Advertisement
Advertisement
Kanchanjungha Express

কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনা: ১৪ ঘণ্টা পর পরিষ্কার আপ লাইন, চালানো হল মালগাড়ি

রেলের তরফে জানানো হয়েছে, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯। আহত ৪১ জন।

Kanchanjungha Express Accident: Good train running throw UP track after almost 14 hours of the accident
Published by: Sayani Sen
  • Posted:June 17, 2024 12:01 pm
  • Updated:June 17, 2024 11:51 pm

শিয়ালদহমুখী কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসে মালগাড়ির ধাক্কা। নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন ছেড়ে রাঙাপানি ও চাটারহাট স্টেশনের মাঝে নিজবাড়িতে দুর্ঘটনা। ক্রমশ বাড়ছে হতাহতের সংখ্যা। একাধিক হেল্পলাইন চালু করেছে রেল। দুর্ঘটনা সংক্রান্ত যাবতীয় খবর সংবাদ প্রতিদিন ডন ইনে । 

রাত ১১.৪৮: মেয়ের জন্মদিনের আগেই বাবার মর্মান্তিক পরিণতি। জন্মদিনের জন্য বালিগঞ্জের দামিনী লেনের শুভজিৎ মালি তৎকাল টিকিট কেটে উঠেছিলেন অভিশপ্ত কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসে। দুর্ঘটনায় মৃত্যু হল দুই সন্তানের বাবার।

Advertisement
মৃত বালিগঞ্জের শুভজিৎ মালি।

রাত ১১.১৫: সকালে দুর্ঘটনার প্রায় ১৪ ঘণ্টা পর আপ লাইন পরিষ্কারের কাজ শেষ। পরীক্ষামূলকভাবে চালানো হল মালগাড়ি। 

Advertisement

রাত ১১.১১: রেলের তরফে জানানো হয়েছে, কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৯। আহত মোট ৪১ জন, তার মধ্যে ৯ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক।

রাত ৯.৩৬: মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশমাত্রই কাজ। শিয়ালদহে খুলল হেল্প ডেস্ক। স্টেশনে পৌঁছে গিয়েছে বিশেষ বাস। দুর্ঘটনার কবলে পড়া কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস রাত ১২টা নাগাদ শিয়ালদহ পৌঁছলে এই বাসেই যাত্রীদের বাড়ি যাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে সরকারের তরফে।

সন্ধে ৭.৪৫: রাত ১২ টায় শিয়ালদহে পৌঁছনোর কথা দুর্ঘটনাগ্রস্ত কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের। সেই কারণে খোলা হচ্ছে হেল্প ডেস্ক। যাত্রীদের বাড়ি ফেরাতে ব্যবস্থা করা হচ্ছে বিশেষ বাসের। গোটা বিষয়ের তদারকির ভার রয়েছে ফিরহাদ হাকিমের কাঁধে।

সন্ধে ৭.০০: হাসপাতাল থেকে বেরিয়ে রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস জানালেন, তিনি আহতদের সঙ্গে দেখা করেছেন। পরিস্থিতির উপর নজর রয়েছে। 

সন্ধে ৬.৪৫: এদিনের এই দুর্ঘটনার নেপথ্যে কেন্দ্রকেই দায়ী করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (CM Mamata Banerjee)। সোমবার সন্ধেবেলা উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে আহতদের দেখে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে তাঁর বক্তব্য, ”যাত্রী সুরক্ষার দিকে একেবারেই নজর দেয়নি। বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের মতো বিলাসবহুল ট্রেন চালু করতে গিয়ে পরিকাঠামো উন্নয়ন, সুরক্ষা ব্যবস্থা নিয়ে ভাবা হয়নি। যার জন্য এই বেহাল দশা। আমি এসব বলতে খারাপ লাগছে। কিন্তু বলতেই হচ্ছে, রেলের চূড়ান্ত গাফিলতির পরিণাম এই দুর্ঘটনা।”

বিকেল ৫.৫৫: উত্তরবঙ্গে পৌঁছেই হাসপাতালে গেলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তার আগেই হাসপাতাল থেকে ঘুরে এসেছেন রাজ্যপাল ও রাজ্য বিজেপি সভাপতি।

বিকেল ৫.২৭: আহতদের দেখতে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যালে রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। কথা বললেন আহতদের সঙ্গে। 

 

বিকেল ৫.০৫: ঘটনাস্থলে পৌঁছলেন রেলমন্ত্রী। তবে এখনই এবিষয়ে মন্তব্য করতে রাজি নন তিনি। 

বিকেল ৪.৫১: যাত্রীদের কথা ভেবে কেক, বিস্কুটের মতো শুকনো খাবার ও জলের ব্যবস্থা করেছে রেল। 

বিকেল ৪.০৮: বাইকে চেপে দুর্ঘটনাস্থলের পথে রেলমন্ত্রী। 

 

দুপুর ৩.৪৫: বিমানবন্দর থেকে মুখ্যমন্ত্রী জানালেন, বিমান না মেলায় তাঁর এত দেরি। উত্তরবঙ্গে পৌঁছে প্রথমেই উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে যাবেন তিনি। রাতে থাকবেন কোচবিহারে। আগামিকাল সকালে যাবেন দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শনে।

দুপুর ৩.৪৫: বাগডোগরা পৌঁছলেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। এদিকে দমদম বিমানবন্দরে পৌঁছলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

দুপুর ২.৫৩: দুর্ঘটনাস্থলে সাংসদ জয়ন্ত রায়। খতিয়ে দেখছেন পরিস্থিতি।

দুপুর ২.৩৫: কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের দুর্ঘটনা নিয়ে দুঃখপ্রকাশ করলেন রাহুল গান্ধী। কংগ্রেস কর্মীদের নির্দেশ দিলেন সহযোগিতার। এদিন এই দুর্ঘটনার দায় মোদি সরকারের কাঁধেই ঠেললেন তিনি। রাহুলের কথায়, “গত ১০ বছরে বেড়েছে রেল দুর্ঘটনা। কারণ মোদি সরকারের অব্যবস্থা। মোদি সরকারের দোষেই প্রাণ হারাচ্ছে আমজনতা।”

 

বেলা ২.১০: বিকেলের বিমানে দুর্ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস।

বেলা ২.০৪: অসমের অনেক যাত্রীই ছিলেন দুর্ঘটনাগ্রস্ত ট্রেনটিতে। রেলের সঙ্গে কথা হয়েছে বলে জানালেন অসমের মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত বিশ্বশর্মা।

বেলা ১.৪৭: কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনায় দুঃখপ্রকাশ করলেন রাজ্যপাল সি ভি আনন্দ বোস।

 

বেলা ১.২০: ঘটনাটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। কীভাবে একই লাইনে চলে এল দুটি ট্রেন? তদন্তের প্রয়োজন বলেই দাবি করলেন শিলিগুড়ি পুরনিগমের চেয়ারম্যান গৌতম দেব। 

বেলা ১.১৫: উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি ৪০ জন যাত্রী। তাঁদের মধ্যে ৩ জনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। এদিকে ফাঁসিদেওয়া প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে ভরতি ২০ জন।  

বেলা ১.০৫: ৫ টি বাদে কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের বাকি বগি রওনা দিল মালদহের উদ্দেশে। 

বেলা ১২. ৫০: দুর্ঘটনায় আহত যাত্রীদের উদ্ধারের জন্য দশটি বাস পাঠাচ্ছে উত্তরবঙ্গ রাষ্ট্রীয় পরিবহণ সংস্থা। পাশাপাশি যাত্রীদের গন্তব্যে পৌঁছে দেওয়ার জন্য শিলিগুড়ি থেকে কলকাতাগামী অতিরিক্ত বাস চালানো হবে খবর।

বেলা ১২. ৪৫: বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। রেলওয়ে বোর্ডের চেয়ারম্যান ও সিইও জয়া বর্মা সিনহা জানালেন, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮। আহত ২৫। মৃতদের মধ্যে রয়েছেন মালগাড়ির চালক, কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের গার্ড।

 

বেলা ১২.৩০: মৃতদের পরিবার পিছু রেলের তরফে আর্থিক সাহায্য করা হবে ১০ লক্ষ টাকা। গুরুতর জখমরা পাবেন আড়াই লক্ষ টাকা। সামান্য আহতরা পাবেন ৫০ হাজার টাকা। মৃতদের পরিবার পিছু ২ লক্ষ টাকা আর্থিক সাহায্য ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর। আহতরা পাবেন ৫০ হাজার টাকা।

 

বেলা ১২.২৯: কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেস দুর্ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

বেলা ১২.১০: উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন হাসপাতালের ব্লাড ব্যাঙ্কে কত রক্ত মজুত, জানতে চাইল রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তর।

বেলা ১২.০৯: উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ক্রমশ বাড়ছে আহতদের সংখ্যা। পরিস্থিতি মোকাবিলায় চিকিৎসক-সহ অন্যান্য কর্মীদের বাতিল ছুটি। 

বেলা ১২.০৫: ট্রেন দুর্ঘটনায় শোকপ্রকাশ রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মুর। 

বেলা ১২: ট্রেন দুর্ঘটনায় X হ্যান্ডলে শোকপ্রকাশ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির।

   
বেলা ১১.৫৮:
দুর্ঘটনাস্থলে যাচ্ছেন রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। 

বেলা ১১.৫৬: দুর্ঘটনার পরই উচ্চপর্যায়ের বৈঠকে রেলমন্ত্রী অশ্বিনী বৈষ্ণব। যেতে পারেন ঘটনাস্থলেও। 

বেলা ১১.৪০:গ্যাসকাটার থাকলেও আপাতত তা ব্যবহার করা হচ্ছে না। প্রাথমিকভাবে উদ্ধারকারী দলের সদস্যরাই বগি কেটে ভিতরে কেউ আটকে আছেন কিনা, তা খতিয়ে দেখছে।  দড়ি বেঁধে দুর্ঘটনাগ্রস্ত কামরা সরানোর বন্দোবস্ত করা হচ্ছে। 

বেলা ১১.৩০: দুর্ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন দার্জিলিংয়ের সাংসদ রাজু বিস্তা। 
বেলা ১১:
দার্জিলিংয়ের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার অভিষেক রায় জানান, এখনও পর্যন্ত দুর্ঘটনাস্থল থেকে এক মহিলা-সহ ৬ জনের দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে মালগাড়ির চালক বিশাল মিশ্র এবং কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসের গার্ডেরও। 


সকাল ১০:
এই ঘটনার জেরে আপাতত দুর্ঘটনাগ্রস্ত লাইনে সম্পূর্ণ বন্ধ ট্রেন চলাচল।
সকাল ৯.৪৮:
X হ্যান্ডলে উদ্বেগ প্রকাশ করে পোস্ট করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লেখেন, “এই মাত্র দার্জিলিঙের ফাঁসিদেওয়া এলাকায় ট্রেন দুর্ঘটনার খবর পেলাম। বিশদে এখনও জানতে পারিনি। কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসে মালগাড়ি ধাক্কা মেরেছে শুনেছি। জেলাশাসক, পুলিশ সুপার, চিকিৎসক এবং অ্যাম্বুল্যান্স ঘটনাস্থলে পৌঁছেছে। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় উদ্ধারকাজ শুরু হচ্ছে।”


সকাল ৮.৪৫:
শিয়ালদহমুখী কাঞ্চনজঙ্ঘা এক্সপ্রেসে মালগাড়ির ধাক্কা।নিউ জলপাইগুড়ি স্টেশন ছেড়ে রাঙাপানি ও চাটারহাট স্টেশনের মাঝে নিজবাড়িতে দুর্ঘটনা।

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ