BREAKING NEWS

১০ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ২৪ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

প্রথম দফার ভোটের আগে অপসারিত কোচবিহারের পুলিশ সুপার

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 9, 2019 5:20 pm|    Updated: June 3, 2019 7:37 pm

EC decided to transfer Poilce Superintendent of Cooch Behar

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটের মুখে ফের রাজ্যের পুলিশকর্তার বদলি। মঙ্গলবার দায়িত্ব থেকে অপসারিত করা হল কোচবিহারের পুলিশ সুপার অভিষেক গুপ্তকে। তাঁর জায়গায় আনা হচ্ছে অমিত কুমার সিংকে। অমিত কুমার সিং আইবির সিনিয়র সুপারিন্টেন্ডেন্ট পদে রয়েছেন। নির্বাচন কমিশন নোটিস দিয়ে জানিয়েছে, আজ, মঙ্গলবার বিকেল পাঁচটা থেকেই কোচবিহার জেলার পুলিশ সুপারের দায়িত্বগ্রহণ করবেন অমিত কুমার সিং। এদিক, প্রথম দফার ভোটের ঠিক দুদিন আগে কোচবিহারের পুলিশ সুপারের অপসারণে রাজনৈতিক ষড়যন্ত্রের গন্ধ পাচ্ছে তৃণমূল। বস্তুত, প্রথম দফায় ভোট রয়েছে কোচবিহারে। সেখানে তৃণমূল প্রার্থী পরেশচন্দ্র অধিকারীর বিপক্ষে রয়েছেন বিজেপি প্রার্থী নিশীথ প্রামাণিক। নিশীথ কিছুদিন আগেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন। মুকুল রায় ঘনিষ্ঠ এই যুবনেতাকে প্রার্থী করায় ব্যাপক অশান্তি দেখা দেয় কোচবিহারের বিজেপি নেতৃত্বের মধ্যে। এবার কোচবিহারের এসপি অপসারণের ঘটনায় তাঁর এবং মুকুল রায়েরই কলকাঠি দেখছে রাজনৈতিক মহল।

[আরও পড়ুন: শান্তিপূর্ণ ভোট করার ব্যাপারে বদ্ধপরিকর কলকাতা পুলিশ: কমিশনার রাজেশ কুমার]

রাজ্যের মুখ্যসচিব মলয় দে-কে পাঠানো নির্বাচন কমিশনের নোটিসে বলা হয়েছে, অবিলম্বে কোচবিহার জেলার পুলিশ সুপার পদ থেকে অভিষেক গুপ্তকে সরিয়ে তাঁর জায়গায় অমিত কুমার সিংকে আনা হল। এবং অভিষেক গুপ্তকে নির্বাচন সংক্রান্ত কোনও ডিউটিতে রাখা যাবে না বলেও স্পষ্ট করে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। কিছুদিন আগেই কলকাতা ও বিধাননগরের কমিশনার, বীরভূমের এবং ডায়মন্ড হারবারের পুলিশ সুপারকে অপসারণ করা হয়। তাই নিয়ে ক্ষোভপ্রকাশ করে কমিশনকে চিঠি দেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর চিঠির জবাবে পালটা চিঠি দিয়ে কমিশন জানায়, নির্বাচনের প্রস্তুতি এবং কেন্দ্রীয় পুলিশ পর্যবেক্ষকের রিপোর্টের ভিত্তিতেই ওই চার পুলিশকর্তাকে দায়িত্ব থেকে সরানো হয়েছে। এর মধ্যে কোনও রাজনৈতিক অভিসন্ধির অভিযোগ উড়িয়ে দেয় কমিশন। এবার কোচবিহারের এসপিকে সরানোর ক্ষেত্রেও কেন্দ্রের বিজেপি সরকারের ভূমিকা দেখছে তৃণমূল। কলকাতা পুলিশ কমিশনারের পদে একদা মুকুল রায় ঘনিষ্ঠ আইপিএস রাজেশ কুমারকে বসানো, সেই মুকুল ঘনিষ্ঠ বিজেপি নেতা নিশীথ প্রামাণিকের কেন্দ্র কোচবিহারের পুলিশ সুপারকে সরানো সবই একসূত্রে গাঁথা বলে মনে করছে রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞরা।

[আরও পড়ুন: পুলিশকর্তাদের বদলিতে ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী, কমিশনকে কড়া চিঠি রাজ্যের]

ছবি: দেবাশিস বিশ্বাস

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে