BREAKING NEWS

১০ কার্তিক  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৮ অক্টোবর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

শিলিগুড়ি থেকে উদ্ধার বিপুল পরিমাণ চোরাই কাঠ, ধৃত ৪

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: September 24, 2017 3:57 pm|    Updated: September 24, 2017 3:57 pm

forest department officials seize illegal woods in Siliguri, 4 arrested

ব্রতীন দাস, শিলিগুড়ি:  গোর্খ্যাল্যান্ডের দাবিতে ১০০ দিন ধরে চলা বনধে বিপর্যস্ত জনজীবন। কর্মীদের গরহাজিরায় ব্যাহত সরকারি কাজকর্ম। আর এই প্রশাসনিক অস্থিরতার সুযোগে পাহাড়ে দৌরাত্ম্য বেড়েছে কাঠ চোরাকারবারিদের। গোপনসূত্রে খবর পেয়ে, রবিবার ভোরে শিলিগুড়ির সেবক  থেকে বিপুল পরিমাণ শাল ও সেগুন কাঠ উদ্ধার করলেন বৈকুণ্ঠপুর ডিভিশনের বনকর্মীরা। গ্রেপ্তার করা হয়েছে চারজনকে। বন দপ্তর সূত্রে খবর, উদ্ধার হওয়া কাঠের আনুমানিক বাজারমূল্য প্রায় ১০ লক্ষ টাকা। প্রসঙ্গত, গত দু’মাসে পাহাড়ে লাগাতার অভিযান চালিয়ে প্রায় ১ কোটি টাকা মূল্যের কাঠ উদ্ধার করেছেন বন দপ্তরের কর্মীরা।

[পুজোর মুখে স্বাভাবিক ছন্দে ফিরছে পাহাড়, খুলল দোকানপাট]

জানা গিয়েছে, গুরুবাখান, মংপং থেকে ট্রাক বোঝাই করে বিপুল পরিমাণ কাঠ শিলিগুড়ি আনা হচ্ছে। গোপন সূত্রে এই খবর পেয়ে শনিবার রাতেই রেঞ্জার সঞ্জয় দত্তের নেতৃত্বে অভিযানে নামেন বৈকুণ্ঠ ডিভিশনের স্পেশাল টাস্ক ফোর্সের সদস্যরা। রবিবার ভোরে শিলিগুড়ি সেবকের কাছে একটি ট্রাককে আটকান তাঁরা। সেই ট্রাক থেকেই উদ্ধার হয় বিপুল পরিমাণ শাল ও সেগুন কাঠ। গ্রেপ্তার করা হয় চারজনকে। বন দপ্তরের দাবি, গোর্খাল্যান্ড আন্দোলন চলাকালীন কালিম্পংয়ে বন দপ্তরের অফিস থেকে বিপুল পরিমাণ শাল ও সেগুন কাঠ খোয়া গিয়েছিল। সেই কাঠগুলি চোরা পথে্ বিহারের পাচার করা হচ্ছিল। ধৃতদের দু’জন দার্জিলিংয়েরই বাসিন্দা। বাকি দু’জনের বাড়ি বিহারে।

[মহিলা ওসির ‘যৌন লালসার’ শিকার কনস্টেবল]

বন দপ্তর সূত্রে খবর, গোর্খাল্যান্ডের দাবিতে আন্দোলনে শামিল হয়ে কাজে করছিলেন না বন দপ্তরের কর্মীরা। ফলে গত উত্তরবঙ্গের বনাঞ্চলে সঠিকভাবে নজরদারি চালানো সম্ভব হয়নি। সেই সুযোগেই ইতিমধ্যেই বিভিন্ন বন থেকে বিপুল পরিমাণ কাঠ ভিনরাজ্যে পাচার হয়ে গিয়েছে।

[ফের একবার শহরের মাথা উঁচু করল ভিক্টোরিয়া মেমোরিয়াল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement