Advertisement
Advertisement

Breaking News

বন্দিদের হাতে প্রহৃত পুলিশ কর্মী, চাঞ্চল্য মালদহের সংশোধনাগারে

অভিযুক্ত বকুল শেঠ নামের এক বন্দি।

Inmates attack cops in Malda jail
Published by: Sangbad Pratidin Digital
  • Posted:June 9, 2018 4:09 pm
  • Updated:June 9, 2018 4:09 pm

বাবুল হক, মালদা: সংশোধনাগার থেকে বন্দি পালানোর ঘটনা নতুন নয়। কিন্তু রক্ষীদের ধরে পেটানোর কথা সচরাচর শোনা যায় না। এবার তেমনই একটি ঘটনা ঘটল মালদহের জেলার সংশোধনাগারে। সেখানে পুলিশকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে বন্দিদের বিরুদ্ধে।

ঘটনাটি ঘটে শনিবার বেলা ১১টা নাগাদ। অভিযোগ, সংশোধনাগারের কয়েকজন বন্দি তখন নিজেদের কক্ষের বাইরে ছিল। তাদের মধ্যে একজনের নাম বকুল শেঠ। পুলিশ সূত্রে খবর, কুখ্যাত ব্যক্তি সে। সংশোধনাগারের বাইরে তো বটেই, ভিতরেও দাদাগিরির অভিযোগ রয়েছে তার নামে। কিন্তু তাতে বিন্দুমাত্র হেলদোল নেই বকুলের। জেলের মধ্যে যে তার দাপট যে একেবারে মিথ্যে নয়, তা সে একবার প্রমাণ করে দিল।

Advertisement

[ সম্পর্কের চতুষ্কোণ, ষড়যন্ত্র করে প্রেমিককে খুনের অভিযোগ বিবাহিতা মহিলার বিরুদ্ধে ]

Advertisement

বকুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ, কারাগারের ৪ জন রক্ষীকে বেদম প্রহার করে সে। রক্ষীদের ‘দোষ’ ছিল একটাই। বন্দিদের তাঁরা সেলের ভিতরে যেতে বলেছিলেন। সেই কারণেই তাঁদের উপর চড়াও হয় বকুল শেঠ ও তার জেলের ভিতরের অনুগামীরা। পুলিশদের ভালরকমই পেটায় তারা। ঘটনায় ২ জন পুলিশকর্মী গুরুতর আহত হন। তাদের মাথা ফেটে যায়। বাকিদের আঘাতও নেহাত সামান্য নয়। গুরুতর জখম ওই দুই পুলিশ কর্মীকে মালদা মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। তাঁদের চিকিৎসা চলছে।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রায় দেড় বছর ধরে কারাবাসের সাজা ভোগ করছে বকুল। কিন্তু তাতে তার মধ্যে কোনও অনুতাপ তো দূরের কথা, ব্যবহারেও কোনও পরিবর্তন আজ পর্যন্ত কারও চোখে পড়েনি। উলটে জেলের ভিতরেও দল গঠন করেছে সে। চলছে দাদাগিরিও।

[ টিউশন থেকে বাড়ি ফেরার পথে আক্রান্ত নাবালিকা, ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ ]

মালদা সংশোধনাগারে এমন ঘটনার পর নিরাপত্তা ব্যবস্থা আরও জোরদার করা হয়েছে। নামানো হয়েছে ব়্যাফ। তবে কেন এমন ঘটনা ঘটল আর কীভাবে ঘটল, তা নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। মনে করা হচ্ছে, খুব তাড়াতাড়িই এই বিষয়ে পুলিশর তরফ থেকে কোনও পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ