BREAKING NEWS

১২ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ২৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘চিটফান্ডের মালিকের জমিতে সভা করেছে মোদি’, বিস্ফোরক অভিযোগ মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: May 16, 2019 5:53 pm|    Updated: May 16, 2019 5:58 pm

Mamata Banerjee alleged Chitfund link to Narendra Modi

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিটফান্ড নিয়ে খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির দিকেই অভিযোগের আঙুল তুললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মন্দিরবাজারে জনসভায় তিনি বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর ছবি দেখিয়ে কোটি কোটি টাকা তুলেছে একটি চিটফান্ড সংস্থা। মথুরাপুরে যে মাঠে জনসভা করেছেন মোদি, সেই জমিটিও চিটফান্ড সংস্থার মালিকের।’ এদিন মন্দিরবাজার ও ডায়মন্ড হারবারের জনসভায় পর বেহালায় পদযাত্রাও করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

[আরও পড়ুন: শেষ দফায় রাজ্য পুলিশেই আস্থা, কুইক রেসপন্স টিম নিয়ে সিদ্ধান্ত বদল কমিশনের]

হাতে আর মাত্র দু’দিন। আগামী রবিবার রাজ্যে সপ্তম ও শেষ দফার লোকসভা ভোট। সেদিন ভোট হবে কলকাতা, উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনায়। মঙ্গলবার অমিত শাহর রোড শো-তে গন্ডগোলের পর প্রচারের সময়সীমা কমিয়ে দিয়েছে নির্বাচন কমিশন। বৃহস্পতিবার রাত দশটার পর আর প্রচার করতে পারবে না কোনও রাজনৈতিক দলই। পূর্ব নির্ধারিত সূচি মেনে এদিন দক্ষিণ ২৪ পরগনার মথুরাপুরে সভা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। অন্যদিকে একদিন আগেই মথুরাপুর লোকসভা কেন্দ্রের মন্দিরবাজারে সভা করতে হল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও। জনসভা কমিশনের ভূমিকা নিয়ে যেমন ক্ষোভ প্রকাশ করলেন তিনি, চিটফান্ড নিয়ে অভিযোগ তুললেন খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধেও।

এদিন জনসভার মঞ্চে দাঁড়িয়েই স্থানীয় তৃণমূল নেতাদের কাছে মুখ্যমন্ত্রী জানতে চান, ‘আমরা যে মাঠে সভা করছি, সেই জমিটির কার? তিনি সভার করার অনুমতি দিয়েছেন তো? জমির মালিকের কোনও মাইক্রো ফিনান্সিং সংস্থা বা চিটফান্ড নেই তো?’ এরপর খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রীতিমতো নথি দেখিয়ে তিনি বলেন, ‘মোদির ছবি দেখিয়ে মথুরাপুর এলাকায় কোটি কোটি টাকা তুলেছে একটি মাইক্রো ফিনান্সিং সংস্থা বা চিটফান্ড। সংস্থার মালিকের কোনও লাইসেন্স নেই।’ মুখ্যমন্ত্রীর দাবি, বৃহস্পতিবারই মথুরাপুরে যে মাঠে জনসভা করেছেন মোদি, সেই জমিটি ওই চিটফান্ড সংস্থার মালিকেরই। এখানেই শেষ নয়, সভামঞ্চে ওই চিটফান্ড সংস্থার নথি পুলিশের হাতে তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী।

সপ্তম দফার ভোটে প্রচারের সময়সীমা কমে যাওয়ার মুখ্যমন্ত্রী কর্মসূচিতে বদল ঘটেছে। শুক্রবার ঘোষিত সভা ও মিছিল বৃহস্পতিবার সেরে ফেললেন তিনি। এদিন মন্দিরবাজার ও ডায়মন্ড হারবারে দুটি জনসভা করেন মুখ্যমন্ত্রী। বিকেলে আবার জোকা থেকে তারাতলা পর্যন্ত পদযাত্রা করেন তিনি।

[আরও পড়ুন: বামের ভোট যাচ্ছে রামে! রাজ্যের ১৫টি আসন নিয়ে চিন্তায় শাসকদল]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে