৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘বাম আমলে না পেত ত্রাণ, না পেত দান’, আমফানের ক্ষতিপূরণের ভুয়ো আবেদন বাতিল মমতার

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: July 16, 2020 8:37 pm|    Updated: July 16, 2020 8:37 pm

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: দুর্নীতি সামলে আমফানে (Cyclone Amphan) প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তদের ফের ক্ষতিপূরণ দেওয়া শুরু করছে সরকার। ৪০ হাজার আবেদন নতুন করে জমা পড়েছিল। তার মধ্যে ২৬ হাজার নাম সরকারের কাছেই নথিবদ্ধ ছিল। আরও ছ’হাজার নাম তাতে যুক্ত হয়েছে। ছ’হাজার নাম মিথ্যা আবেদনের অভিযোগে বাদ গিয়েছে। তিনদিনের মধ্যে ক্যাম্প করে তাদের ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। এ কথা ঘোষণা করতে গিয়ে বুধবার ফের বাম আমলের প্রসঙ্গ টেনে তোপ দাগলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Baenrjee)। বললেন, “বাম আমলে তো কেউ কিছু দিত না। না পেত ত্রান, না পেত দান আর না থাকত প্রাণ।”

নবান্ন থেকে এদিন মুখ্যমন্ত্রী আবারও বলে দেন যে, প্রকৃত ক্ষতিগ্রস্তরা বঞ্চিত হবেন না। তাড়াহুড়ো করতে গিয়ে একটু ভুলভ্রান্তি হয়েছে। তার মধ্যেই সুযোগ নিয়েছে কয়েকজন। সেই সংখ্যাও নগন্য। মুখ্যমন্ত্রীর দেওয়া হিসাব অনুযায়ী বঞ্চিতদের মধ্যে মাত্র ০.৫ শতাংশ ক্ষতিপূরণ পাননি। তিনি বোঝাতে চেয়েছেন এই সরকার বাম সরকারের মতো নয়। এই সরকার কাজ করে। মানুষের পাশে থাকে। তাদের বিপদে পাশে দাঁড়ায়। আর সেই কাজ করতে গিয়েই কিছু ভুল হয়েছে। তাঁর কথায়, “আমরা সঙ্গে সঙ্গে কাজটা (ক্ষতিপূরণ দেওয়া) করেছি। সরকারের এত বিরুদ্ধাচরণ করা ঠিক নয়। সরকার তো বলেনি যে এটা ঠিক নয়। অনেক সময় আমি নিজেই বলি।”

[আরও পড়ুন: ‘কতবার কথা বলব, আমরা কি রাজ্যপালের চাকর?’ ধনকড়ের লাগাতার অভিযোগে ক্ষুব্ধ মমতা]

বঞ্চিত বলে নতুন করে যাঁদের হাতে ক্ষতিপূরণ তুলে দেওয়া হচ্ছে, তাঁদের প্রত্যেকের নাম পরীক্ষা করে তা এবার দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। এ প্রসঙ্গে বিজেপির বিরুদ্ধে রাজনীতি করার অভিযোগ তুলে বলেছেন, “এটা মানুষকে সাহায্য করার সময়। নিজেরা রাজনীতি করছেন। এক পয়সা দিয়ে সাহায্য করেননি। তার পরও এত করছি। যত অভিযোগপত্র পেয়েছি, সব খোঁজখবর করেছি।”

[আরও পড়ুন: ‘আমার বডিতে চুল্লি বানিয়ে পুড়িয়ে দিন’, করোনা রোগীর দেহ দাহ নিয়ে অশান্তিতে বিরক্ত মমতা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement