Advertisement
Advertisement

ফ্লেক্সে ঢেকেছে ঐতিহ্যবাহী ঘড়ি, দৃশ্যদূষণের শিকার চুঁচুড়ার ঘড়ির মোড়

ঘটনায় ক্ষুব্ধ চুঁচুড়াবাসী।

Heritage clock tower in trouble
Published by: Bishakha Pal
  • Posted:December 5, 2018 9:18 pm
  • Updated:December 5, 2018 9:18 pm

দিব্যেন্দু মজুমদার, হুগলি: রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীর ডাকে ১৯ জানুয়ারি হবে ব্রিগেড। মোদি বিরোধী জনসভা হবে সেদিন। আর এই জনসভায় যাওয়ার জন্য তৃণমূলের কর্মীরা চুঁচুড়া শহরের প্রাণকেন্দ্র ঘড়ির মোড়ের ঘড়িকে প্রচারের মাধ্যম হিসেবে বেছে নিয়েছে। শতাধিক বছরের পুরোনো ঐতিহ্যবাহী এই ঘড়ির নিচে বাঁধানো বেদি শুধু এখন ১৯ জানুয়ারির ফ্লেক্স ও পোস্টারের মোড়কে ঢাকা।ফলে হচ্ছে দৃশ্যদূষণ। শহরের প্রাণকেন্দ্রে অবস্থিত এই ঘড়ির ঐতিহ্য এই দৃশ্যদূষণের ফলে অনেকটাই ম্লান হয়ে গিয়েছে বলে মনে করছেন চুঁচুড়াবাসী।

লোকালয় থেকে হাতি তাড়াতে গিয়ে বেঘোরে প্রাণ গেল যুবকের ]

Advertisement

ঘটনায় রীতিমতো ক্ষুব্ধ চুঁচুড়াবাসী। তাদের মতে, কয়েক বছর আগে এই ঘড়ির শতবর্ষ পূর্তি হয়। ওই বছরই হুগলির চুঁচুড়া পুরসভার সার্ধ শতবর্ষ উদযাপন হয়। সার্ধ শতবর্ষে পুরসভা অঙ্গীকার করে ঘড়ির মোড়ের ঘড়ি-সহ ওই এলাকাকে পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখবে। শহরকে পরিষ্কার রাখার জন্য পুরসভার পক্ষ থেকে বিজ্ঞাপনের জন্য আলাদা জায়গা নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়। তা সত্বেও আজ ঘড়ির মোড়ের এই ঘড়ি দৃশ্যদূষণে আক্রান্ত। এলাকাবাসী বিদ্রুপ করে এমনও বলছে, ঘড়ির মোড় বদলে নাম রাখা হোক বিজ্ঞাপন মোড়।

Advertisement

ঘটনাটি নিয়ে পুরসভার চেয়ারম্যান গৌরীকান্ত মুখোপাধ্যায়কে জিজ্ঞাসা করা হলে তিনি জানান, ঘড়ির মোড় পরিস্কার রাখতে তাঁরা মাঝে মধ্যে অভিযান চালান। কিন্তু ১৯ জানুয়ারির ব্যানারগুলো কে লাগিয়েছে তা তিনি জানেন না। বিষয়টি নিয়ে খোঁজ করতে বলেছেন তিনি।

ভরসন্ধেয় শুটআউট কৃষ্ণনগরে, দুষ্কৃতীদের গুলিতে খুন যুবক ]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ