BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

সুপ্রিম রায় নিরপেক্ষ নয়, মার্কসকে উদ্ধৃত করে বিতর্কিত পোস্ট সিপিএম নেতার

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: August 26, 2018 2:39 pm|    Updated: June 4, 2019 12:32 pm

An Images

ছবি: ফেসবুক

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: পঞ্চায়েত মামলায় আদালতে মুখ পুড়েছে বিরোধীদের৷ ১৬ হাজারেও বেশি আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় শাসকদলের জয়কে মান্যতা দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট৷ শীর্ষ আদালতের রায় নিয়ে ফেসবুকে পোস্ট করে বিতর্কে জড়িয়েছেন পূর্ব বর্ধমানের সিপিএম নেতা সুকান্ত কোনার৷ কার্ল মার্কসকে উদ্ধৃত করে সুপ্রিম কোর্টের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন তিনি৷ যা আদালত আবমাননার শামিল বলে মত আইনজীবীদের৷ ওই সিপিএম নেতার সমালোচনা করেছে শাসক দলের পূর্ব বর্ধমান জেলা নেতৃত্ব৷ সিপিএম নেতৃত্বের সাফাই, সুকান্ত কোনার ফেসবুকে যা লিখেছেন, তা তাঁর ব্যক্তিগত মত৷ নিজের বক্তব্যে অনড় বাম দলের নেতা সুকান্ত কোনারও৷

[ ‘চড়-থাপ্পড় মেরে এ যাত্রায় তৃণমূলকে ছেড়ে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট’]

এবারের পঞ্চায়েত ভোটে ১৬ হাজারেরও বেশি আসনে ভোটই হয়নি৷ বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতেছেন শাসকদলের প্রার্থীরা৷ বিরোধীদের অভিযোগ ছিল, তাদের মনোনয়নই পেশ করতে দেওয়া হয়৷ তাই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জেতা আসনে ফের ভোট নিতে হবে৷ মামলা হয়েছিল সুপ্রিম কোর্টে৷ শুক্রবার পঞ্চায়েত মামলা রায় ঘোষণা করেছে শীর্ষ আদালত৷ বিরোধীদের আবেদন খারিজ করে বিনা ভোটে শাসকদলের জয়কেই আদালত মান্যতা দিয়েছে ৷ পঞ্চায়েত মামলায় সুপ্রিম কোর্টের রায়েই স্বাভাবিকভাবেই খুশি নয় বিরোধীরা৷ সমালোচনা যে হচ্ছে না, এমনও নয়৷ কিন্তু, সরাসরি সুপ্রিম কোর্টের নিরপেক্ষতা কিংবা রায়ের যথার্থতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেননি কংগ্রেস, সিপিএম বা বিজেপি নেতারা৷ সত্যি কথা বলতে, পক্ষেই হোক কিংবা বিপক্ষে, আইনত সুপ্রিম কোর্টের রায় নিয়ে প্রশ্নও তোলা যায় না৷ কিন্তু, ঠিক সেই কাজ করে বসলেন পূর্ব বর্ধমানে সিপিএম নেতা সুকান্ত কোনার৷ তাও আবার ফেসবুকে! শুক্রবার রাতে সোশ্যাল মিডিয়ায় সিপিএমের ওই নেতা লেখেন, ‘মহান মার্কস বলেছেন, শ্রেণিবিভক্ত সমাজে বিচারব্যবস্থা কখনই শ্রেণি নিরপেক্ষ হতে পারে না৷ পশ্চিমবাংলায় পঞ্চায়েত নির্বাচনে সুপ্রিম কোর্টের রায়ে মার্কসের কথার সত্যতা প্রমাণিত হল৷ এই রায়ে সুপ্রিম কোর্টের মুখ পুড়ল৷’ 

[ সুপ্রিম রায়ে অবৈধ ই-মনোনয়ন, অনিশ্চিত ভাঙড়ের পাঁচ নির্দল সদস্যের ভবিষ্যৎ]

সিপিএম নেতার ফেসবুকে পোস্টে জমে উঠেছে বিতর্ক৷ তাঁর মন্তব্যকে আদালত আবমাননার শামিল বলে মনে করছেন আইনজীবীরা৷ সিপিএম নেতা সুকান্ত কোনারের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করার দাবি তুলেছে তৃণমূল৷ সিপিএম জেলা নেতৃত্বের সাফাই, ফেসবুকের মন্তব্য ব্যক্তিগত৷ দলের নয়৷ এদিকে এতকিছু পরেও মন্তব্যটি ফেসবুক থেকে মুছে ফেলতে নারাজ সিপিএম নেতা সুকান্ত কোনার৷ তাঁর সাফ কথা, ‘যা লিখেছি, ভেবেচিন্তে লিখেছি৷ কেউ মামলা করতে চাইলে করতে পারে৷ আমি প্রস্তুত৷’

 

 

[নিম্নচাপের শক্তি বৃদ্ধি, তিনদিন দক্ষিণবঙ্গে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement