BREAKING NEWS

১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মানুষ-বন্যপ্রাণ সংঘাত সমাধানে উদ্যোগী বনদপ্তর, চালু ২৪ঘণ্টার কন্ট্রোল রুম

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 4, 2019 11:25 am|    Updated: October 4, 2019 1:01 pm

Forest department starts control room in Man-Wild conflict

শুভদীপ রায়নন্দী, শিলিগুড়ি: বনাঞ্চলের বাসিন্দাদের প্রায়শয়ই বন্যপ্রাণের হামলার মুখে পড়তে হয়। বড়সড় ক্ষতিও হয়। উলটোদিকে, লোকালয়ে ঢুকে হামলা চালানোর পর প্রাণীটিও মানুষের তাড়া খেয়ে অনেক সময়ই বিপন্ন হয়ে পড়ে। বন্যপ্রাণ ও মানুষের মধ্যে এমন সংঘাত নিয়ন্ত্রণে আনতে এবার কন্ট্রোল রুম চালু করল বনদপ্তর। উত্তরবঙ্গের প্রতিটি জেলায় এই ব্যবস্থা থাকছে।

[ আরও পড়ুন : কফিনবন্দি হয়ে ঘরের পথে কাশ্মীরে নিহত নদিয়ার বিএসএফ জওয়ান ]

ইদানিং লোকালয়ে মাঝেমধ্যেই হাতি, চিতাবাঘ, বিষধর সাপ, বাইসন, পাইথনের মতো বন্যপ্রাণ ঢুকে পড়ছে। এছাড়াও রয়েছে ট্রেনের ধাক্কায় বন্যপ্রাণীদের মৃত্যুর ঘটনা। মূলত এই বিপদ এড়াতে কন্ট্রোল রুমের উদ্যোগ বনদপ্তরের। উত্তরবঙ্গ জুড়ে মোট ১০টি কন্ট্রোল রুম চালু হয়েছে। সেখানে ২৪ ঘণ্টা বনকর্মী মোতায়েন থাকবে বলে জানা গিয়েছে।
উত্তরবঙ্গের অতিরিক্ত মুখ্য বনপাল (বন্যপ্রাণ) বিপিনকুমার সুদ বলেন, “কন্ট্রোল রুমগুলি চালু হয়েছে। লোকালয়ে বন্যপ্রাণ ঢুকে পড়লে, কন্ট্রোল রুমের নির্দিষ্ট নম্বরে ফোন করে সাধারণ মানুষ বনদপ্তরকে পদক্ষেপ করার আবেদন জানাতে পারবেন।” তিনি জানিয়েছেন, বন বিভাগে খবর দেওয়ার পাশাপাশি উচ্চপদস্থ বন আধিকারিকদেরও ঘটনার কথা সেখান থেকে জানানো হবে। এর ফলে সংঘাত অনেকটাই কমবে।” বনদপ্তর সূত্রে জানা গিয়েছে, উত্তরবঙ্গের আটটি জেলায় দশটি কন্ট্রোল রুম খোলা হয়েছে। একঝলকে ফোন নম্বরগুলি দেখে নিন:
কার্শিয়াং ডিভিশনের বাগডোগরা রেঞ্জ – ৯৯৩২৩৯৩৬০৭
বৈকুন্ঠপুর ডিভিশনের শিলিগুড়ি রেঞ্জ – ৭০০১৭৫২১৬৪
দার্জিলিং ওয়াইল্ড লাইফ ডিভিশনের সুকনা রেঞ্জ – ৯৩৮২১১৪৭৩১৫
কালিম্পং ডিভিশনে কন্ট্রোল রুম – ৯৬৪১৮০৭৬০৩ রাখা হয়েছে। জলপাইগুড়ি ডিভিশনের বীরপাড়া রেঞ্জ – ৯০৯৩৩৪৭৭০৬,
গরুমারা ওয়াইল্ড লাইফ ডিভিশনের জলপাইগুড়ি রেঞ্জ – ৬২৯৪২৫৪৮৯১

[ আরও পড়ুন : মালদহের মহানন্দা নদীতে নৌকাডুবি, উদ্ধার দু’জনের মৃতদেহ]

জলদাপাড়া ওয়াল্ড লাইফ ডিভিশনের মাদারিহাট কন্ট্রোল রুমের নম্বর ৭৩১৮৯৩৩৩৪৭, আলিপুরদুয়ারের বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের নম্বর ৮৬৭০৩৮৭৩১১, মালদহের কন্ট্রোল রুমের নম্বর ৯৭৪৯৩১০৭৬২, ও রায়গঞ্জের কন্ট্রোল রুমের নম্বর ৯৬৩৫২০৬৪৪৭। বনদপ্তরের উত্তরবঙ্গে দশটি এলিফ্যান্ট স্কোয়াড রয়েছে। জানা গিয়েছে, ওই স্কোয়াডের মাধ্যমে বন্যপ্রাণীকে লোকালয় থেকে জঙ্গলে ফেরত পাঠানো হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে