BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শনিবার ২৭ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

মু্খ্যমন্ত্রীর উপস্থিতিতেই চারবার বিদ্যুৎ বিভ্রাট, মুখ্যসচিবের কাছে রিপোর্ট তলব

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: November 1, 2018 2:46 pm|    Updated: November 1, 2018 2:46 pm

Mamata seeks report on Cooch Behar power failure

অরূপ বসাক, চালসা: “আমি থাকতেই যদি চারবার বিদ্যুৎ বিভ্রাট ঘটে, তবে সাধারণ মানুষের ক্ষেত্রে সেটা কতবার হতে পারে!” বুধবার জলপাইগুড়ি ও আলিপুরদুয়ার জেলার প্রশাসনিক বৈঠকে ঠিক এভাবেই প্রশ্ন তুললেন ক্ষুব্ধ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ঘন ঘন বিদ্যুৎ বিভ্রাটের জন্য তিনি বিদ্যুৎ বণ্টন কোম্পানির কর্তাদের কার্যত তুলোধোনা করেন। কড়া পদক্ষেপ গ্রহণের কথাও জানিয়ে দেন। মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “আমি জানতে চাই গোটা রাজ্যে বিদ্যুৎ বণ্টনের কী অবস্থা।” তিন দিনের মধ্যে মুখ্যসচিবকে রিপোর্ট দেওয়ার নির্দেশ দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

[বাঁকুড়ায় অনাবৃষ্টির মার, ফসল নষ্ট হলে আন্দোলনের হুমকি কৃষকদের]

চারদিনের সফরে মুখ্যমন্ত্রী সোমবার কোচবিহারে যান। সেখানে মঙ্গলবার একাধিক প্রকল্পের শিলান্যাস করেন মুখ্যমন্ত্রী। বেলা দুটো পর্যন্ত কোচবিহারেই ছিলেন তিনি। কোচবিহার থেকে ডুর্য়াসে যান মুখ্যমন্ত্রী।  রাতে ডুয়ার্সের মেটেলির একটি টুরিষ্ট কমপ্লেক্সে ছিলেন তিনি।  মুখ্যমন্ত্রী থাকাকালীনই চারবার লোডশেডিং হয় বলে জানা গিয়েছে। বিকেলে ডুয়ার্সে ফিরে মুখ্যমন্ত্রী জানতে পারেন, ওই দিন কার্শিয়াংয়ে এক সভায় বিদ্যুৎ বিভ্রাটের জন্য পূর্তমন্ত্রী অরূপ বিশ্বাসকেও বিপাকে পড়তে হয়েছে। বুধবার ডুয়ার্সে প্রশাসনিক বৈঠকে এক শিল্পোদ্যোগী বিদ্যুৎ বিলের প্রসঙ্গ তুলে ধরতে মমতা নিজেই বলেন, “বিদ্যুৎ নিয়ে এত অভিযোগ কেন?” এরপরই মঙ্গলবার কোচবিহার ও কার্শিয়াংয়ে বিদ্যুৎ বিভ্রাটের প্রসঙ্গ টেনে ক্ষোভে ফেটে পড়েন। বিদ্যুৎ বণ্টন কোম্পানির কর্তাদের রীতিমতো ধমকের সুরে বলেন, “সরকার থেকে এত টাকা ভর্তুকি দেওয়ার পরও কেন বিদ্যুৎ বণ্টন কোম্পানি ঠিকমতো কাজ করছে না? দেখভালের কাজ ঠিকমতো হচ্ছে না। কাজে অবহেলা হচ্ছে। না হলে এসব হতে পারে না। সমস্ত বিষয় আমি জানতে চাই।” তখনই মুখ্যসচিবকে ঘটনার তদন্তের নির্দেশ দিয়ে তিন দিনের মধ্যে রিপোর্ট তলব করেন তিনি। মুখ্যসচিবের রিপোর্ট পাওয়ার পর যে সরকারের তরফে বেশকিছু কঠোর পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে, তার ইঙ্গিত দিয়ে দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।এবারের উত্তরবঙ্গ সফরের শুরু থেকেই বিভিন্ন মহল থেকে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে বিদ্যুৎ পরিষেবা নিয়ে অভিযোগ জমা পড়েছে বলে  জানা গিয়েছে। 

[ উদ্বোধন করেছিলেন স্বয়ং রবীন্দ্রনাথ, বন্ধ হয়ে গেল বাঁকুড়ার চণ্ডীদাস চিত্রমন্দির]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে