BREAKING NEWS

০৯ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ২৪ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

স্ত্রী-র প্রেমিককে খুন করে নদীর চরে পুঁতে দিল যুবক

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: November 4, 2018 6:05 pm|    Updated: November 4, 2018 6:05 pm

Man murders wife's lover in Burdwan

ধীমান রায়, কাটোয়া: পরকীয়ার কারণে দাম্পত্যে বিচ্ছেদ৷ কিন্তু, ফের প্রাক্তন স্ত্রী-র কাছে ফিরতে চেয়েছিলেন এক যুবক৷ রাজি হননি ওই মহিলা৷ সেই আক্রোশে স্ত্রী প্রেমিককে খুন করল ওই মহিলার স্বামী৷ বেশ কয়েক দিন নিখোঁজ থাকার পর বর্ধমানের মঙ্গলকোটে অজয় নদের চর থেকে দেহ উদ্ধার করল পুলিশ৷ এদিকে এই ঘটনার আবার নাম জড়িয়েছে মৃতার দাদারও৷ ঘটনার তদন্তে নেমেছে মঙ্গলকোট থানার পুলিশ৷ এখনও পর্যন্ত গ্রেপ্তারের খবর নেই৷

[ জাতীয় সড়কে অভিযান চালিয়ে উদ্ধার ৩০০ কেজি গাঁজা, ধৃত ১]

বীরভূমের বোলপুরের মহিদাপুরের বাসিন্দা ভাসান শেখ৷ বছর সাতেক তার বিয়ে হয়েছিল৷ স্ত্রীর বাপের বাড়ি পূর্ব বর্ধমানের আউশগ্রামের পুবা গ্রামে৷ ওই দম্পতির দুই সন্তান৷ কিন্তু, বছক চারেক আগে স্ত্রী-কে তালাক দেন ভাসান৷ স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, খেলন মোল্লা নামে এক যুবকের সঙ্গে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েছিলেন ভাসানের স্ত্রী৷ খেলনের বাড়ি বোলপুরের মহিদাপুরে গ্রামেই৷ তিনি অবিবাহিত৷ বিবাহ-বিচ্ছেদের পর দুই সন্তানকে নিয়ে আউশগ্রামের বাপের বাড়িতে ফিরে গিয়েছিলেন ওই মহিলা৷

বোলপুরের মহিদাপুর গ্রামের বাসিন্দা খেলন মোল্লার গাড়ির ব্যবসা৷ চাষ-আবাদও করতেন তিনি৷ পরিবারের লোকেদের দাবি, গত ৩১ অক্টোবর বাড়ি থেকে সাইকেল নিয়ে বেরিয়ে যান খেলন৷ আর ফেরেননি তিনি৷ বোলপুরের রেজিস্ট্রি অফিস লাগোয়া একটি মার্কেটের সামনে থেকে খেলন মোল্লার বাইকটি পাওয়া যায়৷ ওই মার্কেটে সিসিটিভি ফুটেজে দেখা যায়, তিন যুবক খেলনকে গাড়িতে চাপিয়ে নিয়ে চলে যাচ্ছে৷ তাদের একজনের বাড়ি আবার আউশগ্রামে৷ এরপরই খেলন মোল্লার নামে নিখোঁজ ডায়েরি করেন পরিবারের লোকেরা৷ শনিবার সন্ধ্যায় আউশগ্রামে অজয় নদের চরে কয়েকটি কুকুরকে একটি মৃতদেহ টানাটানি করতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা৷ খবর দেওয়া হয় থানা৷ ঘটনাস্থলে গিয়ে দেহটি উদ্ধার করে পুলিশ৷ জানা যায়, মৃতদেহটি বোলপুরের মহিদাপুর গ্রামের খেলন মোল্লার৷ প্রাথমিক তদন্তে অনুমান, নিখোঁজ হওয়া দিনই তাঁকে খুন করে দেহটি পুঁতে দেওয়া হয়েছিল অজয় নদের চরে৷  

কিন্তু, কে খুন করল বছর সাতাশের ওই যুবককে? কেনই বা খুন হলেন তিনি? খেলন মোল্লার পরিবারের লোকেদের বক্তব্য, ভাসান শেখের সঙ্গে বিচ্ছেদের পর সন্তানদের নিয়ে আউশগ্রা্মে বাপের বাড়ি চলে গিয়েছিলেন তাঁর প্রাক্তন স্ত্রী৷ খেলনের সঙ্গে ওই মহিলার আর কোনও সম্পর্কও ছিল না৷ কিন্তু তাঁর সঙ্গে বোনের বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্ক আছে বলে সন্দেহ করত ওই মহিলার দাদা৷ ভাসান শেখ নিজেও প্রাক্তন স্ত্রীর কাছে ফিরতে চাইছিল৷ তারা দু’জনে মিলে পরিকল্পনা করেই খেলন মোল্লাকে খুন করেছে৷ তারপর মৃতদেহটি পুঁতে দেওয়া হয় মঙ্গলকোটে অজয় নদের তীরে৷ ঘটনার তদন্তে নেমেছে মঙ্গলকোট থানার পুলিশ৷ পূর্ব বর্ধমানের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (গ্রামীণ) রাজনারায়ণ মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, চার অভিযুক্তের বিরুদ্ধে খুনের মামলা দায়ের করেছে পুলিশ৷ তবে এখনও পর্যন্ত কাউকে গ্রেপ্তার করা হয়নি৷

[কংগ্রেস-তৃণমূল সংঘর্ষে গুলি চলল চোপড়ায়, মৃত ১]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে