১৭  শ্রাবণ  ১৪২৯  রবিবার ৭ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি তুলে সরকারি জমির সাইন বোর্ড ভাঙার চেষ্টা কৃষকদের

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: June 4, 2019 3:42 pm|    Updated: June 4, 2019 4:29 pm

Farmers protest 'Jai Shree Ram' against Govt land acquisition in Jalpaiguri

শান্তনু কর ও অরূপ বসাক:  এবার ‘জয় শ্রীরাম’ ধ্বনি দিয়ে সরকারি প্রকল্পের জমিতে একদল কৃষকের বিরুদ্ধে সাইনবোর্ড ভাঙার চেষ্টার অভিযোগ উঠল। বিক্ষোভকারীরা প্রকল্প এলাকায় ঢুকে পড়ে মঙ্গলবার সকালে ওই জমি কোদাল গিয়ে কোপাতে শুরু করলে পুলিশ এসে বাধা দেয়। পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়েন বিক্ষোভকারীরা। মঙ্গলবার সকালে জলপাইগুড়ির রাজগঞ্জে মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের ‘ভোরের আলো’ প্রকল্পের ওই জমিতে এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে ব্যাপক উত্তেজনা ছড়ায়।

[আরও পড়ুন: ভোট পরবর্তী হিংসা অব্যাহত, মাথাভাঙায় আক্রান্ত তৃণমূলের অঞ্চল সভাপতি]

জলপাইগুড়ির রাজগঞ্জে ‘ভোরের আলো’ প্রকল্পের হেলিপ্যাড তৈরির জন্য জমি চিহ্নিত করেছে রাজ্য সরকার। জমিতে লাগানো হয়েছে সরকারি সাইন বোর্ডও। মঙ্গলবার সকালে সেই সাইন বোর্ডে খোলা নিয়ে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। বিক্ষোভকারীদের পাশে দাঁড়িয়েছে বিজেপি। দলের ক্ষেতমজুর ইউনিয়ন ভারতীয় কিষান মোর্চা ইউনিয়নের রাজ্য সম্পাদক অরুণ মণ্ডল  বলেন,  “হেলিপ্যাড বানাতে রাজগঞ্জে ৬০০ একর জমি নিতে চেয়েছে রাজ্য সরকার। কিন্তু তার থেকে এক ইঞ্চি জমি আমরা নিতে দেব না।”  মঙ্গলবার সকালে ধস্তাধস্তির পর অবশ্য সরকারি জমি থেকে বিক্ষোভকারীদের সরিয়ে দেয় রাজ্য সরকার। অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে জলপাইগুড়ির রাজগঞ্জে হেলিপ্যাডের জন্য অধিগৃহীত জমিতে মোতায়েন করা হয়েছে প্রচুর পুলিশ। শিলিগুড়ি পুলিশ কমিশনারেটের ডেপুটি পুলিশ কমিশনার (জোন ওয়ান) গৌরব লাল বলেন, “এলাকায় চাপা উত্তেজনা রয়েছে। পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করে রাখা হয়েছে। পরিস্থিতির উপর নজর রাখা হচ্ছে।”

রাজ্য সরকারের বিশ্ব বাংলার লোগো বিকৃতি ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছিল উত্তর ২৪ পরগনার কাঁকিনাড়ায়। কাঁকিনাড়ার মাদরাল এলাকায় একটি হনুমান মন্দির চত্বরে ‘বিশ্ব বাংলা’ গ্লোব বসিয়েছে রাজ্য সরকার। সোমবার সকালে স্থানীয় বাসিন্দারা দেখেন, লোগোর ‘ব’ অক্ষরটিকে বিকৃত করে লেখা হয়েছে ‘রাম’। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় জগদ্দল থানার পুলিশ। মন্দির কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় বাসিন্দাদের সঙ্গে কথা বলেন পুলিশ আধিকারিকরা। তবে কে বা কারা এমন ঘটনা ঘটাল?  তা এখনও স্পষ্ট নয়। তবে বিজেপির দিকেই অভিযোগের আঙুল তুলেছে তৃণমূল কংগ্রেস।

দেখুন ভিডিও:

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে