Advertisement
Advertisement
Lok Sabha Election 2024

শ্লীলতাহানিতে ‘অভিযুক্ত’ জওয়ানকে ভোটের দায়িত্ব থেকে সরাল নির্বাচন কমিশন, দায়ের FIR

রবিবার প্রাতঃভ্রমণে বেরনো যুবতীকে জোর করে চুমু খান ওই জওয়ান, অভিযোগ এমনই। বিএসএফ জওয়ানের বিরুদ্ধে তদন্ত শুরু করেছে উলুবেড়িয়া থানার পুলিশ।

Lok Sabha Election 2024: Election Commission of India removes BSF jawan accused for harassment, lodged FIR
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:May 20, 2024 10:08 am
  • Updated:May 21, 2024 1:07 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভোটের কাজে এসে যুবতীকে শ্লীলতাহানি, জোর করে চুমু খাওয়ার অভিযোগ ওঠায় বিএসএফ জওয়ানকে কর্তব্য থেকে সরিয়ে দিল নির্বাচন কমিশন। আপাতত তাঁকে ভোটের কোনও কাজে রাখা যাবে না বলে কড়া নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। ওই জওয়ানের বিরুদ্ধে উলুবেড়িয়া থানায় এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। বিষয়টি নিয়ে রাজনৈতিক মহলে বেশ চাপানউতোর শুরু হয়েছে। কেন্দ্রীয় বাহিনীর জওয়ানের এহেন কীর্তিতে ফুঁসে উঠেছে তৃণমূল। বিজেপির দাবি, জওয়ানদের মানহানির চেষ্টা করছে শাসকদল।

ঘটনার সূত্রপাত রবিবার সকালে। সোমবার উলুবেড়িয়া লোকসভা কেন্দ্রের ভোটের (Lok Sabha Election 2024) জন্য আগেই সেখানে এসেছিল কেন্দ্রীয় বাহিনী। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রবিবার সকাল ছটা নাগাদ কুলগাছিয়ার ওই তরুণী হাঁটতে বেরন। সেই সময় বিএসএফের (BSF) দুই জওয়ান ওই এলাকায় ছিলেন। অভিযোগ, যুবতীকে একা দেখতে পেয়ে অশ্লীল ইঙ্গিত ও কুপ্রস্তাব দেন দুই জওয়ান। যুবতীর দাবি, তিনি ঘটনার প্রতিবাদ করলে এক জওয়ান জোর করে জড়িয়ে ধরেন ও চুমু খান। তিনি আতঙ্কে চিৎকার করলে ছুটে আসেন গ্রামবাসীরা। অভিযুক্ত বিএসএফ জওয়ানকে হাতেনাতে ধরে ফেলেন তাঁরা। অন্য জওয়ান ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে যান বলে জানিয়েছেন গ্রামবাসীরা। খবর যায় উলুবেড়িয়া থানায়। অভিযুক্ত বিএসএফ জওয়ানকে আটক করে থানায় নিয়ে যান পুলিশ কর্তারা। পরবর্তীতে তাঁর বিরুদ্ধে এফআইআর (FIR) দায়ের করা হয়।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ভারতের নাগরিকত্ব পেয়ে প্রথমবার ভোট দিলেন অক্ষয়, বেরিয়েই মুখে দেশের উন্নতির কথা]

এই ঘটনার রিপোর্ট পৌঁছয় নির্বাচন কমিশনে (Election Commission of India)। অভিযোগ খতিয়ে দেখে সোমবার সকালে কমিশন সিদ্ধান্ত নেয় যে ওই জওয়ানকে ভোটের কোনও কাজে রাখা যাবে না। সেইমতো জেলা প্রশাসনের সঙ্গে যোগাযোগ করে নির্দেশ দেওয়া হয়। এর পরই ওই জওয়ানের বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করে তদন্ত শুরু করেছে উলুবেড়িয়া (Uluberia) থানার পুলিশ। এদিকে, এই ঘটনার জেরে এলাকার মহিলারা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন। তাঁদের আশ্বস্ত করেছে স্থানীয় প্রশাসন। ভোটের দিন মহিলাদের নিরাপত্তার মধ্যে দিয়েই ভোটাধিকার প্রয়োগের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়েছে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘চাকরি বিক্রির রেট বলেছি,’ অভিজিতের মমতা-ব্যাখ্যায় ‘ঝাঁটা’র দাওয়াই দেবাংশুর]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ