BREAKING NEWS

১০ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ২৪ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

রেললাইন দিয়ে যাওয়ার সময় ধাক্কা মারল ট্রেন, জলপাইগুড়িতে মৃত ১

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: August 17, 2019 4:06 pm|    Updated: August 17, 2019 4:06 pm

Man crushed to death by train in Jalpaiguri's Malbazar

ছবি: প্রতীকী

অরূপ বসাক, মালবাজার: কাঞ্চনকন্যা এক্সপ্রেসের ধাক্কায় মৃত্যু হল এক ব্যক্তির। দুর্ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ি জেলার মালবাজার মহকুমার রানিচিরা চাবাগান সংলগ্ন ওদলাবাড়ি চেল সেতুতে। দেহটি ছিন্নভিন্ন হয়ে যাওয়ার ফলে মৃতের পরিচয় জানা যায়নি। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে এসে সেটিকে উদ্ধার করে মালবাজার থানার পুলিশ ও আরপিএফ। এরপর সেটি ময়নাতদন্তের জন্য জলপাইগুড়ি হাসপাতালে পাঠানো হয়।

[আরও পড়ুন: যুবককে মারধর করেছে পাশের গ্রামের লোকজন, অভিযোগে রাস্তা কাটল প্রতিবাদীরা]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, শনিবার সকাল ১০টা নাগাদ কলকাতা থেকে নিউ মালের দিকে আসছিল কাঞ্চনকন্যা এক্সপ্রেস। এমন সময় ওদলাবাড়িতে অবস্থিত চেল সেতুর কাছে রেললাইন পার হচ্ছিলেন এক ব্যক্তি। কোনও কারণে তিনি ট্রেনটিকে দেখতেই পাননি। ফলে ট্রেনের ধাক্কায় লাইনের ওপরেই ছিটকে পড়েন ওই ব্যক্তি। এরপর ট্রেনের চাকায় ছিন্নভিন্ন হয়ে যায় তাঁর দেহ। দুর্ঘটনার জেরে সেখানে কিছুক্ষণ দাঁড়িয়ে থাকে কাঞ্চনকন্যা এক্সপ্রেস। পরে অবশ্য নিজের গন্তব্যের দিকে রওনা দেয়।

এপ্রসঙ্গে ওই এলাকার বাসিন্দা সঞ্জয় পাল ও সৌভিক সরকার বলেন, যেভাবে ওই ব্যক্তির দেহ ছিন্নভিন্ন হয়ে গিয়েছে, তাতে তাঁকে চেনার উপায় নেই। ফলে এখনও জানা যায়নি ওই ব্যক্তির নাম ও পরিচয়। এমনকী দুর্ঘটনার জেরে ওই ব্যক্তির দেহের কিছু অংশ টুকরো টুকরো হয়ে চেল নদীতে গিয়ে পড়েছে।

[আরও পড়ুন: স্বাধীনতার ‘মিষ্টি’ স্বাদ পেল চারপেয়ের দল, বর্ধমানের পথে জীবপ্রেমের অন্য ছবি]

রেল পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, খবর পাওয়ার পরেই ঘটনাস্থলে যাওয়া হয়েছে। এসেছেন মালবাজার থানার পুলিশকর্মীরাও। মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জলপাইগুড়ি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। প্রাথমিকভাবে এটি একটি দুর্ঘটনা বলেই মনে হচ্ছে। যদিও তদন্তের পরেই এবিষয়ে আসল সত্য জানা যাবে। ময়নাতদন্তের রিপোর্টের জন্যও অপেক্ষা করা হচ্ছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত সপ্তাহে ঘিস সেতুর ওপর ঠান্ডা হাওয়া খেতে গিয়ে মালগাড়ির ধাক্কায় মৃত্যু হয় এক যুবকের। তারপরও রেল লাইনের ওপর দিয়ে যাতায়াতের প্রবণতা কমছে না। বরং দুর্ঘটনার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে এই ধরনের নিষেধাজ্ঞা অমান্য করার মানসিকতা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে