BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

পুলিশের সামনেই বোমাবাজিতে উত্তপ্ত সিউড়ি, জখম বেশ কয়েকজন

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 17, 2019 12:43 pm|    Updated: July 17, 2019 7:18 pm

An Images

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: সাতসকালে বোমাবাজির ঘটনায় উত্তপ্ত হয়ে উঠল বীরভূমের সিউড়ির কুখুডিহি গ্রাম। বুধবার সকালেই মুড়ি-মুড়কির মতো বোমা পড়তে থাকে এলাকায়। পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে সিউড়ি থানার পুলিশ ঘটনাস্থলে গেলে তাঁদের সামনেই চলে বোমাবাজি। জানা গিয়েছে, বোমার তীব্রতায় আহত হয়েছেন এলাকার দুই বাসিন্দা। গুরুতর আহত অবস্থায় স্থানীয় হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে তাঁদের। 

[আরও পড়ুন: ফের অশান্ত ভাটপাড়ায় পুলিশকে লক্ষ্য করে বোমাবাজি, জখম এএসআই]

স্থানীয় সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরেই এলাকায় বেআইনি কারবার চালাত কয়েকজন দুষ্কৃতী। বরাবরই তাদের কার্যকলাপের প্রতিবাদ জানায় স্থানীয় একটি ক্লাবের সদস্যরা। ফলে এই নিয়ে ক্লাবের সঙ্গে অশান্তি চলছিল দুষ্কৃতীদের। অভিযোগ, অশান্তির জেরে বেশ কিছুদিন ধরেই এলাকায় তাণ্ডব চালাচ্ছিল দুষ্কৃতীরা। এরপর বুধবার সকালে আচমকা বালিঘাটের দায়িত্বে থাকা তৃণমূল নেতা মানাই মৃধার বাড়িতে বোমাবাজি শুরু হয়। সিউড়ি-সাঁইথিয়াগামী রাস্তার উপর মুড়ি-মুড়কির মতো বোমা পড়তে শুরু করে। কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায় এলাকা। পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে যায় পুলিশ। অভিযোগ, পুলিশের সামনেই দীর্ঘক্ষণ চলে বোমাবাজি। বেশ কিছুক্ষণ পর স্বাভাবিক হয় পরিস্থিতি। 

কিন্তু কেন আচমকা এই বোমাবাজি, তার কোনও সদুত্তর নেই পুলিশের কাছে। কারও দাবি, রাজনৈতিক কারণে এই বোমাবাজির ঘটনা। আবার কারও কথায় বালিঘাটের দখলদারিকে কেন্দ্র করেই এদিন উত্তপ্ত হয়ে উঠেছিল এলাকা। এ প্রসঙ্গে তৃণমূল নেতা তথা বালিঘাটের দায়িত্বে থাকা মানাই মৃধা বলেন, ‘‘এটি বালিঘাট নিয়ে কোনও লড়াই নয়। সাহেব বলে স্থানীয় এক তৃণমূল নেতাকে সদ্য দল থেকে বহিষ্কার করা হয়েছে। তিনি ক্লাবের সঙ্গে জড়িত। আর এলাকার ক্লাবটি এখন বিজেপির দখলে। তাই এলাকায় নিজের অস্তিত্ব প্রমাণ দিতেই এলাকায় সন্ত্রাস ছড়াচ্ছে।” এপ্রসঙ্গে ক্লাবের এক সদস্য বলেন, “ক্লাবে কোনও রাজনীতি নেই। আমরা গ্রামের দুর্নীতির প্রতিবাদ করেছিলাম। তাই আমাদের বিরুদ্ধে চক্রান্ত করা হচ্ছে।” এদিনের ঘটনায় আতঙ্কিত স্থানীয়রা। 

[আরও পড়ুন: কাটমানি ফেরত দিতে অপারগ, তৃণমূল নেতাদের বয়কটের সিদ্ধান্ত গ্রামবাসীদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement