২৩  শ্রাবণ  ১৪২৯  বুধবার ১০ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

রাতের অন্ধকারে জঙ্গলে ঢোকাই কাল, কাঁকড়া ধরতে গিয়ে বাঘের হামলায় মৃত্যু মৎস্যজীবীর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: June 12, 2022 9:22 pm|    Updated: June 12, 2022 9:22 pm

Fisherman of Sunderban killed by the attack of Royal Bengal Tiger into the forest | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী।

দেবব্রত মণ্ডল, বারুইপুর: ফের সুন্দরবনের (Sunderban) জঙ্গলে বাঘের হামলায় মৃত্যু হল মৎস্যজীবীর। নিহত মৎস্যজীবীর নাম কালিপদ সরদার। বয়স ৬০ বছর। সুন্দরবন উপকূলীয় থানার ছোট মোল্লাখালি গ্রামের কালিদাসপুর এলাকার কালিপদ রবিবার ভোরে জঙ্গলের খাঁড়িতে কাঁকড়া সংগ্রহ করতে গিয়েছিলেন। সেখানেই পিছন থেকে তাঁর উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার (Royal Bengal Tiger)। বাঘের থাবায় মৃত্যু হয় মৎস্যজীবীর। পরে গভীর জঙ্গল থেকে তাঁর ক্ষতবিক্ষত দেহ উদ্ধার করে আনেন সঙ্গীরা। ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে এলাকায়।

স্থানীয় ও বনদপ্তর সূত্রের খবর,  দু’মাস সুন্দরবনের নদীতে মাছ (Fishing) ধরা বন্ধ রয়েছে প্রশাসনের নির্দেশ অনুযায়ী। আর সেই নির্দেশকে উপেক্ষা করে প্রায় প্রতিদিন রাতের অন্ধকারে বহু মানুষ ঢুকে পড়ছেন জঙ্গলে। জীবিকার তাগিদে জঙ্গলে ঢুকে পড়ার কারণেই ঘটছে প্রাণঘাতী ঘটনা। রবিবার ভোরে ঝিলা ৪ নম্বর জঙ্গলে ঢুকতে যান কালিপদ সরদার। তখনই পিছন থেকে বাঘ ঝাঁপিয়ে পড়ে তাঁর উপর।

[আরও পড়ুন: রাজমিস্ত্রির সঙ্গে প্রেম, বিয়ে, সুদূর মরিশাস থেকে বাংলাদেশে ছুটে এলেন তরুণী

কালিপদবাবুর সঙ্গীরা জানাচ্ছেন, কাঁকড়া (Crab) ধরার জন্য যখন তাঁরা জঙ্গলে নামার তোড়জোড় করছিল, তখনই পিছন থেকে বাঘ ঝাঁপিয়ে পড়ে মৎস্যজীবী দলের উপরে। তারপর টানতে টানতে কালিপদকে নিয়ে যায় জঙ্গলের মধ্যে। পরে অন্যান্য সঙ্গীরা গিয়ে ছাড়িয়ে নিয়ে আসেন দেহটি। তবে তাঁকে বাঁচানো সম্ভব হয়নি। প্রশাসনের দাবি, মৎস্যজীবী দলটির কোনও বৈধ অনুমতিপত্র ছিল না মাছ ধরার জন্য। এমনটাই জানানো হয়েছে বনদপ্তরের তরফ থেকে। তাছাড়া সুন্দরবন এই মুহূর্তে মাছ ধরাও বন্ধ। ফলে রাতের অন্ধকারে জঙ্গলে ঢুকে কাঁকড়া ধরার উপক্রম করতেই এমন বিপদ নেমে আসছে।

[আরও পড়ুন: OMG! এবার Telegram ব্যাবহারে গুনতে হবে টাকা, জেনে নিন কবে থেকে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে