BREAKING NEWS

২০ শ্রাবণ  ১৪২৭  বুধবার ৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

কিং কোবরা গলায় পেঁচিয়ে ভিডিও! স্বয়ং বনকর্মীর এহেন কাজে তীব্র সমালোচনা

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 8, 2019 3:38 pm|    Updated: September 8, 2019 4:56 pm

An Images

রাজ কুমার, আলিপুরদুয়ার: বন্যপ্রাণকে বিপন্ন করার অভিযোগে এবার কাঠগড়ায় স্বয়ং বনকর্মীই। আলিপুরদুয়ারের মাদারিহাট বীরপাড়া ব্লকের পাগলিখাস এলাকা থেকে একটি কিং কোবরা উদ্ধার হয়েছে। দশ ফুট লম্বা সাপটি উদ্ধার করেন লঙ্কাপাড়া রেঞ্জের কর্মীরা। কিন্তু তারপরই অত বড় কিং কোবরাটিকে শরীরে পেঁচিয়ে ভিডিও তোলায় মেতে ওঠেন এক বনকর্মী। সেলফি তোলারও চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ। ক্যামেরার সামনে এসব কেরামতি দেখাতে গিয়েই বিতর্কে জড়ালেন ফরেস্ট গার্ড রঞ্জিত সুব্বা। বনদপ্তর সূত্রে খবর, তাঁকে এনিয়ে প্রাথমিকভাবে সতর্ক করেই ছেড়ে দেওয়া হলেও, পরে ভিডিওটি ছড়িয়ে পড়ায় বিতর্ক উসকে ওঠায় তদন্ত শুরু হয়েছে।

[আরও পড়ুন: কিশোরী সাঁতারুকে যৌন হেনস্তায় অভিযুক্ত কোচের ৬ দিনের জেল হেফাজত]

ঘটনা বৃহস্পতিবার রাতের। লঙ্কাপাড়া রেঞ্জ থেকে উদ্ধার হওয়া কিং কোবরাটি কিছুটা ঝিমিয়ে পড়েছিল। তাই তাকে উদ্ধারের পর গলায় জড়িয়ে ছবি তোলার সাহস দেখাতে যান রঞ্জিত সুব্বা নামে ওই বনকর্মী। খবর ছড়িয়ে পড়তেই শুরু হয়ে যায় বিতর্ক। বনকর্মীরাই যদি এমন আচরণ করেন, তাহলে সাধারণ মানুষকে তাঁরা বন্যপ্রাণ নিয়ে সচেতনতার বার্তা দেবেন কীভাবে? বন্যপ্রাণপ্রেমী সংগঠনগুলোর দাবি, এতে ওই বনকর্মীর বড়সড় বিপদের আশঙ্কা তো ছিলই। পাশাপাশি ওই ঘটনাস্থলে যাঁরা ছিলেন, তাঁদেরও ক্ষতি হতে পারত। তাই ওই সংশ্লিষ্ট বনকর্মীর বিরুদ্ধে যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি তুলেছেন তাঁরা।

লঙ্কাপাড়ার রেঞ্জের বিশ্বজিৎ বিশোই জানিয়েছেন, ওই বনকর্মীকে সতর্ক করা হয়েছে। তবে ভিডিওটি নিয়ে তুমুল বিতর্ক তৈরি হওয়ায় নড়েচড়ে বসে জলদাপাড়ার ডিএফও-র সাফাই, ‘বৃহস্পতিবার রাতে সাপটি উদ্ধারের পর যখন বস্তাবন্দি করা হচ্ছিল, তখনই এই ভিডিও তোলা হয়েছে। কেউ কেরামতি দেখাতে গিয়ে এটা হয়নি। তবে আমরা তদন্ত শুরু করেছি। পুরো ব্যাপারটি দেখব।’ 

কিং কোবরা ঠিক কতটা ভয়ংকর, তা বোঝাতে গিয়ে সর্পবিশারদ মিন্টু চৌধুরি বলেন, ‘কিং কোবরার কামড়ে হাতি, গণ্ডারেরও মৃত্যু হয়। একবার দংশনে ১৫০ মিলিগ্রাম বিষ ঢালতে পারে কিং কোবরা। মাত্র ৬ মিলিগ্রাম বিষই মানুষের মৃত্যুর জন্য যথেষ্ট। এসব জেনেও কোনও বনকর্মী যদি এমন আচরণ করে থাকেন, তাহলে তা অত্যন্ত নিন্দনীয়।’

[আরও পড়ুন: বন্ধুদের দিয়ে স্ত্রীকে গণধর্ষণ, গ্রেপ্তার স্বামী]

বন্যপ্রাণীদের চোখের সামনে দেখলে অনেক অত্যুৎসাহী মানুষজন ছবি তুলেই সন্তুষ্ট হন না, প্রাণের ঝুঁকি নিয়ে সেলফি তুলতে মেতে ওঠে। এভাবে বহুবার দুর্ঘটনার মুখেও পড়তে হয়েছে তাঁদের। কখনও বনাঞ্চলের সংরক্ষিত এলাকায় সাধারণের প্রবেশ নিষিদ্ধ করে দিয়েও তা প্রতিরোধ করার চেষ্টা চলেছে। কিন্তু সচেতনতা যেন আর কিছুতেই ফেরে না। বন্যপ্রাণ রক্ষা আর সাধারণ মানুষকে সচেতন করার মতো গুরু দায়িত্ব যাঁদের উপর, সেই বনকর্মীরাই যদি কিং কোবরার মতো বিপজ্জনক প্রাণীকে নিয়ে খেলার ঝুঁকি নেন, তাহলে তো তাঁদের দায়িত্বহীনতা নিয়ে প্রশ্ন উঠবেই। শুক্রবার রাতেও লঙ্কাপাড়ার ঘটনা সেই প্রশ্ন তুলে দিল। সেইসঙ্গে ফরেস্ট গার্ড রঞ্জিত সুব্বার ভূমিকাও কঠোর সমালোচনার মুখে পড়েছে।

দেখুন ভিডিও: 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement