BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘দলবিরোধী’ কাজে জড়িত থাকার শাস্তি, বহিষ্কৃত কালোসোনা মণ্ডল-সহ ২ বিজেপি নেতা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 28, 2020 3:48 pm|    Updated: July 28, 2020 4:07 pm

An Images

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: দলবিরোধী কাজে জড়িত থাকার অভিযোগে বীরভূমের (Birbhum) ২ নেতাকে বহিষ্কার করল বিজেপি। সোমবারই বিজেপির রাজ্য কমিটির সদস্য কালোসোনা মণ্ডল (Kalosona Mandal) ও সিউড়ির নগর হিসাব রক্ষক পলাশ মিত্রকে (Palash Mitra) বহিষ্কারের বিষয়টি ঘোষণা করেন জেলা সভাপতি। মিথ্যে অপবাদ দিয়ে পরিকল্পনামাফিক তাঁকে সরানো হল, অভিযোগ কালোসোনা মণ্ডলের।

সোমবার সকালে বীরভূম বিজেপির সভাপতি শ্যামাপদ মণ্ডল (Shymapada Mandal) জানান যে, বেশ কিছুদিন ধরেই জেলার প্রাক্তন সাধারণ সম্পাদক তথা রাজ্য কমিটির সদস্য কালোসোনা মণ্ডল ও প্রাক্তন সম্পাদক তথা সিউড়ির নগর হিসাব রক্ষক পলাশ মিত্রের বিরুদ্ধে একাধিক অভিযোগ উঠছিল। বিষয়টি খতিয়ে দেখে দল। এরপর অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় কালোসোনা মণ্ডলকে ৩ বছরের জন্য ও অপরজনকে ৪ বছরের জন্য বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। এ প্রসঙ্গে কথা বলা হলে কালোসোনা মণ্ডল বলেন, “আমাকে মিথ্যে অপবাদ দিয়ে দল থেকে সরানো হল। আমার বিরুদ্ধে দলবিরোধী কাজে জড়িত থাকার যে অভিযোগ করা হচ্ছে, তা সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন।” চ্যালেঞ্জ ছুঁড়ে দিয়ে এদিন বহিষ্কৃত ওই বিজেপি নেতা বলেন, “অভিযোগ প্রমাণ করতে পারলে জুতো মাথায় নিয়ে ঘুরব।” শ্যামাপদ মণ্ডলকে আক্রমণ করে তিনি বলেন,  “বর্তমান জেলা সভাপতি তৃণমূলের সঙ্গে জড়িত। শাসকদলের সঙ্গে গোপন আঁতাত রয়েছে। তাই এই চক্রান্ত।” তবে এবিষয়ে মুখ খোলেননি পলাশ মিত্র। 

[আরও পড়ুন: ঝুড়িভরতি মুরগির ডিম সাবাড় করে ফণা তুলছে গোখরো! ঘরে ঢুকেই আঁতকে উঠলেন গৃহস্থ]

প্রসঙ্গত, বিজেপির দাপুটে নেতা হিসেবেই পরিচিত ছিলেন কালোসোনা মণ্ডল। বীরভূম বিজেপিতে তাঁর ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ ছিল বলেই মত দলের একাংশের। তবে বর্তমান জেলা সভাপতি শ্যামাপদ মণ্ডলের সঙ্গে তাঁর কোনওদিনই বনিবনা ছিল না বলেই সূত্রের খবর। তবে কি সেই চাপা দ্বন্দ্বের বলিই হলেন কালোসোনা মণ্ডল? এই প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে দলের অন্দরে।

[আরও পড়ুন: করোনার বলি এবার সরকারি হাসপাতালের নার্স, ১০দিন লড়াইয়ের পর মৃত্যু SSKM’এর সেবিকার]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement