BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

উজ্জ্বল মহানায়কের স্মৃতি, ৯৪তম জন্মদিনে বর্ধমান শহরে বসল উত্তম কুমারের পূর্ণাঙ্গ মূর্তি

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: September 3, 2020 8:16 pm|    Updated: September 3, 2020 8:21 pm

An Images

সৌরভ মাজি, বর্ধমান: আজও আপামর বাঙালি মেয়েদের কাছে স্বপ্নের রাজপুত্র ‘একমেবাদ্বিতীয়ম’ উত্তম কুমার। মৃত্যুর চল্লিশ বছর পর আজও তিনি একইভাবে সমুজ্জ্বল বাঙালির হৃদয়ে। মহানায়ককে ঘিরে উন্মাদনার অন্ত নেই। আর আজ ৯৪তম জন্মদিন উপলক্ষে বর্ধমান শহরের রথতলা মাঠে বসল মহানায়ক উত্তম কুমারের (Uttam Kumar) পূর্ণাঙ্গ মূর্তি। বর্ধমানের (Burdwan) কাঞ্চন উৎসব কমিটির তরফেই এই মূর্তি স্থাপন করা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

বর্ধমানের সঙ্গে মহানায়কের অনেক স্মৃতি জড়িয়ে আছে। অভিনয় জীবনে বর্ধমানের নানা এলাকায় শুটিং করেছেন তিনি। আর আবেগ থেকেই বর্ধমানবাসীর দীর্ঘ দিনের দাবি ছিল যে, মহানায়কের একটি পূর্ণাঙ্গ মূর্তি স্থাপন করা হোক। বৃহস্পতিবার তাঁর জন্মদিন উপলক্ষে শহরবাসীর সেই দীর্ঘদিনের দাবী পূরণ হল। অনুষ্ঠানের উদ্বোধন করলেন উত্তমকুমারের পুত্রবধূ মহুয়া চট্টোপাধ্যায়। ৯৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে মূর্তি প্রতিষ্ঠার মধ্য দিয়েই মহানায়ককে শ্রদ্ধার্ঘ্য নিবেদনের জন্য এই কর্মসূচির আয়োজন করা হয়েছিল বলে কাঞ্চন উৎসব কমিটির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে।

এদিন কাঞ্চননগরের রথতলায় প্রাক্তন কাউন্সিলার খোকন দাসের উদ্যোগে এবং কাঞ্চন উত্সব কমিটির সহায়তায় প্রতিষ্ঠিত হল উত্তম কুমারের পূর্ণাবয়ব মূর্তি। সেই মূর্তির আবরণ উন্মোচন করতে আসেন মহুয়াদেবী। এদিন তিনি উত্তম কুমারের চলচ্চিত্র জগতে অবদান এবং বাঙালীর হৃদয়ে উত্তম টান প্রসঙ্গে বলেন, “উত্তম কুমার ছিলেন, আছেন থাকবেন।”

এর পাশপাশি জানা যায়, উত্তম কুমারের নামে যে সমস্ত জমি জায়গা, সম্পত্তি রয়েছে তা পুনরুদ্ধারের জন্য মুখ্যমন্ত্রীর কাছে ইতিমধ্যেই আবেদন জানিয়েছেন তাঁরা। খোদ মুখ্যমন্ত্রী টালিগঞ্জের টেকনিশিয়ান স্টুডিওতে উত্তমকুমারের স্মৃতির উদ্দেশে যে বিশেষ পরিকল্পনাও গ্রহণ করেছেন, সেকথা জানান পুত্রবধূ মহুয়া চট্টোপাধ্যায়।

[আরও পড়ুন: প্রতিবাদের নামে নজিরবিহীন ‘তাণ্ডব’ অভিভাবকদের, মধ্যমগ্রামের স্কুলে ভাঙল গেট, CCTV]

উত্তম কুমারের নামে গোটা রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে যে সমস্ত সম্পত্তি ও জমি-জায়গা রয়েছে সেগুলির হালহকিকত প্রসঙ্গে মহুয়াদেবীকে জিজ্ঞাসা করলে, তিনি জানান, তাঁরাও শুনেছেন যে অনেক জেলাতেই মহানায়কের নামে জমি রয়েছে। কিন্তু এখনও তা পুনরুদ্ধার করতে পারেননি তাঁরা। তাই এই বিষয়ে খোদ মুখ্যমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানানো হয়েছে পরিবারের পক্ষ থেকে।

উল্লেখ্য, এদিন মহানায়ক উত্তম কুমারের ৯৪তম জন্মদিবসের দিন এই মূর্তি উন্মোচন করতে পেরে রীতিমত খুশী খোদ উত্তম কুমারের একান্ত অনুরাগী প্রাক্তন কাউন্সিলার খোকন দাস। তিনি জানিয়েছেন, ছোটবেলা থেকেই উত্তম কুমারের সিনেমা দেখেছি। স্বপ্ন ছিল তাঁর মূর্তি বসানোর। এতদিন পর সেই স্বপ্ন পূরণ হল।

উল্লেখ্য, এর আগেও বর্ধমানের সংস্কৃতি লোকমঞ্চের সামনে উত্তম কুমার এবং সুচিত্রা সেনের দুটি মূর্তি বসানোর উদ্যোগ নেন বর্ধমানের উত্তম-সুচিত্রা ফ্যান ক্লাব। সম্প্রতি এই ফ্যান ক্লাবের সম্পাদক শরত কোনার প্রয়াত হওয়ায় গোটা বিষয়টি থমকে যায়। জানা গেছে, মহানায়ক খোদ পূর্ব বর্ধমান জেলার কাঁকসা এলাকায় বেশ কিছু জমি কেনেন চলচ্চিত্র শিল্পীদের নিয়ে সেখানে কিছু করার জন্য। কিন্তু সেই সব সম্পত্তির অনেকাংশই বেদখল হয়ে রয়েছে।

[আরও পড়ুন: নিষেধাজ্ঞা উড়িয়ে মোরাম বোঝাই গাড়ি চলাচল, হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ল কংসাবাতী ক্যানালের সেতু]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement