২ শ্রাবণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৮ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

ধীমান রায়, কাটোয়া: বাড়ির বারান্দায় যুবকের গলাকাটা দেহ উদ্ধারের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল পূ্র্ব বর্ধমানের মঙ্গলকোটের ধারাসোনা গ্রামে। মৃতের নাম লতিফ চৌধুরি। অভিযোগ, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কের কারণেই স্ত্রী খুন করেছে ওই যুবককে। ইতিমধ্যেই যুবকের স্ত্রী-সহ ২ জনকে গ্রেপ্তার করেছে মঙ্গলকোট থানার পুলিশ।

[আরও পড়ুন: আসানসোলে মাটির নিচ থেকে বের হচ্ছে পেট্রল! খবর ছড়াতেই শুরু লুটপাট]

জানা গিয়েছে, বুধবার ভোররাতে হঠাৎই কুকুরের চিৎকারে ঘুম ভাঙে মৃত যুবকের বাবা নিয়ামত চৌধুরির। ঘর থেকে বেরিয়ে তিনি দেখতে পান রক্তাক্ত অবস্থায় বারান্দায় পড়ে রয়েছেন লতিফ। খবর পেয়ে কৈচর ফাঁড়ির পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠায়। মৃতের বাবা নিয়ামত চৌধুরির অভিযোগ, বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিল লতিফের স্ত্রী মনোয়ারা বিবি। সেই কারণেই পরিকল্পনা মাফিক স্বামীকে খুন করেছে ওই মহিলা। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পরই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য মৃতের স্ত্রী-সহ দুজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। অভিযুক্তদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন মৃতের পরিবারের সদস্যরা। মৃতের মায়েরও অভিযোগ, পথের কাঁটা সরাতেই লতিফকে খুন করেছে মনোয়ারা। তদন্তের স্বার্থে স্থানীয়দের সঙ্গেও কথা বলছেন তদন্তকারীরা। 

বছর ১১ আগে মনোয়ারা বিবির সঙ্গে বিয়ে হয় লতিফের। তাঁদের দুটি কন্যা সন্তানও রয়েছে। জানা গিয়েছে, মনোয়ারা বিবি বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়লেই অশান্তিতে শুরু হয় ওই দম্পতির মধ্যে। এরপর গত বৃহস্পতিবার স্বামী ও সন্তানকে নিয়ে কৈচরে ডাক্তারের কাছে যান মনোয়ারা বিবি। অভিযোগ, চিকিৎসকরে চেম্বারে স্বামীকে বসিয়ে রেখে সন্তানদের নিয়ে বাপের বাড়ি চলে গিয়েছিলেন মনোয়ারা। স্ত্রী চলে যাওয়ার পর থেকেই মানসিক অবসাদে ভুগছিলেন ওই ব্যক্তি। এরপরই বুধবার তাঁর দেহ উদ্ধারের ঘটনায় শোকের ছায়া এলাকায়। যদিও অভিযোগ অস্বীকার করেছে অভিযুক্তরা। 

[আরও পড়ুন: শিশুকে গাড়িতে রেখে দিঘায় জলকেলিতে ব্যস্ত বাবা-মা, দম্পতিকে গণধোলাই স্থানীয়দের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং