BREAKING NEWS

১৩ মাঘ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

দাবিমতো চাঁদা মেলেনি, বাড়িতে আলকাতরা লাগালেন পুজো উদ্যোক্তারা!

Published by: Kumaresh Halder |    Posted: October 22, 2018 3:38 pm|    Updated: October 22, 2018 3:38 pm

Extortion in the name of durga puja in Hooghly

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: পুজোয় দাবি মতো চাঁদা না দেওয়ায় বাড়ির দেওয়াল ও দরজায় আলকাতরা লেপে দেওয়ার অভিযোগ৷ ঘটনাকে কেন্দ্র করে চাঞ্চল্য ছড়াল বৈদ্যবাটি কে সি চ্যাটার্জি স্ট্রিট এলাকায়৷

[বিসর্জনে ডিজে বাজানোকে কেন্দ্র করে রণক্ষেত্র জয়নগর, আক্রান্ত পুলিশ]

অভিযোগ, স্থানীয় বাসিন্দা প্রদীপ চন্দ্র হাতিশালা ঘাট সার্বজনীনের দাবি মতো ৬০১ টাকা চাঁদা দিতে অস্বীকার করেন৷ চাঁদা না পেয়ে ওই ব্যবসায়ীর বাড়িতে দেওয়ালে ও দরজায় পুজো কমিটির সদস্যরা আলকাতরা লেপে দিয়েছেন বলে অভিযোগ৷ প্রদীপ চন্দ্রর কাছে ওই পুজো কমিটি ৬০১ টাকা দুর্গাপুজো বাবদ চাঁদা দাবি করলে তিনি ২০০ টাকা চাঁদা দিতে রাজি হন৷ কিন্তু, পুজো কমিটির সদস্যরা ২০০টাকা চাঁদা নিতে অস্বীকার করে। অভিযোগ, এরপরই রাতে ফের পুজো কমিটির সদস্যরা চাঁদা চাইতে গেলে প্রদীপবাবু বাড়িতে না থাকায় পরে আসতে অনুরোধ করা হয়৷ চাঁদা না নিয়ে ফিরেও যায় পুজো কমিটির সদস্যরা৷

[অমৃতসর কাণ্ডেও হুঁশ ফেরেনি, পুরভবনের ছাদেই রাবণ দহন]

অভিযোগ, এর পর রাতেই চড়াও হয় বেশ কয়েকজন দুষ্কৃতী৷ রাতে হাতিশালা ঘাটের প্রতিমা বিসর্জনের পর কে বা কারা প্রদীপ বাবুর বাড়ির দরজায় ও দেওয়ালে আলকাতরা লাগিয়ে দিয়ে অশ্লীল শব্দ লিখে দেওয়া হয়। প্রদীপবাবুর অভিযোগ, পুজো কমিটির দাবি মতো তিনি চাঁদা দিতে না পারায় পুজো কমিটির সদস্যরা এই ধরণের অভব্য আচরণ করেছে। বর্তমানে এই ঘটনার পর প্রদীপবাবুর পরিবার আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন। হাতিশালা ঘাট সার্বজনীনের পুজো কমিটির সম্পাদক মিঠুন অধিকারী অভিযোগ অস্বীকার করে জানান, মিটিং করে পাড়ার সকলেই ৬০০ টাকা চাঁদা দিতে সম্মত হয়েছিলেন। কেউ দিতে রাজি না হলেও তাঁকে জোর করা হয়নি। আর রাতে কারা দেওয়ালে আলকাতরা লেপেছে তা তাঁদের জানা নেই।

[বর্ধমানে ঘরছাড়া নেতাকে ফেরাতে পারল না বিজেপি নেতৃত্ব]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে