ারম্যান চন্দ্রশেখর বন্দোপাধ্যায়ের পক্ষ থেকে নাগরিকদের নতুন ইংরাজি বছরের শুভেচ্ছা জানিয়ে একটি ব্যানার লাগানো হয় দুটি জায়গায়। বাঁকুড়া মোড়ের কাছে রায়ডাঙা ও এসবি মোড়ের কাছে এই ব্যানার নিয়েই তীব্র আপত্তি বিজেপির। ব্যানারে ‘সৌজন্যে’ ৪ নম্বর বোরো কমিটি ও দুর্গাপুর নগর নিগম লেখা থাকায় এই ব্যানারকে সরকারি প্রচার হিসেবেই ধরছে বিজেপি। সেখানে ‘সে নো টু সিএএ অ্যান্ড এনআরসি’ লেখা রয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘মরে গেলেও রাজ্যে ডিটেনশন ক্যাম্প নয়’, নৈহাটিতে চরম হুঁশিয়ারি মমতার]

আর এই লেখা নিয়েই মহকুমা শাসকের কাছে শুক্রবার অভিযোগ জানিয়েছে বিজেপি। তাদের দাবি, সিএএ লোকসভা ও রাজ্যসভায় পাশ হয়ে রাষ্ট্রপতির অনুমোদন সাপেক্ষে আইনে পরিণত হয়েছে। আর তারই বিরোধিতায় রাজ্য সরকারি সংস্থা! এই বিরোধিতা মোটেই মেনে নিতে পারছে না বিজেপি। ব্যানারগুলি খুলে ফেলা উচিত বলেও দাবি গেরুয়া শিবিরের।

বিজেপির গুণীজন সেলের রাজ্য সদস্য অমিতাভ বন্দোপাধ্যায়ের বক্তব্য, “কলকাতা হাই কোর্ট এসব ইস্যুতে সরকারি বিজ্ঞাপনে নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। তারপরও দুর্গাপুর নগর নিগমের মতো সরকারি প্রতিষ্ঠান CAA মানছি না বলে প্রচার করছে। এটা সম্পূর্ন বেআইনি। এই সরকার দেশের সংবিধান মানে না। সরকারি স্তরে সংবিধানের বিরোধিতা করছে। আমরা হাই কোর্টের রায় -সহ মহকুমা শাসকের কাছে আবেদন করেছি, এই প্রচার সরিয়ে দিতে।”

[আরও পড়ুন: স্কুটি চালানো শিখতে গিয়ে মর্মান্তিক দুর্ঘটনা, মৃত্যু নবম শ্রেণির ছাত্রীর]

এ বিষয়ে ৪ নম্বর বোরো কমিটির চেয়ারম্যান চন্দ্রশেখর বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে মোবাইলে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলেও করা যায়নি। তবে দুর্গাপুর নগর নিগমের মেয়র দিলীপ অগস্তি জানিয়েছেন, “এই প্রচারের দায় নিগমের নয় ওই চেয়ারম্যানের। আমি কিছুই জানি না। দুর্গাপুর নগর নিগম থেকে এই ধরনের কোনও ব্যানার বা প্রচার করা হয়নি।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement