BREAKING NEWS

১৩ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ৩০ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্রাক্তন প্রেমিকার ছবিতে সিঁদুর পরিয়ে ফেসবুকে পোস্ট, পুলিশের জালে যুবক

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: November 20, 2019 8:27 pm|    Updated: November 20, 2019 8:28 pm

Man held for posting EX girlfriends photo in Facebook

ছবি - প্রতীকী

নন্দন দত্ত, সিউড়ি: প্রাক্তন প্রেমিকার ফেসবুকের ছবিতে সেই সিঁদুরদানের ছবি ছেড়ে বিপাকে প্রেমিক। তার এই ‘একলব্য’ ভালবাসাকে অশ্লীল বলে দাবি করে থানায় অভিযোগ জানাল মেয়ের বাবা। দুবরাজপুরের এমন ঘটনার তদন্তে নেমেছে সাইবার ক্রাইম থানার পুলিশ। পাশাপাশি প্রাক্তন প্রেমিকার সঙ্গে বেশ কিছু ঘনিষ্ঠ মুহূর্তের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে গ্রেপ্তার হল রাজনগরের এক রাজনৈতিক দলের কর্মী। আদালতের নির্দেশে তার জেল হেফাজত হয়েছে।

‘যা যা পাখি উড়তে দিলাম তোকে। খুঁজে নে অন্য কোনও বাসা…’। এই বলে নিজের বান্ধবীকে অন্যের হাতে ছেড়ে দিয়েছিল বেসরকারি সংস্থায় কাজ করা ছেলেটি। কলেজ পড়ুয়া ছাত্রী অন্যের সঙ্গে সম্পর্কে জড়ান। কিন্তু বান্ধবীর এই উড়ে যাওয়া পছন্দ হয়নি তার বন্ধুর। তাই ফেসবুকে মেয়েটির ছবিতেই প্রযুক্তির সিঁদুর পড়িয়ে জীবনসঙ্গী করে দিয়েছিলেন যুবক। আর তাঁকে ঘিরেই শুরু হয় টানাপোড়েন। ফেসবুক জুড়ে শুরু হয়ে যায় ঝড়। আসতে থাকে নানা প্রশ্নবাণ। কবে বিয়ে করলি, কাকে করলি, জানালি না, এমনই প্রশ্নে যতই বিব্রত হয়েছে কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী, ততই মজা উপভোগ করেছে প্রাক্তন প্রেমিক।

ইতিমধ্যে নতুন প্রেমও ছেড়ে গিয়েছে। অগত্যা পুলিশের দ্বারস্থ হন ছাত্রীর বাবা। লিখিত অভিযোগে এই ‘অশ্লীল’ কাজের শাস্তি চান তিনি। ওই তরুণীও জানান, ‘তাঁর সঙ্গে আমার বন্ধুত্বের সম্পর্ক ছিল। সে কাজে যোগ দেওয়ায় আমার সঙ্গে দুরত্ব বাড়ে। কিন্তু এভাবে আমার ক্ষতি করবে ভাবতেও পারিনি।’ যদিও ঘটনার পর থেকে প্রযুক্তির সিঁদুরদাতা বেপাত্তা। পুলিশ সেই ফেসবুক প্রোফাইলটি বন্ধ করে দিয়েছে। তবে রাজনগরে হানা দিয়ে উত্যক্তকারী প্রেমিককে গ্রেপ্তার করতে পেরেছে সাইবার ক্রাইম থানা। একটি রাজনৈতিক দলের সক্রিয় কর্মী নিজের প্রভাব খাটিয়ে প্রেমিকাকে উত্যক্ত করত বলে অভিযোগ। তার সঙ্গে সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হওয়ার পরে তাদের আগের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেড়ে নানা হুমকি শুরু হয়েছিল।

রাজনৈতিক ক্ষমতার জন্য পুলিশ তাকে কিছু করতে পারবে না বলেও হুমকি দিত ওই যুবক। মেয়ের অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ গিয়ে অপরাধে ব্যবহৃত মোবাইল-সহ অনান্য ডিভাইস গুলি বাজেয়াপ্ত করে নিয়ে আসে। অভিযুক্ত প্রেমিকের ১৪ দিন জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারক।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে