৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বৃষ্টি মাথায় করোনা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল, গেলেন কোভিড হাসপাতালে

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 28, 2020 11:43 am|    Updated: April 28, 2020 12:11 pm

An Images

শুভদীপ রায়নন্দী, শিলিগুড়ি: বৃষ্টি মাথায় নিয়েই মঙ্গলবার সকালে ষষ্ঠবার শিলিগুড়ির করোনা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণে বেরলেন কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের সদস্যরা। পাঁচ সদস্যদের ২ জন এদিন শিলিগুড়ির বিভিন্ন এলাকার অবস্থা খতিয়ে দেখেন। দলের প্রধান বিনীত জোশী-সহ বাকি ৩ জন যাচ্ছেন দার্জিলিংয়ে।

জানা গিয়েছে, মঙ্গলবার সকালে কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের দুই সদস্য ব্রিগেডিয়ার অজয় গাঙ্গোয়ার ও অধ্যাপিকা শিবানি দত্ত যান কাওয়াখালির কোভিড হাসপাতালে। সেখানকার ব্যবস্থাপনা খতিয়ে দেখেন। কথা বলেন রোগী ও দায়িত্বপ্রাপ্ত আধিকারিকদের সঙ্গে। সেখান থেকে পাতি কলোনির উদ্দেশ্যে রওনা হন তাঁরা। করোনা সংক্রমণে মৃত পাতি কলোনির বাসিন্দা রেলকর্মীর বাড়িতে যান কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের এই দুই সদস্য। এলাকার বাসিন্দারা আদৌ সচেতন কি না, লকডাউন মানছেন কি না তা খতিয়ে দেখেন। পাশপাশি ওই এলাকার নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা পুলিশে কর্মীদের ভূমিকায় খতিয়ে দেখেন।

SILIGURI-1

[আরও পড়ুন: কলকাতা-সহ বাংলার ৪ জেলার সংক্রমক এলাকা কোনগুলি? দেখে নিন পূর্ণাঙ্গ তালিকা]

প্রসঙ্গত, সপ্তাহখানেক আগেই রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে কলকাতায় পৌঁছয় কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দল। একাধিক দলে ভাগ হয়ে উত্তর এবং দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন এলাকা পরিদর্শন করছেন তাঁরা। সোমবার শিলিগুড়ির জ্যোতিনগর এলাকা পরিদর্শনে গিয়ে কর্তব্যরত পুলিশের ভূমিকায় ক্ষুব্ধ হল ব্রিগেডিয়ার অজয় গাঙ্গোয়ার। কারণ, স্পর্শকারত জ্যোতিনগরের দায়িত্ব থাকা নিরাপত্তারক্ষীদেরই ব্যবহার করতে দেখা যায়নি মাস্ক-স্যানিটাইজার। উল্লেখ্য, কয়েকদিন আগেই উত্তরবঙ্গের কেন্দ্রীয় প্রতিনিধি দলের প্রধান বিনীত যোশী চিঠি দিয়ে সহযোগিতার জন্য মুখ্যসচিবকে ধন্যবাদ জানিয়েছিলেন। বেশ কয়েকটি কোভিড হাসপাতালেক ভূমিকায় খুশিও হয়েছিলেন প্রতিনিধি দলের সদস্যরা।  

[আরও পড়ুন: ‘পরীক্ষামূলকভাবে আমাকেই দেওয়া হোক করোনা ভ্যাকসিন’, ICMR-কে চিঠি বাংলার শিক্ষকের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement