BREAKING NEWS

১৫ ফাল্গুন  ১৪২৭  রবিবার ২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

রাজ্যের করোনা পরিস্থিতির সামান্য উন্নতি, গত ২৪ ঘণ্টায় নিম্নমুখী রাজ্যের কোভিডগ্রাফ

Published by: Paramita Paul |    Posted: January 22, 2021 8:17 pm|    Updated: January 22, 2021 8:29 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফিরল স্বস্তি। গত ২৪ ঘণ্টায় নিম্নমুখী রাজ্যের কোভিডগ্রাফ (COVID-19)। কমেছে মৃত্যুও। ভ্যাকসিন প্রক্রিয়া চলাকালীন বেশকিছুটা নিয়ন্ত্রণে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি। তবে দৈনিক সংক্রমণের ওঠাপড়া চলছেই। 

শুক্রবারের সরকারি বুলেটিন বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৪০৬ জন। বৃহস্পতিবার এই সংখ্যাটা ছিল ৪১৬ জন। এদিন সর্বাধিক সংক্রমিতের হদিশ মিলেছে উত্তর ২৪ পরগনায়। একদিনে সে জেলায় করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১১৫ জন। একমাত্র  এই জেলাতেই করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০০ পার করেছে। অন্যান্য জেলার মধ্যে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কলকাতা (৮২)।ফলে এদিন রাজ্যের মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল ৫ লক্ষ ৬৭ হাজার ৩০৪ জন। তবে চিন্তার কিছু নেই। কারণ এঁদের মধ্যে অধিকাংশ জনই সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছেন।

[আরও পড়ুন: ‘মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের উচিত ছিল নোবেল দেওয়া’, দলত্যাগীদের তীব্র কটাক্ষ মদনের]

সরকারি হিসেব বলছে, এ রাজ্যে মোট করোনা জয়ীর সংখ্যা ৫ লক্ষ ৫০ হাজার ৭৩৭ জন। যাঁদের মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৪৯৩ জন। রাজ্যের এই পরিসংখ্যানের পিছনে সবচেয়ে বড় অবদান রয়েছে কোভিড যোদ্ধাদের। ফলে রাজ্যে কোভিডমুক্তির ছবি সবচেয়ে বেশি স্বস্তি দিচ্ছে তাঁদের। তাঁদের হাতযশেই রাজ্যের সুস্থতার হার বেড়ে হয়েছে ৯৭.০৮ শতাংশ। বর্তমানে রাজ্যে অ্যাকটিভ করোনা আক্রান্ত বা চিকিৎসাধীন সংক্রমিতের সংখ্যা মোটে ৬ হাজার ৪৭০ জন। 

করোনা সংক্রণের শুরুর দিকে যে সমস্ত রাজ্যে মৃত্যুহার বেশি ছিল তার মধ্যে অন্যতম বাংলা। তবে গত কয়েকদিন যাবৎ পরিস্থিতি অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে এসেছে। সরকারি নথি বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় এ রাজ্যে করোনায় মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের। ফলে এ রাজ্যে করোনায় মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০ হাজার ৯৭ জন।

[আরও পড়ুন: রাজ্য-ডিভিসি সমন্বয়ের অভাব শেষের মুখে, এবার ডিজিটাল মাধ্যমে মিলবে জল ছাড়ার তথ্য]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement