BREAKING NEWS

২১ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘চিনা দ্রব্য ব্যবহারকারীর পা ভেঙে দিন’, নিদান বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের

Published by: Sayani Sen |    Posted: June 20, 2020 9:59 am|    Updated: June 20, 2020 10:24 am

An Images

মনিরুল ইসলাম, উলুবেড়িয়া: লাদাখ সীমান্তে চিনা সেনার বর্বরতায় ভারতীয় সেনার শহিদ হওয়ার ঘটনায় গোটা ফুঁসছে ভারত। দেশের বিভিন্ন প্রান্তে চিনা দ্রব্য বয়কটের ডাক দিয়ে চলছে প্রতিবাদ, বিক্ষোভ কর্মসূচি। কিন্তু এ প্রসঙ্গে মুখ খুলে বিতর্কে জড়ালেন বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায় (Joy Banerjee)। কেউ চিনা পণ্য ব্যবহার করলে তাঁর হাত-পা ভেঙে দেওয়ার নিদান গেরুয়া শিবিরের নেতার।

বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “২০ জন সৈনিক শহিদ হওয়ার পরও যদি কেউ চিনা দ্রব্য কেনেন তাহলে ভারতবর্ষের সন্তান হিসেবে তার হাত-পা ভেঙে দিন। কারও বাড়িতে যদি চিনা দ্রব্য ব্যবহার হয় তাহলে তার বাড়ি ভেঙে দিন। ভারতের প্রধানমন্ত্রী ইতিমধ্যেই বলেছেন স্বদেশি জিনিস ব্যবহার করুন। করোনার পর হাজার হাজার কোটি টাকার ব্যবসা করেছে চিন (China)। তারপরে হামলা। এ মেনে নেওয়া যায় না। চিন জওহরলাল নেহরুর সময় থেকে ভারতের সঙ্গে প্রতারণা করে যুদ্ধ করেছিল। সেবার তারা কূটনীতির আশ্রয় নিয়েছিল। এবারে চিন যেন ভুলে না যায় যে ভারত কূটনৈতিক, অর্থনৈতিক, সামরিক সমস্ত দিক থেকে অনেক উন্নত হয়েছে। ফলে ভারতের সঙ্গে লাগতে এলে তাদের পিঠ বাজিয়ে দেবে। কারণ বর্তমানে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি (Narendra Modi)। দেশের আপামর জনগণ চিনের বিরুদ্ধে লড়তে প্রস্তুত।” কীভাবে বিজেপি নেতা হাত-পা ভাঙার হুঁশিয়ারি দিতে পারেন, সর্বত্র উঠছে সেই প্রশ্ন।

[আরও পড়ুন: আচমকা ধসে অন্ডালে মাটির তলায় চলে গেল আস্ত বাড়ি, নিখোঁজ ১ মহিলা]

লাদাখের ঘটনার প্রতিবাদে শুক্রবার উলুবেড়িয়ার (Uluberia) বানিতবলা এবং কালীনগর বাজারে বিক্ষোভ কর্মসূচিতে অংশ নিয়েছিলেন বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রতিবাদ মিছিল করা হয়। কুশপুতুল পোড়ানো হয় চিনের প্রেসিডেন্ট শি জিংপিংয়ের। এমনকি চিনা মোবাইলও পোড়ানো হয়। গ্রামীণ হাওড়ার বিভিন্ন জায়গাতেও বিক্ষোভ প্রদর্শন ও কুশপুতুল পোড়ায় বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। উলুবেড়িয়ার ধূলোসিমলা, কালীনগর ও শ্যামপুরে বিক্ষোভ প্রদর্শন করে বিজেপি। বাগনানেও প্রতিবাদের আঁচ ছিল একইরকম। পাঁচলার গঙ্গাধরপুর বিএড কলেজ কর্তৃপক্ষের তরফে চিনের বিরুদ্ধে একটা বিক্ষোভ সমবেশ করা হয়। বিক্ষোভ সমাবেশ করা হয়েছিল ডোমজুড়ের বাঁকড়া এলাকায়। সেখানে চিনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে চিনা মোবাইল পুড়িয়ে দেওয়া হয়।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: পঞ্চভূতে বিলীন চিনা বর্বরতায় শহিদ বিপুল, ঘরের ছেলের শেষকৃত্যে মনমরা বিন্দিপাড়া]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement